ঢাকা ০২:০৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পোস্তগোলা সেতুতে যান চলাচল বন্ধ, ভোগান্তিতে হাজার হাজার মানুষ

মো: শাহিন (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মো: শাহিন (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ১০:১১:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪
  • / ২৭৭ বার পড়া হয়েছে

রাজধানীর পোস্তগোলা সেতুর সংস্কার কাজ শুরু হওয়ায় আজ শুক্রবার সেতুর ওপর দিয়ে চলাচলরত ভারী ও হালকাসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন দক্ষিণাঞ্চল থেকে আসা যাত্রীরা এবং চরম দুর্ভোগে পড়েছেন এই সেতু দিয়ে পারাপার হওয়া কেরানীগঞ্জ ও জুরাইন, পোস্তগোলার হাজার হাজার মানুষ। ফলে পায়ে হেঁটে পার হচ্ছেন প্রায় এক কিলোমিটার দৈর্ঘ্য এই সেতুটি। বয়স্ক নারী-পুরুষসহ বিপাকে পড়েছেন সব বয়সী মানুষ। সেতুটির সংস্কার কাজ শুরু হওয়ায় ২২ ফেব্রুয়ারি হতে ৮ মার্চ পর্যন্ত সেতুর ওপর দিয়ে ভারী যানবাহন (ট্রাক, পিকআপ ভ্যান, কাভার্ড ভ্যান ও কন্টেইনারবাহী লরি) এবং হালকা যানবাহন (বাস, মাইক্রোবাস, প্রাইভেট কার ও সিএনজি চালিত অটো রিকশা ইত্যাদি) ৫ দিন (২৪,২৬ ফেব্রুয়ারি ও ১,৪, ৮ মার্চ) চলাচল নিষিদ্ধ করে বিকল্প রাস্তা ব্যবহারের নির্দেশনা দেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ-এর (ডিএমপি) ট্রাফিক বিভাগ। এতে বিকল্প রাস্তাসহ বাবুবাজার ব্রিজে পরিবহনের চাপ বেড়ে গিয়ে ব্যাপক যানজট ও ভোগান্তিতে পড়েছেন পরিবহনচালক ও যাত্রীরা।

সরেজমিনে পোস্তগোলা সেতুতে গিয়ে দেখা যায়, সেতুর এপার ওপার চলাচল করা সিএনজি অটোরিকশাসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে পায়ে হেঁটে সেতু পারাপার হচ্ছেন বিভিন্ন বয়সী শত শত নারী-পুরুষ।
শরীয়তপুর থেকে আসা বয়স্ক নারী রহিমা বলেন, ‘আমি জানতাম না আজ এখানে গাড়ি চলাচল বন্ধ। রাজেন্দ্রপুর
কেন্দ্রীয় কারাগারে সামনে বাস থেকে নামায় দিছে। ফলে মালামাল নিয়ে এসে অনেক ভোগান্তিতে পড়েছি।

সরেজমিনে আজ বিকালে বাবুবাজার সেতুতে গিয়ে দেখা যায়, পোস্তগোলা সেতু বন্ধ থাকায় বাবুবাজার সেতুতে
বাস, ট্রাক, পিকআপসহ বিভিন্ন যানের দীর্ঘ সারি ব্রিজের ওপর। দুই পাশে প্রায় তিন কিলোমিটার দীর্ঘ হয়েছে এ যানজট। ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানবাহন দাঁড়িয়ে আছে। সেতুর ওপর কেরানীগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী কয়েক শ যানবাহন স্থবির হয়ে আছে। দীর্ঘক্ষণ গাড়িতে বসে অপেক্ষার পর অনেক যাত্রী গাড়ি থেকে নেমে কাঁধে ও হাতে ভারী ব্যাগ বহন করে হেঁটে নিজ নিজ গন্তব্যে রওনা হচ্ছেন।

পোস্তগোলা থেকে সেতুটি হেঁটে পার হতে গিয়ে ৬৫ বছরে বয়স্ক আমেনা বেগম নামের এক নারী অস্থির হয়ে পড়ে যান। তিনি বলেন, আগে যদি জানতাম পোস্তগোলা সেতু বন্ধ থাকবে তাহলে বাসা থেকে বের হতাম না।সেতু বন্ধের আগে মাইকিং করা দরকার।

সেতুর এপার ওপার চলাচল করা সিএনজিচালক চান মিয়া বলেন, ‘একদিন গাড়ি না চালালে সংসার চলে না। শুনলাম আরও কয়েক দিন গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকবে। আমাদের সংসার চালাতে কষ্ট হয়ে যায় গাড়ি বন্ধ থাকলে।

এ ব্যাপারে ঢাকা জেলার ট্রাফিক দক্ষিণ বিভাগের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (প্রশাসন) মো. জাকির হোসেন বলেন, পোস্তগোলা সেতুতে যান চলাচল বন্ধ থাকায় কেরানীগঞ্জের চুনকুটিয়া থেকে কদমতলী রাস্তা ও বাবুবাজার ব্রিজে গাড়ির চাপ বেড়েছে। তবে আমরা যানজট নিরসনে যথাসাধ্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

পোস্তগোলা সেতুতে যান চলাচল বন্ধ, ভোগান্তিতে হাজার হাজার মানুষ

আপলোড সময় : ১০:১১:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪

রাজধানীর পোস্তগোলা সেতুর সংস্কার কাজ শুরু হওয়ায় আজ শুক্রবার সেতুর ওপর দিয়ে চলাচলরত ভারী ও হালকাসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন দক্ষিণাঞ্চল থেকে আসা যাত্রীরা এবং চরম দুর্ভোগে পড়েছেন এই সেতু দিয়ে পারাপার হওয়া কেরানীগঞ্জ ও জুরাইন, পোস্তগোলার হাজার হাজার মানুষ। ফলে পায়ে হেঁটে পার হচ্ছেন প্রায় এক কিলোমিটার দৈর্ঘ্য এই সেতুটি। বয়স্ক নারী-পুরুষসহ বিপাকে পড়েছেন সব বয়সী মানুষ। সেতুটির সংস্কার কাজ শুরু হওয়ায় ২২ ফেব্রুয়ারি হতে ৮ মার্চ পর্যন্ত সেতুর ওপর দিয়ে ভারী যানবাহন (ট্রাক, পিকআপ ভ্যান, কাভার্ড ভ্যান ও কন্টেইনারবাহী লরি) এবং হালকা যানবাহন (বাস, মাইক্রোবাস, প্রাইভেট কার ও সিএনজি চালিত অটো রিকশা ইত্যাদি) ৫ দিন (২৪,২৬ ফেব্রুয়ারি ও ১,৪, ৮ মার্চ) চলাচল নিষিদ্ধ করে বিকল্প রাস্তা ব্যবহারের নির্দেশনা দেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ-এর (ডিএমপি) ট্রাফিক বিভাগ। এতে বিকল্প রাস্তাসহ বাবুবাজার ব্রিজে পরিবহনের চাপ বেড়ে গিয়ে ব্যাপক যানজট ও ভোগান্তিতে পড়েছেন পরিবহনচালক ও যাত্রীরা।

সরেজমিনে পোস্তগোলা সেতুতে গিয়ে দেখা যায়, সেতুর এপার ওপার চলাচল করা সিএনজি অটোরিকশাসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে পায়ে হেঁটে সেতু পারাপার হচ্ছেন বিভিন্ন বয়সী শত শত নারী-পুরুষ।
শরীয়তপুর থেকে আসা বয়স্ক নারী রহিমা বলেন, ‘আমি জানতাম না আজ এখানে গাড়ি চলাচল বন্ধ। রাজেন্দ্রপুর
কেন্দ্রীয় কারাগারে সামনে বাস থেকে নামায় দিছে। ফলে মালামাল নিয়ে এসে অনেক ভোগান্তিতে পড়েছি।

সরেজমিনে আজ বিকালে বাবুবাজার সেতুতে গিয়ে দেখা যায়, পোস্তগোলা সেতু বন্ধ থাকায় বাবুবাজার সেতুতে
বাস, ট্রাক, পিকআপসহ বিভিন্ন যানের দীর্ঘ সারি ব্রিজের ওপর। দুই পাশে প্রায় তিন কিলোমিটার দীর্ঘ হয়েছে এ যানজট। ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানবাহন দাঁড়িয়ে আছে। সেতুর ওপর কেরানীগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী কয়েক শ যানবাহন স্থবির হয়ে আছে। দীর্ঘক্ষণ গাড়িতে বসে অপেক্ষার পর অনেক যাত্রী গাড়ি থেকে নেমে কাঁধে ও হাতে ভারী ব্যাগ বহন করে হেঁটে নিজ নিজ গন্তব্যে রওনা হচ্ছেন।

পোস্তগোলা থেকে সেতুটি হেঁটে পার হতে গিয়ে ৬৫ বছরে বয়স্ক আমেনা বেগম নামের এক নারী অস্থির হয়ে পড়ে যান। তিনি বলেন, আগে যদি জানতাম পোস্তগোলা সেতু বন্ধ থাকবে তাহলে বাসা থেকে বের হতাম না।সেতু বন্ধের আগে মাইকিং করা দরকার।

সেতুর এপার ওপার চলাচল করা সিএনজিচালক চান মিয়া বলেন, ‘একদিন গাড়ি না চালালে সংসার চলে না। শুনলাম আরও কয়েক দিন গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকবে। আমাদের সংসার চালাতে কষ্ট হয়ে যায় গাড়ি বন্ধ থাকলে।

এ ব্যাপারে ঢাকা জেলার ট্রাফিক দক্ষিণ বিভাগের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (প্রশাসন) মো. জাকির হোসেন বলেন, পোস্তগোলা সেতুতে যান চলাচল বন্ধ থাকায় কেরানীগঞ্জের চুনকুটিয়া থেকে কদমতলী রাস্তা ও বাবুবাজার ব্রিজে গাড়ির চাপ বেড়েছে। তবে আমরা যানজট নিরসনে যথাসাধ্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন