ঢাকা ১১:৪৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁ থেকে নৌকার মনোনয়ন পেলেন আব্দুল্লাহ আল কায়সার

  • আপলোড সময় : ০৭:৫৮:৫৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২৩
  • / ৩৩০ বার পড়া হয়েছে

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন পেয়েছেন সাবেক সাংসদ ও সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল কায়সার।

গতকাল রোববার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে দলীয় প্রার্থী হিসেবে আবদুল্লাহ আল কায়সারের নাম ঘোষনা করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। নাম ঘোষনার পর পুরো সোনারগাঁ জুড়ে আনন্দের জোয়ার বইছে।
জানা যায়, ২০০৮ সালে নৌকা প্রতীক পেয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন আবদুল্ল্হা আল কায়সার। পরবর্তীতে ২০১৪ সালে তার আপন চাচা সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান প্রয়াত মোশারফ হোসেনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। আওয়ামীলীগ মনোনয়ন দেওয়ার তিনদিন পর তাকে মনোনয়ন প্রত্যাহারের নির্দেশ দেন। তিনি মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিলে জাতীয় পার্টিকে এ আসনটি ছেড়ে দেওয়া হয়। ফলে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় এ আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা। ২০১৮ সালেও দ্বিতীয় দফাও খোকাই নির্বাচিত হন। দীর্ঘ ১০ বছর আসনে নৌকা প্রতীক না থাকায় নেতাকর্মীরা অসহায় হয়ে পড়েন। গত ১০ বছর ধরে নেতাকর্মীরা এ আসনে দলীয় প্রতীক নৌকা দাবি করে আসছেন। দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে আবদুল্লাহ আল কায়সারকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়।
সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রকৌশলী মাসুদুর রহমান মাসুম বলেন, আমাদের দলে কোন কোন্দল নেই। প্রতিযোগিতা ছিল। সেই প্রতিযোগিতায় সাবেক সাংসদ নৌকা প্রতীক পেয়েছেন। সকল নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করা হবে।
নৌকা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থী সাবেক সাংসদ আবদুল্লাহ আল কায়সার বলেন, ২০০৮ সালে তিনি আওয়ামীলীগের টিকিটে বিএনপির হেভিয়েট প্রার্থী অধ্যাপক রেজাউল করিমকে পরাজিত করে নির্বাচিত হয়েছেন। এ মনোনয়ন তৃণমূল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী ও সোনারগাঁবাসীর জন্য প্রাথমিক বিজয়। সোনারগাঁবাসীর দীর্ঘ ১০ বছরের অপেক্ষা শেষ হয়েছে। সকল নেতাকর্মীকে প্রাধান্য দিয়ে নৌকা প্রতীক বিজয়ী করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এ আসন উপহার দেওয়া হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁ থেকে নৌকার মনোনয়ন পেলেন আব্দুল্লাহ আল কায়সার

আপলোড সময় : ০৭:৫৮:৫৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২৩

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন পেয়েছেন সাবেক সাংসদ ও সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল কায়সার।

গতকাল রোববার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে দলীয় প্রার্থী হিসেবে আবদুল্লাহ আল কায়সারের নাম ঘোষনা করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। নাম ঘোষনার পর পুরো সোনারগাঁ জুড়ে আনন্দের জোয়ার বইছে।
জানা যায়, ২০০৮ সালে নৌকা প্রতীক পেয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন আবদুল্ল্হা আল কায়সার। পরবর্তীতে ২০১৪ সালে তার আপন চাচা সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান প্রয়াত মোশারফ হোসেনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। আওয়ামীলীগ মনোনয়ন দেওয়ার তিনদিন পর তাকে মনোনয়ন প্রত্যাহারের নির্দেশ দেন। তিনি মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিলে জাতীয় পার্টিকে এ আসনটি ছেড়ে দেওয়া হয়। ফলে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় এ আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা। ২০১৮ সালেও দ্বিতীয় দফাও খোকাই নির্বাচিত হন। দীর্ঘ ১০ বছর আসনে নৌকা প্রতীক না থাকায় নেতাকর্মীরা অসহায় হয়ে পড়েন। গত ১০ বছর ধরে নেতাকর্মীরা এ আসনে দলীয় প্রতীক নৌকা দাবি করে আসছেন। দীর্ঘ অপেক্ষার পর অবশেষে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে আবদুল্লাহ আল কায়সারকে নৌকা প্রতীক দেওয়া হয়।
সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রকৌশলী মাসুদুর রহমান মাসুম বলেন, আমাদের দলে কোন কোন্দল নেই। প্রতিযোগিতা ছিল। সেই প্রতিযোগিতায় সাবেক সাংসদ নৌকা প্রতীক পেয়েছেন। সকল নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করা হবে।
নৌকা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থী সাবেক সাংসদ আবদুল্লাহ আল কায়সার বলেন, ২০০৮ সালে তিনি আওয়ামীলীগের টিকিটে বিএনপির হেভিয়েট প্রার্থী অধ্যাপক রেজাউল করিমকে পরাজিত করে নির্বাচিত হয়েছেন। এ মনোনয়ন তৃণমূল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী ও সোনারগাঁবাসীর জন্য প্রাথমিক বিজয়। সোনারগাঁবাসীর দীর্ঘ ১০ বছরের অপেক্ষা শেষ হয়েছে। সকল নেতাকর্মীকে প্রাধান্য দিয়ে নৌকা প্রতীক বিজয়ী করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এ আসন উপহার দেওয়া হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন