ঢাকা ০৫:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিদ্ধিরগঞ্জে ১০ লাখ টাকা নিয়ে দেলোয়ার লাপাত্তা

মো: সাদ্দাম হোসেন মুন্না খান (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মো: সাদ্দাম হোসেন মুন্না খান (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ০৮:১৮:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩
  • / ৩২৬ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ১০ লাখেরও বেশি টাকা নিয়ে
দেলোয়ার হোসেন ও তার পরিবার এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ
উঠেছে। এ ঘটনায় গত ২০ নভেম্বর ভুক্তভোগী ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক
মো: জামির হোসেন রানা বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় অভিযোগ করেও
কোন প্রতিকার না পাওয়ায় হতাশায় দিন যাপন করছে। এরআগে গত ১৬
নভেম্বর বেলা ১১ টায় সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি কান্দাপাড়া এলাকা থেকে
মেসার্স দাবি ন্যাশনাল কনজ্যুমার থেকে মার্কেটিং ডেলিভারীম্যান
দেলোয়ার উক্ত কোম্পানীর বিভিন্ন মালামাল ডেলিভারীর ১০ লাখ এক হাজার
২শত আটাশ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।
অভিযুক্ত আসামীরা হলো, কিশোরগঞ্জ জেলার অষ্টগ্রাম থানার
কাগজীগ্রামের আবু বাক্কার ওরফে বক্তারের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (২৮),
মোস্তাক (২১) ও মৃত ইউনুস আলীর ছেলে আবু বাক্কার ওরফে বক্তার (৫২)।
অভিযোগে ভুক্তভোগী জামির হোসেন রানা অভিযোগে জানান, দেলোয়ার
হোসেন আমার মেসার্স দাবি ন্যাশনাল কঞ্জুমার এ মার্কেটিং
ডেলিভারীম্যান হিসাবে কাজ করে আসছে। সে গত ১৬ নভেম্বর বেলা
আনুমানিক ১১ টার সময় আমার উক্ত কোম্পানীর বিভিন্ন মাল ডেলিভারীর
১০,০১,২২৮ টাকা নিয়ে অজ্ঞাতস্থানে পালাইয়া যায়। অতঃপর আমি তার বাবার
নিকট গিয়ে উক্ত বিষয়ে জানাইলে সে এবং তার ছোটছেলে আমাকে আমার
টাকা ফেরত দিবে বলে একটি সাদা কাগজে লিখিত স্বাক্ষর দেয়। তারপর তারা
সহ তার পরিবারের সকল লোকজন ১৯ নভেম্বর বেলা ১ টার দিকে তারা ভাড়া
বাসায় তালাবদ্ধ করে অনত্র চলিয়া যায়। ঘটনাটি আমি জানার পর তাদেরকে
এলাকার বিভিন্নস্থানে খোঁজা-খুঁজি করেও কোন সন্ধ্যান পাওয়া যায়

নাই। পরে আমি দেলোয়ার ও তার ছোটভাই মোস্তাকের মোবাইল নম্বর-
০১৬১৩৬৫১৩২০, ০১৬০৫১৩৮৪৯৬, এ আমার ব্যবহৃত মোবাইল নং-
০১৭১৩০৮৭১৫৭ হইতে ফোন করিলেও তারা আমার ফোনটি রিসিভ করে নাই।
তাদের এরূপ আচরনে আমার দৃঢ় বিশ্বাস হয় যে, তারা আমার কোম্পানীর
বিভিন্ন মাল ডেলিভারীর ১০,০১,২২৮ টাকা প্রতারনামূলক ভাবে আত্মসাৎ
করিয়া অনত্র চলিয়া গিয়াছে।
অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে তদন্তকারী কর্মকর্তা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার
উপ-পরিদর্শক (এসআই) কামরুল হাসান জানান, অভিযুক্তদের গ্রেফতারের
চেষ্টা চলছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

সিদ্ধিরগঞ্জে ১০ লাখ টাকা নিয়ে দেলোয়ার লাপাত্তা

আপলোড সময় : ০৮:১৮:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩

সিদ্ধিরগঞ্জে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ১০ লাখেরও বেশি টাকা নিয়ে
দেলোয়ার হোসেন ও তার পরিবার এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ
উঠেছে। এ ঘটনায় গত ২০ নভেম্বর ভুক্তভোগী ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক
মো: জামির হোসেন রানা বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় অভিযোগ করেও
কোন প্রতিকার না পাওয়ায় হতাশায় দিন যাপন করছে। এরআগে গত ১৬
নভেম্বর বেলা ১১ টায় সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি কান্দাপাড়া এলাকা থেকে
মেসার্স দাবি ন্যাশনাল কনজ্যুমার থেকে মার্কেটিং ডেলিভারীম্যান
দেলোয়ার উক্ত কোম্পানীর বিভিন্ন মালামাল ডেলিভারীর ১০ লাখ এক হাজার
২শত আটাশ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।
অভিযুক্ত আসামীরা হলো, কিশোরগঞ্জ জেলার অষ্টগ্রাম থানার
কাগজীগ্রামের আবু বাক্কার ওরফে বক্তারের ছেলে দেলোয়ার হোসেন (২৮),
মোস্তাক (২১) ও মৃত ইউনুস আলীর ছেলে আবু বাক্কার ওরফে বক্তার (৫২)।
অভিযোগে ভুক্তভোগী জামির হোসেন রানা অভিযোগে জানান, দেলোয়ার
হোসেন আমার মেসার্স দাবি ন্যাশনাল কঞ্জুমার এ মার্কেটিং
ডেলিভারীম্যান হিসাবে কাজ করে আসছে। সে গত ১৬ নভেম্বর বেলা
আনুমানিক ১১ টার সময় আমার উক্ত কোম্পানীর বিভিন্ন মাল ডেলিভারীর
১০,০১,২২৮ টাকা নিয়ে অজ্ঞাতস্থানে পালাইয়া যায়। অতঃপর আমি তার বাবার
নিকট গিয়ে উক্ত বিষয়ে জানাইলে সে এবং তার ছোটছেলে আমাকে আমার
টাকা ফেরত দিবে বলে একটি সাদা কাগজে লিখিত স্বাক্ষর দেয়। তারপর তারা
সহ তার পরিবারের সকল লোকজন ১৯ নভেম্বর বেলা ১ টার দিকে তারা ভাড়া
বাসায় তালাবদ্ধ করে অনত্র চলিয়া যায়। ঘটনাটি আমি জানার পর তাদেরকে
এলাকার বিভিন্নস্থানে খোঁজা-খুঁজি করেও কোন সন্ধ্যান পাওয়া যায়

নাই। পরে আমি দেলোয়ার ও তার ছোটভাই মোস্তাকের মোবাইল নম্বর-
০১৬১৩৬৫১৩২০, ০১৬০৫১৩৮৪৯৬, এ আমার ব্যবহৃত মোবাইল নং-
০১৭১৩০৮৭১৫৭ হইতে ফোন করিলেও তারা আমার ফোনটি রিসিভ করে নাই।
তাদের এরূপ আচরনে আমার দৃঢ় বিশ্বাস হয় যে, তারা আমার কোম্পানীর
বিভিন্ন মাল ডেলিভারীর ১০,০১,২২৮ টাকা প্রতারনামূলক ভাবে আত্মসাৎ
করিয়া অনত্র চলিয়া গিয়াছে।
অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে তদন্তকারী কর্মকর্তা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার
উপ-পরিদর্শক (এসআই) কামরুল হাসান জানান, অভিযুক্তদের গ্রেফতারের
চেষ্টা চলছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন