ঢাকা ০৯:৪৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিদ্ধিরগঞ্জে কিশোরগ্যাং’র হামলায় ভাংচুর ও লুট : দুই নারীসহ আহত ৫

মুহাম্মদ আলী (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মুহাম্মদ আলী (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ১২:৪৭:২৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ২৫১ বার পড়া হয়েছে

সিদ্ধিরগঞ্জে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে কিশোরগ্যাং লিডার আশিক ও তার বাহীনির সদস্যরা একটি বসত বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে নগদ টাকা, মোবাইল ও স্বর্নালংকার লুটপাট করেছে। এতে দুই নারীসহ অন্তত পাঁচজন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- মনির হোসেন, রিনা বেগম, আবির, বাবুল, সায়মা। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়। গতকাল রোববার দুপুরে মিজমিজি পাইনাদী মধ্যপাড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ ৩শ’ শয্যা খানপুর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন/ভর্তি রয়েছেন। খবর পেয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক মশিউর রহমান নয়ন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা শেষে এ ঘটনায় আহত মনিরের স্ত্রী রীনা সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগসূত্র ও আহত রীনা জানান, তাদের প্রতিপক্ষ সেলিম কিশোরগ্যাং লিডার আশিককে ভাড়া করে নিয়ে এসে পরিকল্পিতভাবে এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। সেলিমদের সাথে একটি জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলছিলো। ওই মামলায় তাদের পক্ষে রায় পাওয়ায় সে এ হামলার ঘটনা ঘটিয়ে তাদের ঘরবাড়ি ছাড়া করতে চেয়েছে।
তিনি জানান, গতকাল রোববার দুপুরের দিকে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত কিশোরগ্যাং লিডার আশিক ও তার বাহীনির সদস্য করিম বাদশা, জনি, মামুন, মানিক, সেলিম, রায়হান, আকাশসহ ৫/৬ জন এ হামলা চালায়। এসময় তারা ঘরের ভেতরে আসবাবপত্র ভাংচুর করে এবং স্বর্ণের গয়না ১৪ আনা, নগদ ২’লাখ টাকা ও একটি মোবাইল নিয়ে যায়।
এ বিষয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়া সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মশিউর রহমান নয়ন বলেন, এ ঘটনায় আমি একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

সিদ্ধিরগঞ্জে কিশোরগ্যাং’র হামলায় ভাংচুর ও লুট : দুই নারীসহ আহত ৫

আপলোড সময় : ১২:৪৭:২৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩

সিদ্ধিরগঞ্জে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে কিশোরগ্যাং লিডার আশিক ও তার বাহীনির সদস্যরা একটি বসত বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে নগদ টাকা, মোবাইল ও স্বর্নালংকার লুটপাট করেছে। এতে দুই নারীসহ অন্তত পাঁচজন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- মনির হোসেন, রিনা বেগম, আবির, বাবুল, সায়মা। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়। গতকাল রোববার দুপুরে মিজমিজি পাইনাদী মধ্যপাড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ ৩শ’ শয্যা খানপুর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন/ভর্তি রয়েছেন। খবর পেয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক মশিউর রহমান নয়ন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা শেষে এ ঘটনায় আহত মনিরের স্ত্রী রীনা সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগসূত্র ও আহত রীনা জানান, তাদের প্রতিপক্ষ সেলিম কিশোরগ্যাং লিডার আশিককে ভাড়া করে নিয়ে এসে পরিকল্পিতভাবে এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। সেলিমদের সাথে একটি জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলছিলো। ওই মামলায় তাদের পক্ষে রায় পাওয়ায় সে এ হামলার ঘটনা ঘটিয়ে তাদের ঘরবাড়ি ছাড়া করতে চেয়েছে।
তিনি জানান, গতকাল রোববার দুপুরের দিকে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত কিশোরগ্যাং লিডার আশিক ও তার বাহীনির সদস্য করিম বাদশা, জনি, মামুন, মানিক, সেলিম, রায়হান, আকাশসহ ৫/৬ জন এ হামলা চালায়। এসময় তারা ঘরের ভেতরে আসবাবপত্র ভাংচুর করে এবং স্বর্ণের গয়না ১৪ আনা, নগদ ২’লাখ টাকা ও একটি মোবাইল নিয়ে যায়।
এ বিষয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়া সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মশিউর রহমান নয়ন বলেন, এ ঘটনায় আমি একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন