ঢাকা ০৩:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশে পর্যটন খাতে বিনিয়োগে গোল্ডস্যান্ডস গ্রুপ শীর্ষে

তন্ময় (নিজস্ব প্রতিবেদক)
তন্ময় (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ০৩:০৪:৩৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৪ অক্টোবর ২০২৩
  • / ৩৯৬ বার পড়া হয়েছে

পর্যটন শিল্পে বিশ্বে এক অপার সম্ভাবনা বাংলাদেশ। দেশের পর্যটন খাত দিন দিন অগ্রসর হচ্ছে অনন্য গতিতে। তবে দেশের পর্যটন খাতে বিগত দিনের তুলনায় বর্তমান সময়ে অপার সম্ভাবনা হাতছানি দিলেও নেই পর্যাপ্ত বিনিয়োগ। বিনিয়োগের মাধ্যমেই এই খাতকে আরো এগিয়ে নেওয়া সম্ভব। দেশের পর্যটন অঞ্চলে বাড়ছে পর্যটকদের উপস্থিতি। তবে উন্নতমানের হোটেল-মোটেলে সুবিধা না থাকায় অনেক সময় পর্যটকদের অনাগ্রহ তৈরি হয়। দেশের পর্যটন শিল্পকে আরো এগিয়ে নিতে এই শিল্পের উন্নয়নে মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করেছে পর্যটন শিল্পে দেশের জনপ্রিয় বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপ।

ইতিমধ্যে দেশী-বিদেশী পর্যটকদের স্বস্তি দিতে এবং নতুন নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে বেকারত্ব দূরীকরণে বিশেষ অবদান রাখার লক্ষ্য নিয়ে শীর্ষ হোটেল ডেভোলপার প্রতিষ্ঠান গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপের গোল্ডস্যান্ডস্ হোটেল এন্ড রিসোর্টস লিমিটেড কক্সবাজার ও কুয়াকাটায় পর্যটক ও পরিবেশ বান্ধব বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নিয়েছে। তৈরী করেছে আন্তর্জাতিক মানের বিলাসবহুল ৫ তাঁরকা হোটেল। যেখানে মালিকানা ক্রয় করে যে কেউ হতে পারেন ৫ তাঁরকা হোটেল এর গর্বিত অংশীদার। হোটেল স্যুট বা আংশিক মালিকানা ক্রয়েই পাওয়া যাবে সাব-কাবলা রেজিস্ট্রেশন। যেখান থেকে বছর জুড়ে পাওয়া যাবে নিশ্চিত মুনাফা ও হালাল আয়। এছাড়াও উপভোগ করতে পারবেন হোটেলের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা। হালাল আয় ও সুদমুক্ত ব্যবসার ক্ষেত্রে পর্যটনে বিনিয়োগ বেশ জনপ্রিয়।

এই শিল্পের ব্যবসা অধিক লাভবান হওয়ায় দিন দিন বাড়ছে বিনিয়োগের পরিমান। আর বিনিয়োগের জন্য দেশের সেরা ও জনপ্রিয় প্রতিষ্ঠান গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপ। গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপের আন্তর্জাতিক ৫ তাঁরকা হোটেল গুলোর আর্কিটেকচারিয়াল ডিজাইন করছে সিঙ্গাপুরিয়ান ওয়াল্ড ক্লাস আর্কিটেক্ট কোম্পানী Surbana Jurong । যারা আধুনিক আরবার ইনফ্রাস্ট্রকচার তৈরিতে বিশ্বসেরা। সম্পদের রাজা হোটেল, যা বাড়বে যেমন রিটার্ন ও তেমন। পর্যটন শিল্পে বিনিয়োগের মধ্য দিয়ে একদিকে যেমন ব্যক্তিগত উন্নতির পথ সুগম হতে পারে, অন্যদিকে তেমনি কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে অসংখ্য মানুষের জীবিকার ব্যবস্থা করা সম্ভব। কক্সবাজার ও কুয়াকাটায় পর্যটন শিল্পে হোটেল বিনিয়োগে সব থেকে বেশি আস্থা ও জনপ্রিয় গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপ এ প্রতিটি আন্তর্জাতিক হোটেল মালিকানা নিশ্চিত করা হবে সাব-কাবলা দলিলের মাধ্যমে। যা সারা জীবন বংশানুক্রমে মালিকানা নিশ্চিত করবে এবং উচ্চমূল্যে বিক্রয় ও হস্তান্তরযোগ্য হবে এবং আজীবন হালাল আয়ের নিশ্চয়তা দিবে। যেখানে বিনিয়োগ করে সুদমুক্ত জীবন গড়ুন। বর্তমানে পর্যটন শিল্পে হোটেল বিনিয়োগই সবচেয়ে নিরাপদ ও লাভজনক। সকল হোটেলের আর্কিটেকচারিয়াল ডিজাইন করছে সিঙ্গাপুরিয়ান বিশ্বসেরা আর্কিটেক্ট কোম্পানী Surbana Jurong|। এ বছর

রেল লাইন উদ্ভোবনে বাড়তি পর্যটক চাহিদা মেটাতে গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপের ৫ তাঁরকা মানের ৩ টি হোটেল প্রজেক্টের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। যেখানে হোটেল সি ভিউ স্যুটের ৬০০ থেকে ৯০০০ স্কয়ারফিট পর্যন্ত ক্রয় করা সম্ভব। কক্সবাজারে হবে সেরা ব্যবসা, তাই হোটেল বিনিয়োগে ইনভেস্টমেন্ট একবার রিটার্ন বার বার।

গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপের কর্পোরেট হেড অফিস (৪৭ নাসা হাইটস, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২)। স্যুট ক্রয় ও বুকিং দিতে আজই যোগাযোগ করুনঃ ০১৮৭৭৭-১৫৩৩৩।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

বাংলাদেশে পর্যটন খাতে বিনিয়োগে গোল্ডস্যান্ডস গ্রুপ শীর্ষে

আপলোড সময় : ০৩:০৪:৩৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৪ অক্টোবর ২০২৩

পর্যটন শিল্পে বিশ্বে এক অপার সম্ভাবনা বাংলাদেশ। দেশের পর্যটন খাত দিন দিন অগ্রসর হচ্ছে অনন্য গতিতে। তবে দেশের পর্যটন খাতে বিগত দিনের তুলনায় বর্তমান সময়ে অপার সম্ভাবনা হাতছানি দিলেও নেই পর্যাপ্ত বিনিয়োগ। বিনিয়োগের মাধ্যমেই এই খাতকে আরো এগিয়ে নেওয়া সম্ভব। দেশের পর্যটন অঞ্চলে বাড়ছে পর্যটকদের উপস্থিতি। তবে উন্নতমানের হোটেল-মোটেলে সুবিধা না থাকায় অনেক সময় পর্যটকদের অনাগ্রহ তৈরি হয়। দেশের পর্যটন শিল্পকে আরো এগিয়ে নিতে এই শিল্পের উন্নয়নে মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করেছে পর্যটন শিল্পে দেশের জনপ্রিয় বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপ।

ইতিমধ্যে দেশী-বিদেশী পর্যটকদের স্বস্তি দিতে এবং নতুন নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে বেকারত্ব দূরীকরণে বিশেষ অবদান রাখার লক্ষ্য নিয়ে শীর্ষ হোটেল ডেভোলপার প্রতিষ্ঠান গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপের গোল্ডস্যান্ডস্ হোটেল এন্ড রিসোর্টস লিমিটেড কক্সবাজার ও কুয়াকাটায় পর্যটক ও পরিবেশ বান্ধব বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নিয়েছে। তৈরী করেছে আন্তর্জাতিক মানের বিলাসবহুল ৫ তাঁরকা হোটেল। যেখানে মালিকানা ক্রয় করে যে কেউ হতে পারেন ৫ তাঁরকা হোটেল এর গর্বিত অংশীদার। হোটেল স্যুট বা আংশিক মালিকানা ক্রয়েই পাওয়া যাবে সাব-কাবলা রেজিস্ট্রেশন। যেখান থেকে বছর জুড়ে পাওয়া যাবে নিশ্চিত মুনাফা ও হালাল আয়। এছাড়াও উপভোগ করতে পারবেন হোটেলের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা। হালাল আয় ও সুদমুক্ত ব্যবসার ক্ষেত্রে পর্যটনে বিনিয়োগ বেশ জনপ্রিয়।

এই শিল্পের ব্যবসা অধিক লাভবান হওয়ায় দিন দিন বাড়ছে বিনিয়োগের পরিমান। আর বিনিয়োগের জন্য দেশের সেরা ও জনপ্রিয় প্রতিষ্ঠান গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপ। গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপের আন্তর্জাতিক ৫ তাঁরকা হোটেল গুলোর আর্কিটেকচারিয়াল ডিজাইন করছে সিঙ্গাপুরিয়ান ওয়াল্ড ক্লাস আর্কিটেক্ট কোম্পানী Surbana Jurong । যারা আধুনিক আরবার ইনফ্রাস্ট্রকচার তৈরিতে বিশ্বসেরা। সম্পদের রাজা হোটেল, যা বাড়বে যেমন রিটার্ন ও তেমন। পর্যটন শিল্পে বিনিয়োগের মধ্য দিয়ে একদিকে যেমন ব্যক্তিগত উন্নতির পথ সুগম হতে পারে, অন্যদিকে তেমনি কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে অসংখ্য মানুষের জীবিকার ব্যবস্থা করা সম্ভব। কক্সবাজার ও কুয়াকাটায় পর্যটন শিল্পে হোটেল বিনিয়োগে সব থেকে বেশি আস্থা ও জনপ্রিয় গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপ এ প্রতিটি আন্তর্জাতিক হোটেল মালিকানা নিশ্চিত করা হবে সাব-কাবলা দলিলের মাধ্যমে। যা সারা জীবন বংশানুক্রমে মালিকানা নিশ্চিত করবে এবং উচ্চমূল্যে বিক্রয় ও হস্তান্তরযোগ্য হবে এবং আজীবন হালাল আয়ের নিশ্চয়তা দিবে। যেখানে বিনিয়োগ করে সুদমুক্ত জীবন গড়ুন। বর্তমানে পর্যটন শিল্পে হোটেল বিনিয়োগই সবচেয়ে নিরাপদ ও লাভজনক। সকল হোটেলের আর্কিটেকচারিয়াল ডিজাইন করছে সিঙ্গাপুরিয়ান বিশ্বসেরা আর্কিটেক্ট কোম্পানী Surbana Jurong|। এ বছর

রেল লাইন উদ্ভোবনে বাড়তি পর্যটক চাহিদা মেটাতে গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপের ৫ তাঁরকা মানের ৩ টি হোটেল প্রজেক্টের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। যেখানে হোটেল সি ভিউ স্যুটের ৬০০ থেকে ৯০০০ স্কয়ারফিট পর্যন্ত ক্রয় করা সম্ভব। কক্সবাজারে হবে সেরা ব্যবসা, তাই হোটেল বিনিয়োগে ইনভেস্টমেন্ট একবার রিটার্ন বার বার।

গোল্ডস্যান্ডস্ গ্রুপের কর্পোরেট হেড অফিস (৪৭ নাসা হাইটস, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২)। স্যুট ক্রয় ও বুকিং দিতে আজই যোগাযোগ করুনঃ ০১৮৭৭৭-১৫৩৩৩।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন