ঢাকা ০৪:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সোনারগাঁয়ে হাসনাত পরিবারই আওয়ামী লীগকে যুগ যুগ ধরে বুকে ধারণ করে রেখেছে, মাসুম চেয়ারম্যান

সোনারগাঁ প্রতিনিধি
সোনারগাঁ প্রতিনিধি
  • আপলোড সময় : ০৬:৫৯:৩৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৫৩৫ বার পড়া হয়েছে

জাতীয় দৈনিক আজকের দর্পণ পত্রিকার নবম বর্ষ থেকে দশম বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে সোনারগাঁও উপজেলার প্রতিনিধি হুমায়ুন কবিরের আয়োজনে সোনারগাঁ ষোলআনা সংগঠনের উদ্যোগে গত শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পিরোজপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি, সোনারগাঁয়ের গরীব দুঃখী মানুষের হৃদয়ের স্পন্দন , মানবতার ফেরিওয়ালা,আলহাজ্ব ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম বলেন, সোনারগাঁয়ে এই আওয়ামী লীগকে যুগ যুগ ধরে হাসনাত পরিবারই দুখে সুখে পাশে থেকে বুকে ধারণ করে শক্ত করে ধরে রেখেছেন। আজ আওয়ামী লীগের স্লোগান এই হাসনাত পরিবার থেকেই শুরু হয়। মিটিং মিছিল জনসভায় হাজার হাজার নেতাকর্মী নিয়ে যোগদান করেন এই হাসনাত পরিবারের উদ্যোগেই। হাসনাত পরিবার যদি সোনারগাঁয়ে আওয়ামীলীগকে জড়িয়ে না রাখত সোনারগাঁয়ে আওয়ামী লীগের অস্তিত্ব থাকত না। বড়ই দুঃখ ও আফসোসের সাথে বলতে হয়, আজ আওয়ামী লীগের সুসময়ের অনেক বড় বড় নেতা হয়ে নমিনেশনের জন্য জায়গায় জায়গায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের রিফ্লেট বিলি করছে। অথচ তাদেরকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ডাকে বা জনসভায় বা বিভিন্ন জাতীয় দিবসে তাদের খুঁজে পাওয়া যায় না। আজ যেখানেই জামাত-শিবির আওয়ামী লীগকে নিয়ে ষড়যন্ত্র করে বা রাজপথে আন্দোলন গড়ে তোলে তাদের প্রতিহতের জন্য এই সমস্ত রিফ্লেটবাহিনর নেতাকর্মী খুঁজে পাওয়া যায় না। প্রতিবাদের জন্য হাসনাত পরিবার রাজপথে লড়াকু সৈনিকের মত ঝাঁপিয়ে পড়তে হয়।

মীরজাফরের মত যারা আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত পরিবারকে নিয়ে ষড়যন্ত্রলিপ্ত হয়েছে তারাই নমিনেশনের জন্য জায়গায় জায়গায় তদবির করে চলছে। তাদের উদ্দেশ্যে করে বলতে চাই হাসনাত পরিবার তো অনেক উপরের কথা আপনারা আমার মত একজন আওয়ামী লীগের তৃণমূলের নেতা সাথে লড়ে আগে দেখেন পারেন কিনা। এরপর বুঝা যাবে আপনি কিভাবে হাসনাত পরিবারের আব্দুল্লাহ আল কায়সারের সাথে কিভাবে লড়বেন। তবে মনে রাখবেন সোনারগাঁয়ে যদি নৌকা আসে তাহলে আব্দুল্লাহ আল কায়সার এর হাত ধরেই নৌকা আসবে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা তিনি জানেন সোনারগাঁয়ে আওয়ামী লীগের কাঙ্গারি, আওয়ামী লীগের প্রকৃত প্রেমিক আওয়ামী লীগকে যুগ যুগ ধরে কে বুকে ধারণ করে রাজপথে পরিশ্রম করে যাচ্ছে, সে হল আব্দুল্লাহ আল কায়সার। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তিনি নিজে এই হাসনাত পরিবারের ভালো-মন্দ খবর নিয়ে থাকেন। তার হাত ধরেই ইনশাআল্লাহ আগামী জাতীয় নির্বাচনের নৌকা আসবে।

এ ছাড়াও তিনি আরো বলেন, সোনারগাঁয়ে আওয়ামী লীগ থেকে একমাত্র কায়সার হাসনাতই মনোয়ন পাওয়ার যোগ্যতা রাখেন। কোন কোন নেতা প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন লিফলেট করে প্রচার করছেন। আর নৌকার মনোনয়ন দাবি করছেন। সোনারগাঁয়ের রাজনীতিতে আপনার কি অবদান আছে, পারলে সেটা প্রচার করেন। আপনি করোনাকালে কোথায় ছিলেন? নেতাকর্মী ও সোনারগাঁবাসীর জন্য আপনি কি অবদান রেখেছেন। পারলে আপনার অবদান লিফলেট করে প্রচার করেন। কোন মাদ্রাসা, রাস্তা ও মানুষের কল্যাণে আপনারা টাকা খরচ করেছেন দেখাতে পারবেন? বলে মন্তব্য ও প্রশ্ন ছুড়ে মেরেছেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না আসলে, নৌকার চেয়ারম্যানরা মাঠে থাকতে পারবে না। আজকে ফেসবুক খুললেই দেখি আমাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হয়। এগুলো কারা করে? যারা আমার এলাকায় খুনি, পলিথিন বিক্রি করে খাইছে ও যাদের বাবা দাদার নাম নাই তারাই অপপ্রচার চালাচ্ছে। আমার কাছে প্রমাণ রয়েছে। ৭টা ফেইক আইডি খুলে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। যদি বাপের বেটা হস সামনা সামনি এসে কর। আড়ালে জারজ সন্তানের মতো এগুলো আমরা কেয়ার করি না। আমাদের বিরুদ্ধে যত লিখবেন রাজনীতি আরও পরিষ্কার হবে।

মাসুম বলেন, সামনে একটা মাস অনেক কঠিন সময় আসবে। যারা ফেইক আইডি খুলে অপপ্রচার চালাছে তাদের বিরুদ্ধে অতি শীঘ্রই আমরা সংবাদ সম্মেলন করবো। যারা কায়সার হাসনাতের দলের নেতাদের চরিত্র হনন করতে চায়, এদের বিষ দাঁত উন্মোচন করতে হবে। এরা মানুষের ইজ্জত নিয়ে খেলে, এরা রাস্তাঘাটের টোকাই।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সাংসদ কায়সার হাসনাত, যুগ্ম সম্পাদক মো. আশরাফুজ্জামান, প্রচার সম্পাদক মোস্তফা কামাল নিলু, বারদী ইউনিয়ন পরিষদেও চেয়ারম্যান লায়ন বাবুল, নোয়াগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান সামসুল আলম, আজকের দর্পণ পত্রিকার সোনারগাঁ প্রতিনিধিসহ আরও অনেকেই।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

সোনারগাঁয়ে হাসনাত পরিবারই আওয়ামী লীগকে যুগ যুগ ধরে বুকে ধারণ করে রেখেছে, মাসুম চেয়ারম্যান

আপলোড সময় : ০৬:৫৯:৩৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

জাতীয় দৈনিক আজকের দর্পণ পত্রিকার নবম বর্ষ থেকে দশম বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে সোনারগাঁও উপজেলার প্রতিনিধি হুমায়ুন কবিরের আয়োজনে সোনারগাঁ ষোলআনা সংগঠনের উদ্যোগে গত শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পিরোজপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি, সোনারগাঁয়ের গরীব দুঃখী মানুষের হৃদয়ের স্পন্দন , মানবতার ফেরিওয়ালা,আলহাজ্ব ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম বলেন, সোনারগাঁয়ে এই আওয়ামী লীগকে যুগ যুগ ধরে হাসনাত পরিবারই দুখে সুখে পাশে থেকে বুকে ধারণ করে শক্ত করে ধরে রেখেছেন। আজ আওয়ামী লীগের স্লোগান এই হাসনাত পরিবার থেকেই শুরু হয়। মিটিং মিছিল জনসভায় হাজার হাজার নেতাকর্মী নিয়ে যোগদান করেন এই হাসনাত পরিবারের উদ্যোগেই। হাসনাত পরিবার যদি সোনারগাঁয়ে আওয়ামীলীগকে জড়িয়ে না রাখত সোনারগাঁয়ে আওয়ামী লীগের অস্তিত্ব থাকত না। বড়ই দুঃখ ও আফসোসের সাথে বলতে হয়, আজ আওয়ামী লীগের সুসময়ের অনেক বড় বড় নেতা হয়ে নমিনেশনের জন্য জায়গায় জায়গায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের রিফ্লেট বিলি করছে। অথচ তাদেরকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ডাকে বা জনসভায় বা বিভিন্ন জাতীয় দিবসে তাদের খুঁজে পাওয়া যায় না। আজ যেখানেই জামাত-শিবির আওয়ামী লীগকে নিয়ে ষড়যন্ত্র করে বা রাজপথে আন্দোলন গড়ে তোলে তাদের প্রতিহতের জন্য এই সমস্ত রিফ্লেটবাহিনর নেতাকর্মী খুঁজে পাওয়া যায় না। প্রতিবাদের জন্য হাসনাত পরিবার রাজপথে লড়াকু সৈনিকের মত ঝাঁপিয়ে পড়তে হয়।

মীরজাফরের মত যারা আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত পরিবারকে নিয়ে ষড়যন্ত্রলিপ্ত হয়েছে তারাই নমিনেশনের জন্য জায়গায় জায়গায় তদবির করে চলছে। তাদের উদ্দেশ্যে করে বলতে চাই হাসনাত পরিবার তো অনেক উপরের কথা আপনারা আমার মত একজন আওয়ামী লীগের তৃণমূলের নেতা সাথে লড়ে আগে দেখেন পারেন কিনা। এরপর বুঝা যাবে আপনি কিভাবে হাসনাত পরিবারের আব্দুল্লাহ আল কায়সারের সাথে কিভাবে লড়বেন। তবে মনে রাখবেন সোনারগাঁয়ে যদি নৌকা আসে তাহলে আব্দুল্লাহ আল কায়সার এর হাত ধরেই নৌকা আসবে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা তিনি জানেন সোনারগাঁয়ে আওয়ামী লীগের কাঙ্গারি, আওয়ামী লীগের প্রকৃত প্রেমিক আওয়ামী লীগকে যুগ যুগ ধরে কে বুকে ধারণ করে রাজপথে পরিশ্রম করে যাচ্ছে, সে হল আব্দুল্লাহ আল কায়সার। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তিনি নিজে এই হাসনাত পরিবারের ভালো-মন্দ খবর নিয়ে থাকেন। তার হাত ধরেই ইনশাআল্লাহ আগামী জাতীয় নির্বাচনের নৌকা আসবে।

এ ছাড়াও তিনি আরো বলেন, সোনারগাঁয়ে আওয়ামী লীগ থেকে একমাত্র কায়সার হাসনাতই মনোয়ন পাওয়ার যোগ্যতা রাখেন। কোন কোন নেতা প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন লিফলেট করে প্রচার করছেন। আর নৌকার মনোনয়ন দাবি করছেন। সোনারগাঁয়ের রাজনীতিতে আপনার কি অবদান আছে, পারলে সেটা প্রচার করেন। আপনি করোনাকালে কোথায় ছিলেন? নেতাকর্মী ও সোনারগাঁবাসীর জন্য আপনি কি অবদান রেখেছেন। পারলে আপনার অবদান লিফলেট করে প্রচার করেন। কোন মাদ্রাসা, রাস্তা ও মানুষের কল্যাণে আপনারা টাকা খরচ করেছেন দেখাতে পারবেন? বলে মন্তব্য ও প্রশ্ন ছুড়ে মেরেছেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না আসলে, নৌকার চেয়ারম্যানরা মাঠে থাকতে পারবে না। আজকে ফেসবুক খুললেই দেখি আমাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হয়। এগুলো কারা করে? যারা আমার এলাকায় খুনি, পলিথিন বিক্রি করে খাইছে ও যাদের বাবা দাদার নাম নাই তারাই অপপ্রচার চালাচ্ছে। আমার কাছে প্রমাণ রয়েছে। ৭টা ফেইক আইডি খুলে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। যদি বাপের বেটা হস সামনা সামনি এসে কর। আড়ালে জারজ সন্তানের মতো এগুলো আমরা কেয়ার করি না। আমাদের বিরুদ্ধে যত লিখবেন রাজনীতি আরও পরিষ্কার হবে।

মাসুম বলেন, সামনে একটা মাস অনেক কঠিন সময় আসবে। যারা ফেইক আইডি খুলে অপপ্রচার চালাছে তাদের বিরুদ্ধে অতি শীঘ্রই আমরা সংবাদ সম্মেলন করবো। যারা কায়সার হাসনাতের দলের নেতাদের চরিত্র হনন করতে চায়, এদের বিষ দাঁত উন্মোচন করতে হবে। এরা মানুষের ইজ্জত নিয়ে খেলে, এরা রাস্তাঘাটের টোকাই।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সাংসদ কায়সার হাসনাত, যুগ্ম সম্পাদক মো. আশরাফুজ্জামান, প্রচার সম্পাদক মোস্তফা কামাল নিলু, বারদী ইউনিয়ন পরিষদেও চেয়ারম্যান লায়ন বাবুল, নোয়াগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান সামসুল আলম, আজকের দর্পণ পত্রিকার সোনারগাঁ প্রতিনিধিসহ আরও অনেকেই।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন