ঢাকা ০৯:০৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সোনারগাঁয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী মাসুদ দুলাল নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন

  • আপলোড সময় : ০৮:২৫:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৩০৫ বার পড়া হয়েছে

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ -৩ আসনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সতন্ত্র প্রার্থী সাবেক ছাত্রনেতা এএইচএম মাসুদ দুলাল আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী আলহাজ্ব আব্দুল্লাহ্-আল-কায়সার কে সমর্থন জানিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) বিকালে এএইচএম মাসুদ দুলাল সোনারগাঁ উপজেলার মোগরাপাড়া তার নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন।

লিখিত বক্তব্যে এএইচএম মাসুদ দুলাল সোনারগাঁবাসীকে সালাম জানিয়ে বলেন,

প্রিয় আপনারা জানেন যে আগামী ৭ই জানুয়ারি আমাদের জাতীয় নির্বাচন। এ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আসন। এ আসনটি দীর্ঘ ১০ বছর জাতীয়পার্টির অধীনে ছিল। আমাদের সোনারগাঁ বাসীদের একটাই দাবী ছিল, দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে এ আসনে একজন নৌকার প্রার্থী মনোনয়ন পাক। একটা লক্ষ্যই আমাদের ছিল, তা হলো নৌকাকে পুনরায় সোনারগাঁয়ের মটিতে প্রতিষ্ঠিত করা। এ লক্ষ্য সামনে রেখে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে আমি স্বতন্ত্র পার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছিলাম। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে সমুন্নত রাখতেই আমার এ পদক্ষেপ নেওয়া।

তিনি বলেন, আমি ছাত্রজীবনে রাজনীতির প্রতি আকৃষ্টই হয়েছিলাম জাতির পিতার আদর্শকে ভালোবেসে। তাঁর আদর্শ এবং মাননীয় নেত্রীর দিক-নির্দেশনা অনুসরণই আমার রাজনৈতিক পরিচয়।

আমি কখনোই কোনো প্ররোচনা বা লোভের বশবর্তী হয়ে নৌকার পক্ষ্য থেকে সরে দাঁড়াইনি। আমার আদর্শের বিরুদ্ধে কখনও সমঝোতা করিনি এবং করবোও না, এবারো তার ব্যাতিক্রম হবেনা। আমি সব সময়ই নৌকার সমর্থক ছিলাম এবং আজীবনই থাকবো। বিগত নির্বাচন গুলোতেও নিশ্চয় আপনারা নৌকার প্রতি আমার আনুগত্যের প্রমাণ পেয়েছেন। কিন্তু গত ১৭ই ডিসেম্বর ছিলো মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন।

কিছু অনাকাঙ্খিত জটিলতার কারণে আমার স্বতন্ত্র প্রার্থীতার মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করা সম্ভব না হলেও আপনারা নিশ্চই জানেন যে, নির্বাচন প্রক্রিয়ার শুরু থেকেই আমি বলে এসেছি নৌকার মনোনয়ন যিনি পাবেন নৌকার স্বার্থে আমি অবশ্যই তাঁর পক্ষেই থাকবো।

তিনি বলেন, আজকে এখানে আপনাদের সবার সামনে আমি বলতে চাই, বঙ্গবন্ধুর একজন একনিষ্ঠ সৈনিক হিসেবে নৌকা প্রতীকের প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে এই মূহুর্ত থেকেই আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষনা দিচ্ছি।

আমি ব্যক্তি এ.এইচ.এম. মাসুদ দুলাল সোনারগাঁয়ের মানুষের যেকোনো প্রয়োজনে আগেও পাশে ছিলাম এবং ইনশাআল্লাহ ভবিষ্যতেও থাকবো।

নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের নৌকা প্রার্থী আব্দুল্লাহ্ আল কায়সার হাসনাত’র জন্য রইল আমার প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও শুভ কামনা।

সোনারগাঁ বাসীর কাছে আমার নিবেদন, আসন্ন ৭ই জানুয়ারি জাতীয় নির্বাচনে আপনারা অবশ্যই নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন। আপনারা নৌকা প্রতীকে ভোট দিন, উজ্জল ও স্মার্ট সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করুন।

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ চিরজীবী হোক। সোনার বাংলাদেশের রূপকার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জয়যাত্রা অব্যাহত থাকুক।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

সোনারগাঁয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী মাসুদ দুলাল নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন

আপলোড সময় : ০৮:২৫:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০২৩

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ -৩ আসনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সতন্ত্র প্রার্থী সাবেক ছাত্রনেতা এএইচএম মাসুদ দুলাল আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী আলহাজ্ব আব্দুল্লাহ্-আল-কায়সার কে সমর্থন জানিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) বিকালে এএইচএম মাসুদ দুলাল সোনারগাঁ উপজেলার মোগরাপাড়া তার নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন।

লিখিত বক্তব্যে এএইচএম মাসুদ দুলাল সোনারগাঁবাসীকে সালাম জানিয়ে বলেন,

প্রিয় আপনারা জানেন যে আগামী ৭ই জানুয়ারি আমাদের জাতীয় নির্বাচন। এ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আসন। এ আসনটি দীর্ঘ ১০ বছর জাতীয়পার্টির অধীনে ছিল। আমাদের সোনারগাঁ বাসীদের একটাই দাবী ছিল, দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে এ আসনে একজন নৌকার প্রার্থী মনোনয়ন পাক। একটা লক্ষ্যই আমাদের ছিল, তা হলো নৌকাকে পুনরায় সোনারগাঁয়ের মটিতে প্রতিষ্ঠিত করা। এ লক্ষ্য সামনে রেখে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে আমি স্বতন্ত্র পার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছিলাম। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে সমুন্নত রাখতেই আমার এ পদক্ষেপ নেওয়া।

তিনি বলেন, আমি ছাত্রজীবনে রাজনীতির প্রতি আকৃষ্টই হয়েছিলাম জাতির পিতার আদর্শকে ভালোবেসে। তাঁর আদর্শ এবং মাননীয় নেত্রীর দিক-নির্দেশনা অনুসরণই আমার রাজনৈতিক পরিচয়।

আমি কখনোই কোনো প্ররোচনা বা লোভের বশবর্তী হয়ে নৌকার পক্ষ্য থেকে সরে দাঁড়াইনি। আমার আদর্শের বিরুদ্ধে কখনও সমঝোতা করিনি এবং করবোও না, এবারো তার ব্যাতিক্রম হবেনা। আমি সব সময়ই নৌকার সমর্থক ছিলাম এবং আজীবনই থাকবো। বিগত নির্বাচন গুলোতেও নিশ্চয় আপনারা নৌকার প্রতি আমার আনুগত্যের প্রমাণ পেয়েছেন। কিন্তু গত ১৭ই ডিসেম্বর ছিলো মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন।

কিছু অনাকাঙ্খিত জটিলতার কারণে আমার স্বতন্ত্র প্রার্থীতার মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করা সম্ভব না হলেও আপনারা নিশ্চই জানেন যে, নির্বাচন প্রক্রিয়ার শুরু থেকেই আমি বলে এসেছি নৌকার মনোনয়ন যিনি পাবেন নৌকার স্বার্থে আমি অবশ্যই তাঁর পক্ষেই থাকবো।

তিনি বলেন, আজকে এখানে আপনাদের সবার সামনে আমি বলতে চাই, বঙ্গবন্ধুর একজন একনিষ্ঠ সৈনিক হিসেবে নৌকা প্রতীকের প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে এই মূহুর্ত থেকেই আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষনা দিচ্ছি।

আমি ব্যক্তি এ.এইচ.এম. মাসুদ দুলাল সোনারগাঁয়ের মানুষের যেকোনো প্রয়োজনে আগেও পাশে ছিলাম এবং ইনশাআল্লাহ ভবিষ্যতেও থাকবো।

নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের নৌকা প্রার্থী আব্দুল্লাহ্ আল কায়সার হাসনাত’র জন্য রইল আমার প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও শুভ কামনা।

সোনারগাঁ বাসীর কাছে আমার নিবেদন, আসন্ন ৭ই জানুয়ারি জাতীয় নির্বাচনে আপনারা অবশ্যই নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন। আপনারা নৌকা প্রতীকে ভোট দিন, উজ্জল ও স্মার্ট সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করুন।

জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ চিরজীবী হোক। সোনার বাংলাদেশের রূপকার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জয়যাত্রা অব্যাহত থাকুক।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন