ঢাকা ০৩:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রুপগঞ্জে ছাত্রলীগের কমিটিতে রমরমা বানিজ্য, বির্তকিতরা গুরুত্বপূর্ণ পদে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপলোড সময় : ০৮:৪৭:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৩৫৮ বার পড়া হয়েছে

নারায়নগঞ্জের রুপগঞ্জের গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সদ্য ঘোষিত কমিটিকে ‘পকেট ও বিবাহিত কমিটি আখ্যায়িত করে সামাজিক যোগাযোগে উত্তাল অব্যাহত রেখেছেন পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ছাত্রলীগ নেতারা বলেন, ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে অছাত্র, মাদকাসক্ত বিবাহিত,এবং নিষ্ক্রিয়দের নিয়ে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে।এটি ষড়যন্ত্রমূলক পকেট কমিটি। এ ধরনের পকেট কমিটি দলের জন্য ক্ষতিকর। উপমহাদেশের সর্ববৃহৎ ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নিজ হাতে গড়া ছাত্র সংগঠন ,বঙ্গবন্ধু আদর্শে চলা ছাত্র সংগঠন ,ছাত্রলীগকে ধ্বংসের পায়তারা করতেছে কিছু লোক, বঙ্গবন্ধু আদর্শের ছাত্রলীগ কখনো অছাত্র ,বিবাহিত,গার্মেন্টস শ্রমিক ও ব্যবসায়ী দিয়ে কমিটি হতে পারে না।

উল্লেখ্য যে, ছাত্ররাজনীতিতে আসছেন অছাত্র, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও বিবাহিতরা। বাদ পড়ছেন ত্যাগী নেতাকর্মীরা।গত বছর রুপগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়।তবে এই উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে অর্থের বিনিময়ে অযোগ্য ও বিরোধী দল থেকে আসা নব্যদের ছাত্রলীগে টাকার বিনিময়ে পদ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

গত ২৪ সেপ্টেম্বর রুপগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের সভাপতি তানজির আহমেদ খান রিয়াজ ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদ ভূইয়া মাছুমের স্বাক্ষরিত নতুন কমিটি তে সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন বিবাহিত ও সন্তানের পিতা আল আমিন মিয়া। এ কমিটিতে চাঁদাবাজ,মাদকসেবি, অছাত্র ও বিবাহিতরাও স্থান পেয়েছেন বলে আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা জানিয়েছেন।

স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতারা জানিয়েছেন, নতুন কমিটির সভাপতির আল আমিন মিয়া বিবাহিত ও সন্তানের বাবা হয়ে সদ্য কমিটির সভাপতি কিভাবে হলো?

এছাড়া ও নতুন কমিটি তে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আকাশ ভূইয়া নিলয়কে ঘোষণা করা হয়।এরপরই বিক্ষোভে ফেটে পড়েন স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

নতুন কমিটির প্রতি ক্ষোভ জানিয়ে পদবঞ্চিত ছাত্রলীগ নেতারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লিখেছেন, এই ভুয়া কমিটি, পকেট কমিটি মানি না। ছাত্রলীগ আমার লালিত স্বপ্ন শৈশবের উচ্ছ্বাস, যৌবনের প্রথম প্রেম…এই কি প্রেমের পাওনা ছিল ছাত্রলীগ করে? দুয়েকজন নেতার ঘুঁটিতে নিমিষেই ভেঙ্গে গেল সব স্বপ্ন। প্রিয় বড়ভাই, বন্ধুরা, ছোটভাইরা অামাকে ক্ষমা করে দেবেন।

এ বিষয়ে গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আল আমিন মিয়া কে মুঠোফোনে কল করলে তিনি জানান,গত কয়েকদিন ধরে তার বিরুদ্ধে ফেসবুক সহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি মহল লেখালেখি করছে।বিবাহিত এবং সন্তানের পিতা পিতা হয়ে ছাত্রলীগের সভাপতি হলেন কীভাবে জানতে চাইলে তিনি সকল অভিযোগ অস্বীকার করেন।

জানা গেছে, গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি আল-আমিনের পিতার নাম জুলহাস মিয়া, আলামিনের এর বউয়ের নাম ঝর্ণা ও একটি মেয়ে আছে ঝর্নার পিতার নাম খোকন ঝর্নার। আলামিনের গ্রাম গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ড মধ্যপাড়া। তার বউয়ের বাড়ি ৫ং ওয়ার্ডের বড় বলাইখা গ্রাম।

রুপগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের সভাপতি তানজির আহমেদ রিয়াজের মুঠোফোনে কল করলে তাকে পাওয়া যায় নি।

রুপগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদ ভূইয়া মাছুম এর মুঠোফোনে কল করলে তিনি জানান,অছাত্র ও বিবাহিত দের কমিটি তে রাখার প্রশ্ন ই উঠে না।একটি মহল ছাত্রলীগের সুনাম নষ্ট করতে পিছনে লেগে রয়েছে। কমিটি দেয়ার সময় সবার বায়োডাটা ও পুনাঙ্গ তথ্য নিয়ে যোগ্য নেতাকে দেয়া হয়েছে। এসময় তিনি আরো ও বলেন,অর্থের বিনিময়ে কাউকে পদে রাখা হয় নি।আল আমিন নামের আরেক ব্যক্তির স্ত্রীর ভিডিও বার্তা নিয়ে একটি মহল অপপ্রচার করছে বলে জানান।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেনের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তাকে পাওয়া যায় নি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

রুপগঞ্জে ছাত্রলীগের কমিটিতে রমরমা বানিজ্য, বির্তকিতরা গুরুত্বপূর্ণ পদে

আপলোড সময় : ০৮:৪৭:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

নারায়নগঞ্জের রুপগঞ্জের গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সদ্য ঘোষিত কমিটিকে ‘পকেট ও বিবাহিত কমিটি আখ্যায়িত করে সামাজিক যোগাযোগে উত্তাল অব্যাহত রেখেছেন পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ছাত্রলীগ নেতারা বলেন, ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে অছাত্র, মাদকাসক্ত বিবাহিত,এবং নিষ্ক্রিয়দের নিয়ে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে।এটি ষড়যন্ত্রমূলক পকেট কমিটি। এ ধরনের পকেট কমিটি দলের জন্য ক্ষতিকর। উপমহাদেশের সর্ববৃহৎ ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নিজ হাতে গড়া ছাত্র সংগঠন ,বঙ্গবন্ধু আদর্শে চলা ছাত্র সংগঠন ,ছাত্রলীগকে ধ্বংসের পায়তারা করতেছে কিছু লোক, বঙ্গবন্ধু আদর্শের ছাত্রলীগ কখনো অছাত্র ,বিবাহিত,গার্মেন্টস শ্রমিক ও ব্যবসায়ী দিয়ে কমিটি হতে পারে না।

উল্লেখ্য যে, ছাত্ররাজনীতিতে আসছেন অছাত্র, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও বিবাহিতরা। বাদ পড়ছেন ত্যাগী নেতাকর্মীরা।গত বছর রুপগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়।তবে এই উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে অর্থের বিনিময়ে অযোগ্য ও বিরোধী দল থেকে আসা নব্যদের ছাত্রলীগে টাকার বিনিময়ে পদ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

গত ২৪ সেপ্টেম্বর রুপগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের সভাপতি তানজির আহমেদ খান রিয়াজ ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদ ভূইয়া মাছুমের স্বাক্ষরিত নতুন কমিটি তে সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন বিবাহিত ও সন্তানের পিতা আল আমিন মিয়া। এ কমিটিতে চাঁদাবাজ,মাদকসেবি, অছাত্র ও বিবাহিতরাও স্থান পেয়েছেন বলে আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা জানিয়েছেন।

স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতারা জানিয়েছেন, নতুন কমিটির সভাপতির আল আমিন মিয়া বিবাহিত ও সন্তানের বাবা হয়ে সদ্য কমিটির সভাপতি কিভাবে হলো?

এছাড়া ও নতুন কমিটি তে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আকাশ ভূইয়া নিলয়কে ঘোষণা করা হয়।এরপরই বিক্ষোভে ফেটে পড়েন স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

নতুন কমিটির প্রতি ক্ষোভ জানিয়ে পদবঞ্চিত ছাত্রলীগ নেতারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লিখেছেন, এই ভুয়া কমিটি, পকেট কমিটি মানি না। ছাত্রলীগ আমার লালিত স্বপ্ন শৈশবের উচ্ছ্বাস, যৌবনের প্রথম প্রেম…এই কি প্রেমের পাওনা ছিল ছাত্রলীগ করে? দুয়েকজন নেতার ঘুঁটিতে নিমিষেই ভেঙ্গে গেল সব স্বপ্ন। প্রিয় বড়ভাই, বন্ধুরা, ছোটভাইরা অামাকে ক্ষমা করে দেবেন।

এ বিষয়ে গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আল আমিন মিয়া কে মুঠোফোনে কল করলে তিনি জানান,গত কয়েকদিন ধরে তার বিরুদ্ধে ফেসবুক সহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি মহল লেখালেখি করছে।বিবাহিত এবং সন্তানের পিতা পিতা হয়ে ছাত্রলীগের সভাপতি হলেন কীভাবে জানতে চাইলে তিনি সকল অভিযোগ অস্বীকার করেন।

জানা গেছে, গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি আল-আমিনের পিতার নাম জুলহাস মিয়া, আলামিনের এর বউয়ের নাম ঝর্ণা ও একটি মেয়ে আছে ঝর্নার পিতার নাম খোকন ঝর্নার। আলামিনের গ্রাম গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ড মধ্যপাড়া। তার বউয়ের বাড়ি ৫ং ওয়ার্ডের বড় বলাইখা গ্রাম।

রুপগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের সভাপতি তানজির আহমেদ রিয়াজের মুঠোফোনে কল করলে তাকে পাওয়া যায় নি।

রুপগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদ ভূইয়া মাছুম এর মুঠোফোনে কল করলে তিনি জানান,অছাত্র ও বিবাহিত দের কমিটি তে রাখার প্রশ্ন ই উঠে না।একটি মহল ছাত্রলীগের সুনাম নষ্ট করতে পিছনে লেগে রয়েছে। কমিটি দেয়ার সময় সবার বায়োডাটা ও পুনাঙ্গ তথ্য নিয়ে যোগ্য নেতাকে দেয়া হয়েছে। এসময় তিনি আরো ও বলেন,অর্থের বিনিময়ে কাউকে পদে রাখা হয় নি।আল আমিন নামের আরেক ব্যক্তির স্ত্রীর ভিডিও বার্তা নিয়ে একটি মহল অপপ্রচার করছে বলে জানান।

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেনের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তাকে পাওয়া যায় নি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন