ঢাকা ০৩:১২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সোনারগাঁয়ে ফুলকলি সুইটে কেকের প্যাকেটে মিলল ‘মরা টিকটিকি

  • আপলোড সময় : ০৩:৪১:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ নভেম্বর ২০২৩
  • / ৩১৭ বার পড়া হয়েছে

এবার দোকান থেকে কেনা কেকের প্যাকেটে মরা টিকটিকি!!! নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁ মোগরাপাড়া থানা রোড হাবিবপুর এলাকার চাঞ্চল্যকর ঘটনা।

বুধবার ১ লা নভেম্বর সকালে বন্ধুদের সাথে খাওয়ার জন্য ওপি নামের( ১৮) এক শিক্ষার্থী সোনারগাঁ শাখা ফুলকলি সুইটে প্রবেশ করন। পরে খাওয়া শেষ করে একটি কেক পার্সেলের অর্ডার দেন। সেখান থেকে প্রস্তান করে তার বন্ধুর জন্য নিয়ে যাওয়া পার্সেল টি দ্বিখন্ডিত করতেই বেরিয়ে আসে মরা টিকটিকি। এতে বিস্মিত হয়ে চিৎকার দিয়ে ওঠে তার বন্ধু। তার চিৎকার ে তার বন্ধুরা ও আশপাশের লোক জড়ো হলে বিষয়টি সবার চোখে পড়ে। একে একে সবার কাছে ছড়িয়ে পড়ে এ বিস্মিত ঘটনা। পরে লোকজনের মাধ্যমে সেই ফুলকলি ছুইটে তা নিয়ে গেলে তারা দুঃখ প্রকাশ করে ও পরবর্তীতে এমন কোন ঘটনা আবির্ভাব হবে না বলে প্রতিশ্রুতি দেয়।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী কলেজ শিক্ষার্থী অপি জানান, তিনি সোনারগাঁও ডিগ্রী কলেজের শিক্ষার্থী। তাঁর অভিযোগ,কেকের প্যাকেট খুলতেই বেরিয়ে আসে মরা টিকটিকি। তিনি মোবাইলের মাধ্যমে ভোক্তা অধিকার আইনে বিষয়টি জানান। এ ব্যাপারে তাকে নারায়ণগঞ্জ ভুক্ত অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেওয়ার কথা বলেন।

এ বিষয়ে ফুলকলি ম্যানেজার সাথে কথা বললে তিনি বিষয়টি স্বীকার করেন ও টাকার বিনিময়ে সমাধান হযয়েছে বলে সাংবাদিকদের সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়েন। তিনি সাংবাদিকদের সাথে অসাধু আচরণ করেন। স্থানীয় প্রভাবশালী এক ব্যক্তির নাম ভাঙ্গিয়ে তিনি সাংবাদিকের সাথে বল প্রয়োগ করে কথা বলেন। সাংবাদিকদের এ বিষয়ে মাথা না ঘামানোর জন্য তিনি অকট্য ভাষায় গালমন্দ করেন। ফুলকলির ম্যানেজার ওই ক্ষমতাশীল ব্যক্তি বিষয়টি সমাধা করছে বলে বারবার সাংবাদিকদের এ বিষয়ে কথা বলতে নিষেধ করেন।

এ বিষয়ে ওই ভবনের মালিক শামীম মিয়ার সাথে কথা হলে তিনি ফুলকলির ম্যানেজারের ব্যবহারে দুঃখ প্রকাশ করে তার ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

সোনারগাঁয়ে ফুলকলি সুইটে কেকের প্যাকেটে মিলল ‘মরা টিকটিকি

আপলোড সময় : ০৩:৪১:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ নভেম্বর ২০২৩

এবার দোকান থেকে কেনা কেকের প্যাকেটে মরা টিকটিকি!!! নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁ মোগরাপাড়া থানা রোড হাবিবপুর এলাকার চাঞ্চল্যকর ঘটনা।

বুধবার ১ লা নভেম্বর সকালে বন্ধুদের সাথে খাওয়ার জন্য ওপি নামের( ১৮) এক শিক্ষার্থী সোনারগাঁ শাখা ফুলকলি সুইটে প্রবেশ করন। পরে খাওয়া শেষ করে একটি কেক পার্সেলের অর্ডার দেন। সেখান থেকে প্রস্তান করে তার বন্ধুর জন্য নিয়ে যাওয়া পার্সেল টি দ্বিখন্ডিত করতেই বেরিয়ে আসে মরা টিকটিকি। এতে বিস্মিত হয়ে চিৎকার দিয়ে ওঠে তার বন্ধু। তার চিৎকার ে তার বন্ধুরা ও আশপাশের লোক জড়ো হলে বিষয়টি সবার চোখে পড়ে। একে একে সবার কাছে ছড়িয়ে পড়ে এ বিস্মিত ঘটনা। পরে লোকজনের মাধ্যমে সেই ফুলকলি ছুইটে তা নিয়ে গেলে তারা দুঃখ প্রকাশ করে ও পরবর্তীতে এমন কোন ঘটনা আবির্ভাব হবে না বলে প্রতিশ্রুতি দেয়।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী কলেজ শিক্ষার্থী অপি জানান, তিনি সোনারগাঁও ডিগ্রী কলেজের শিক্ষার্থী। তাঁর অভিযোগ,কেকের প্যাকেট খুলতেই বেরিয়ে আসে মরা টিকটিকি। তিনি মোবাইলের মাধ্যমে ভোক্তা অধিকার আইনে বিষয়টি জানান। এ ব্যাপারে তাকে নারায়ণগঞ্জ ভুক্ত অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেওয়ার কথা বলেন।

এ বিষয়ে ফুলকলি ম্যানেজার সাথে কথা বললে তিনি বিষয়টি স্বীকার করেন ও টাকার বিনিময়ে সমাধান হযয়েছে বলে সাংবাদিকদের সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়েন। তিনি সাংবাদিকদের সাথে অসাধু আচরণ করেন। স্থানীয় প্রভাবশালী এক ব্যক্তির নাম ভাঙ্গিয়ে তিনি সাংবাদিকের সাথে বল প্রয়োগ করে কথা বলেন। সাংবাদিকদের এ বিষয়ে মাথা না ঘামানোর জন্য তিনি অকট্য ভাষায় গালমন্দ করেন। ফুলকলির ম্যানেজার ওই ক্ষমতাশীল ব্যক্তি বিষয়টি সমাধা করছে বলে বারবার সাংবাদিকদের এ বিষয়ে কথা বলতে নিষেধ করেন।

এ বিষয়ে ওই ভবনের মালিক শামীম মিয়ার সাথে কথা হলে তিনি ফুলকলির ম্যানেজারের ব্যবহারে দুঃখ প্রকাশ করে তার ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন