ঢাকা ০৮:২৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদপুর-১ আসনে দোলনকে সিংহভাগ নেতাকর্মীর সাদরে গ্রহণ

মো: সাদ্দাম হোসেন মুন্না খান (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মো: সাদ্দাম হোসেন মুন্না খান (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ০৮:৪৩:২৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ৩০৯ বার পড়া হয়েছে

আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারী ও মধুখালী উপজেলা নিয়ে গঠিত ফরিদপুর-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আরিফুর রহমান দোলন সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হচ্ছেন। আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনি প্রচার শুরুর পর থেকে জেলা, উপজেলা, ইউনিয়নের সিংহভাগ নেতাকর্মী তাকে সাদরে গ্রহণ করেছেন।

দোলনের গণসংযোগ, উঠান বৈঠক, পথসভা ও নির্বাচনি সভায় সর্বস্তরের হাজার হাজার মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন।

নির্বাচনি প্রচারের সপ্তদশ দিনে বৃহস্পতিবার আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারী ও মধুখালীতে দোলনের ঈগল মার্কার পক্ষে গণসংযোগ ও সভা হয়। এসব কর্মসূচিতে হাজার-হাজার জনতা ঈগল মার্কাকে সমর্থন জানিয়ে মিছিল সহকারে ঈগল মার্কার প্রার্থীর সঙ্গে যোগ দেন। দোলন প্রত্যন্ত এলাকা ঘুরে ঘুরে সর্বসাধারণের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন।

বিভিন্ন পথসভায় দেওয়া বক্তব্যে দোলন পবিত্র কাবা শরীফ ছুঁয়ে তাঁর শপথের কথা পুনর্ব্যক্ত করেন। বলেন, ‘আপনারা আমাকে এমপি বানালে বেতন-ভাতার এক টাকাও নিজের জন্য ব্যয় করবো না। ফরিদপুর-১ আসনের হতদরিদ্র মানুষের কল্যাণে বিলিয়ে দেবো।’
দোলনের কাছে স্থানীয় জনগণ নানা সমস্যার কথা তুলে ধরেন। নির্বাচনে জয়লাভ করলে সকল সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করবেন বলে ভোটারদের আশ্বাস দেন স্বতন্ত্র এ প্রার্থী। পথসভায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ এবং সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার নেতৃবৃন্দ ঈগল মার্কায় ভোট প্রার্থনা করেন।

ঢাকা টাইমস সম্পাদক ও কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান দোলন তাঁর প্রতি অকুণ্ঠ সমর্থন দেওয়ায় জনতার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি ফরিদপুর-১ আসনের সর্বস্তরের মানুষের অধিকার ও সম্মান প্রতিষ্ঠা করতে আগামী ৭ জানুয়ারি ঈগল মার্কায় ভোট প্রার্থনা করেন।

দোলন বলেন, ‘আমি সবসময় সাধারণ মানুষের সম্মানের কথা বলি। শান্তির কথা বলি। উন্নয়নের কথা বলি। মানবিকতার কথা বলি। আমি এমপি নির্বাচিত হলে সকলের অধিকার ও সম্মান প্রতিষ্ঠা করবো। ইনশাআল্লাহ।’

প্রসঙ্গত, ফরিদপুর-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আরিফুর রহমান দোলনের পক্ষে তিন উপজেলার আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতারা কাজ করার প্রকাশ্য ঘোষণা দিয়েছেন। ফলে নির্বাচনে তরুণ রাজনীতিক দোলন বিজয়ের পথে অন্য প্রার্থীর চেয়ে এগিয়ে রয়েছেন।

কৃষক লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি দোলনের রয়েছে ক্লিন ইমেজ আর জনসমর্থন। অন্যদিকে গত দুই দশক ধরে নিরলস ভাবে ফরিদপুর-১ আসনে নানান উন্নয়ন কর্মকাণ্ড চালিয়েছেন তিনি। এসব কর্মকাণ্ডের সুফলভোগী হাজার হাজার সাধারণ মানুষ। জনদরদী নেতা দোলন এমপি হলে ফরিদপুর-১ আসনের উন্নয়নচিত্র বদলে যাবে বলে বিশ্বাস ভোটারদের।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

ফরিদপুর-১ আসনে দোলনকে সিংহভাগ নেতাকর্মীর সাদরে গ্রহণ

আপলোড সময় : ০৮:৪৩:২৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ জানুয়ারী ২০২৪

আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারী ও মধুখালী উপজেলা নিয়ে গঠিত ফরিদপুর-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আরিফুর রহমান দোলন সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হচ্ছেন। আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনি প্রচার শুরুর পর থেকে জেলা, উপজেলা, ইউনিয়নের সিংহভাগ নেতাকর্মী তাকে সাদরে গ্রহণ করেছেন।

দোলনের গণসংযোগ, উঠান বৈঠক, পথসভা ও নির্বাচনি সভায় সর্বস্তরের হাজার হাজার মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেন।

নির্বাচনি প্রচারের সপ্তদশ দিনে বৃহস্পতিবার আলফাডাঙ্গা, বোয়ালমারী ও মধুখালীতে দোলনের ঈগল মার্কার পক্ষে গণসংযোগ ও সভা হয়। এসব কর্মসূচিতে হাজার-হাজার জনতা ঈগল মার্কাকে সমর্থন জানিয়ে মিছিল সহকারে ঈগল মার্কার প্রার্থীর সঙ্গে যোগ দেন। দোলন প্রত্যন্ত এলাকা ঘুরে ঘুরে সর্বসাধারণের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন।

বিভিন্ন পথসভায় দেওয়া বক্তব্যে দোলন পবিত্র কাবা শরীফ ছুঁয়ে তাঁর শপথের কথা পুনর্ব্যক্ত করেন। বলেন, ‘আপনারা আমাকে এমপি বানালে বেতন-ভাতার এক টাকাও নিজের জন্য ব্যয় করবো না। ফরিদপুর-১ আসনের হতদরিদ্র মানুষের কল্যাণে বিলিয়ে দেবো।’
দোলনের কাছে স্থানীয় জনগণ নানা সমস্যার কথা তুলে ধরেন। নির্বাচনে জয়লাভ করলে সকল সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করবেন বলে ভোটারদের আশ্বাস দেন স্বতন্ত্র এ প্রার্থী। পথসভায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ এবং সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার নেতৃবৃন্দ ঈগল মার্কায় ভোট প্রার্থনা করেন।

ঢাকা টাইমস সম্পাদক ও কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান দোলন তাঁর প্রতি অকুণ্ঠ সমর্থন দেওয়ায় জনতার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি ফরিদপুর-১ আসনের সর্বস্তরের মানুষের অধিকার ও সম্মান প্রতিষ্ঠা করতে আগামী ৭ জানুয়ারি ঈগল মার্কায় ভোট প্রার্থনা করেন।

দোলন বলেন, ‘আমি সবসময় সাধারণ মানুষের সম্মানের কথা বলি। শান্তির কথা বলি। উন্নয়নের কথা বলি। মানবিকতার কথা বলি। আমি এমপি নির্বাচিত হলে সকলের অধিকার ও সম্মান প্রতিষ্ঠা করবো। ইনশাআল্লাহ।’

প্রসঙ্গত, ফরিদপুর-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আরিফুর রহমান দোলনের পক্ষে তিন উপজেলার আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতারা কাজ করার প্রকাশ্য ঘোষণা দিয়েছেন। ফলে নির্বাচনে তরুণ রাজনীতিক দোলন বিজয়ের পথে অন্য প্রার্থীর চেয়ে এগিয়ে রয়েছেন।

কৃষক লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি দোলনের রয়েছে ক্লিন ইমেজ আর জনসমর্থন। অন্যদিকে গত দুই দশক ধরে নিরলস ভাবে ফরিদপুর-১ আসনে নানান উন্নয়ন কর্মকাণ্ড চালিয়েছেন তিনি। এসব কর্মকাণ্ডের সুফলভোগী হাজার হাজার সাধারণ মানুষ। জনদরদী নেতা দোলন এমপি হলে ফরিদপুর-১ আসনের উন্নয়নচিত্র বদলে যাবে বলে বিশ্বাস ভোটারদের।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন