ঢাকা ০৯:৫৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাশকতার মামলায় জামায়াতের আমির-সেক্রেটারিসহ ৯৬ জনের বিচার শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপলোড সময় : ০৮:৩৫:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০২৩
  • / ৩৩০ বার পড়া হয়েছে

রাজধানীর মতিঝিল থানায় করা নাশকতার মামলায় জামায়াতে ইসলামীর আমির ডা. শফিকুর রহমান ও সেক্রেটারি গোলাম পরওয়ারসহ দলটির ৯৬ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। এর মধ্য দিয়ে ১১ বছর আগে করা মামলাটির আনুষ্ঠানিক বিচারকাজ শুরু হলো।

বুধবার (২৩ আগস্ট) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম আসামিদের অব্যাহতির আবেদন খারিজ করে এই আদেশ দেন।

সংশ্লিষ্ট আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এপিপি হেমায়েত উদ্দিন খান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

২০১২ সালে রাজধানীর মতিঝিল থানায় নাশকতার অভিযোগে মামলাটি করা হয়েছিল। ওই বছরের ৫ নভেম্বর জামায়াত-শিবিরের দুই থেকে তিন শ নেতাকর্মী বেআইনিভাবে দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি ও আটক শীর্ষ নেতাদের মুক্তির দাবিতে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর করে। জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টির জন্য তারা এমন কাজ করেন। সেদিন দুটি মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগসহ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেন তারা। এ ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বাদী হয়ে মতিঝিল থানায় নাশকতার মামলা করেন।

অভিযোগের সত্যতা না পাওয়ায় ২৭ জনকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। তদন্ত শেষে মোট ৯৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) আউয়াল হোসেন। আসামিদের মধ্যে আব্দুর জব্বার নামে একজন মারা যান।

সেই মামলায় জামায়াতের আমির ডা. শফিকুর রহমানসহ দলটির ৯৬ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

নাশকতার মামলায় জামায়াতের আমির-সেক্রেটারিসহ ৯৬ জনের বিচার শুরু

আপলোড সময় : ০৮:৩৫:৪৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০২৩

রাজধানীর মতিঝিল থানায় করা নাশকতার মামলায় জামায়াতে ইসলামীর আমির ডা. শফিকুর রহমান ও সেক্রেটারি গোলাম পরওয়ারসহ দলটির ৯৬ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। এর মধ্য দিয়ে ১১ বছর আগে করা মামলাটির আনুষ্ঠানিক বিচারকাজ শুরু হলো।

বুধবার (২৩ আগস্ট) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম আসামিদের অব্যাহতির আবেদন খারিজ করে এই আদেশ দেন।

সংশ্লিষ্ট আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এপিপি হেমায়েত উদ্দিন খান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

২০১২ সালে রাজধানীর মতিঝিল থানায় নাশকতার অভিযোগে মামলাটি করা হয়েছিল। ওই বছরের ৫ নভেম্বর জামায়াত-শিবিরের দুই থেকে তিন শ নেতাকর্মী বেআইনিভাবে দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি ও আটক শীর্ষ নেতাদের মুক্তির দাবিতে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর করে। জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টির জন্য তারা এমন কাজ করেন। সেদিন দুটি মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগসহ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেন তারা। এ ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বাদী হয়ে মতিঝিল থানায় নাশকতার মামলা করেন।

অভিযোগের সত্যতা না পাওয়ায় ২৭ জনকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। তদন্ত শেষে মোট ৯৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) আউয়াল হোসেন। আসামিদের মধ্যে আব্দুর জব্বার নামে একজন মারা যান।

সেই মামলায় জামায়াতের আমির ডা. শফিকুর রহমানসহ দলটির ৯৬ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন