ঢাকা ১০:৩৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তিতাস গ্যাসের ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান

মোঃ সালে আহমেদ (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মোঃ সালে আহমেদ (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ১০:০২:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুলাই ২০২৪
  • / ২৮৯ বার পড়া হয়েছে

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন পিএলসির ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্ম-পরিকল্পনার আওতায় শুদ্ধাচার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়েছে।রোববার কোম্পানির প্রধান কার্যালয় কারওয়ান বাজারে এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কারপ্রাপ্তদের সঙ্গে উপস্থিত কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌ. মো. হারুনুর রশীদ মোল্লাহ। এ সময় কোম্পানির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি পিএলসি’র বিস্ময়কর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এমডি হারুনুর রশিদ মোল্লাহ তার যাদুস্পর্শী প্রতিভার ঝলকে কোম্পানিকে লোকসান কমিয়ে আনতে নানামুখী সহায়ক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। তার এই যুগোপযোগী পদক্ষেপের কারণে তিতাস গ্যাস পূর্বের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করে বর্তমানে একটি শক্ত ভিতের উপর দাঁড়িয়েছে। তিতাস গ্যাসের গ্রাহক সেবার মান বৃদ্ধি পেয়েছে বহুগুণ। তিতাস গ্যাসের অবৈধ গ্রাহকদের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হচ্ছে, বকেয়া আদায়ে নিয়মিত অভিযান পরিচালিত হচ্ছে, রাজস্ব আদায় ও মাত্রা অর্জনে নিরলস পরিশ্রম করেছে কর্মকর্তা কর্মচারীরা।

গেজেট অনুযায়ী শুদ্ধাচার পুরস্কার পাওয়ার ক্ষেত্রে সরকারি কর্মচারীকে উল্লিখিত সূচকের ১০০ নম্বরের মধ্যে অবশ্যই ৮০ নম্বর পেতে হবে। এটি না পেলে ওই কর্মচারী এ পুরস্কার পাওয়ার জন্য প্রাথমিকভাবে বিবেচিত হবেন না। আর বিবেচিত কর্মচারীদের মধ্যে সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়া কর্মচারী শুদ্ধাচার পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত হবেন।

প্রতি বছর সরকারের শুদ্ধাচার পুরস্কারপ্রাপ্ত কর্মচারীরা পুরস্কার হিসেবে একটি সার্টিফিকেট এবং এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ পাবেন।
উল্লেখ্য, কোম্পানি হতে গ্রেড-২ হতে গ্রেড-৯ ভুক্ত কর্মকর্তা, গ্রেড-১০ হতে গ্রেড-১৬ ভুক্ত কর্মকর্তা ও কর্মচারী এবং গ্রেড-১৭ হতে গ্রেড-২০ ভুক্ত কর্মচারী ক্যাটাগরিতে ২০২৩-২৪ অর্থবছরে শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান করা হয়।

এই শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রাপ্তির মধ্য দিয়ে তিতাস গ্যাসের কর্মকর্তা কর্মচারীরা নতুন উদ্যমে উৎসাহ নিয়ে কাজ করবেন বলে আশা করা যায়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

তিতাস গ্যাসের ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান

আপলোড সময় : ১০:০২:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ জুলাই ২০২৪

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিসন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন পিএলসির ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল কর্ম-পরিকল্পনার আওতায় শুদ্ধাচার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়েছে।রোববার কোম্পানির প্রধান কার্যালয় কারওয়ান বাজারে এই কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কারপ্রাপ্তদের সঙ্গে উপস্থিত কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌ. মো. হারুনুর রশীদ মোল্লাহ। এ সময় কোম্পানির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি পিএলসি’র বিস্ময়কর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এমডি হারুনুর রশিদ মোল্লাহ তার যাদুস্পর্শী প্রতিভার ঝলকে কোম্পানিকে লোকসান কমিয়ে আনতে নানামুখী সহায়ক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। তার এই যুগোপযোগী পদক্ষেপের কারণে তিতাস গ্যাস পূর্বের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করে বর্তমানে একটি শক্ত ভিতের উপর দাঁড়িয়েছে। তিতাস গ্যাসের গ্রাহক সেবার মান বৃদ্ধি পেয়েছে বহুগুণ। তিতাস গ্যাসের অবৈধ গ্রাহকদের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হচ্ছে, বকেয়া আদায়ে নিয়মিত অভিযান পরিচালিত হচ্ছে, রাজস্ব আদায় ও মাত্রা অর্জনে নিরলস পরিশ্রম করেছে কর্মকর্তা কর্মচারীরা।

গেজেট অনুযায়ী শুদ্ধাচার পুরস্কার পাওয়ার ক্ষেত্রে সরকারি কর্মচারীকে উল্লিখিত সূচকের ১০০ নম্বরের মধ্যে অবশ্যই ৮০ নম্বর পেতে হবে। এটি না পেলে ওই কর্মচারী এ পুরস্কার পাওয়ার জন্য প্রাথমিকভাবে বিবেচিত হবেন না। আর বিবেচিত কর্মচারীদের মধ্যে সর্বোচ্চ নম্বর পাওয়া কর্মচারী শুদ্ধাচার পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত হবেন।

প্রতি বছর সরকারের শুদ্ধাচার পুরস্কারপ্রাপ্ত কর্মচারীরা পুরস্কার হিসেবে একটি সার্টিফিকেট এবং এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ পাবেন।
উল্লেখ্য, কোম্পানি হতে গ্রেড-২ হতে গ্রেড-৯ ভুক্ত কর্মকর্তা, গ্রেড-১০ হতে গ্রেড-১৬ ভুক্ত কর্মকর্তা ও কর্মচারী এবং গ্রেড-১৭ হতে গ্রেড-২০ ভুক্ত কর্মচারী ক্যাটাগরিতে ২০২৩-২৪ অর্থবছরে শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রদান করা হয়।

এই শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রাপ্তির মধ্য দিয়ে তিতাস গ্যাসের কর্মকর্তা কর্মচারীরা নতুন উদ্যমে উৎসাহ নিয়ে কাজ করবেন বলে আশা করা যায়।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন