ঢাকা ০৮:২০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আন্তর্জাতিক জুরি বোর্ডে রাজীব মণি দাস

তন্ময় (নিজস্ব প্রতিবেদক)
তন্ময় (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ০৯:২২:২৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ২৭৫ বার পড়া হয়েছে

কথাসাহিত্যিক, নাট্যকার, গীতিকার রাজীব মণি দাস বাভাসি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০২২-২০২৩ এর প্রধান বিচারক হিসেবে কাজ শুরু করেছেন। এরই মধ্যে চলচ্চিত্র যাচাই-বাছাইয়ের কাজ চলছে বলে জানান তিনি। বাংলাদেশ-ভারত-সিংগাপুর (বাভাসি) ত্রিদেশীয় উদ্যোগে আয়োজিত চলচ্চিত্র উৎসব দেশ ও দেশের বাহির থেকে এ পর্যন্ত ১২০টি চলচ্চিত্র জমা পড়েছে। জুরি বোর্ডের প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে ১২০ থেকে ৫০টি বাছাই করা হয়েছে দ্বিতীয় রাউন্ডের জন্য। এরপর দ্বিতীয় রাউন্ডের ৫০টি চলচ্চিত্র থেকে ১০টি চলচ্চিত্র বাছাই করা হবে ফাইনাল রাউন্ডের জন্য।

রাজীব মণি দাস বলেন, আন্তর্জাতিক বাভাসি চলচ্চিত্র উৎসব ২০২২-২০২৩ সবগুলো রাউন্ডেই প্রধান বিচারক হিসেবে কাজ করার সুযোগ পাওয়াটা আমার জন্য অনেক সম্মানের। একজন লেখক হিসাবে বিষয়টি আমার কাছে গর্বেরও বটে। বাভাসি চলচ্চিত্র উৎসব থেকে শ্রেষ্ট চিত্রনাট্যকার, নির্মাতা, শিল্পী, চিত্রগ্রাহক, রূপসজ্জা, শিল্প নির্দেশক, সম্পাদনা ও আবহ-সংগীতের ওপর মেধা যাচাই-বাছাই করে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান নির্ধারণ করা হবে। কর্মের যোগ্যতা অনুযায়ি নতুনদের প্রতিভা বিকাশের সেই সুযোগটি প্রতিবছর করে দিচ্ছে বাভাসি। এই প্রত্যয়ে আন্তর্জাতিক বাভাসি চলচ্চিত্র উৎস প্রতিবছর আয়োজন করে আসছে। ৬ বছর পেরিয়ে ৭ বছরে পর্দাপণ করলো বাভাসি, সত্যি একটি মাইলফলক ও অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো বাভাসি। এখান থেকে পূর্বে যারা বিজয়ী হয়ে বের হয়েছে তারা বর্তমানে মিডিয়াতে ভালো পারফর্ম করছে এবং তাদের নিজ মেধায় এগিয়ে যাচ্ছে।

রাজীব মণি দাস আরও বলেন, ‘বিচারক হিসেবে আমার ওপর কর্তৃপক্ষ আস্থা রাখার জন্য বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি এবং দায়িত্ব পেয়ে আমি খুবই রোমাঞ্চিত। পূর্বের বিচারকের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ভালো কিছু করতে পারবো বলে মনে করি।’

উল্লেখ্য যে, রাজীব মণি দাস এর আগেও ‘মিস্টার এন্ড মিস গ্ল্যামার লুকস’ রিয়েলিটি শো’র প্রধান বিচারকের দায়িত্ব পালন করেছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক জুরি বোর্ডে রাজীব মণি দাস

আপলোড সময় : ০৯:২২:২৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩

কথাসাহিত্যিক, নাট্যকার, গীতিকার রাজীব মণি দাস বাভাসি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০২২-২০২৩ এর প্রধান বিচারক হিসেবে কাজ শুরু করেছেন। এরই মধ্যে চলচ্চিত্র যাচাই-বাছাইয়ের কাজ চলছে বলে জানান তিনি। বাংলাদেশ-ভারত-সিংগাপুর (বাভাসি) ত্রিদেশীয় উদ্যোগে আয়োজিত চলচ্চিত্র উৎসব দেশ ও দেশের বাহির থেকে এ পর্যন্ত ১২০টি চলচ্চিত্র জমা পড়েছে। জুরি বোর্ডের প্রাথমিক পর্যবেক্ষণে ১২০ থেকে ৫০টি বাছাই করা হয়েছে দ্বিতীয় রাউন্ডের জন্য। এরপর দ্বিতীয় রাউন্ডের ৫০টি চলচ্চিত্র থেকে ১০টি চলচ্চিত্র বাছাই করা হবে ফাইনাল রাউন্ডের জন্য।

রাজীব মণি দাস বলেন, আন্তর্জাতিক বাভাসি চলচ্চিত্র উৎসব ২০২২-২০২৩ সবগুলো রাউন্ডেই প্রধান বিচারক হিসেবে কাজ করার সুযোগ পাওয়াটা আমার জন্য অনেক সম্মানের। একজন লেখক হিসাবে বিষয়টি আমার কাছে গর্বেরও বটে। বাভাসি চলচ্চিত্র উৎসব থেকে শ্রেষ্ট চিত্রনাট্যকার, নির্মাতা, শিল্পী, চিত্রগ্রাহক, রূপসজ্জা, শিল্প নির্দেশক, সম্পাদনা ও আবহ-সংগীতের ওপর মেধা যাচাই-বাছাই করে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান নির্ধারণ করা হবে। কর্মের যোগ্যতা অনুযায়ি নতুনদের প্রতিভা বিকাশের সেই সুযোগটি প্রতিবছর করে দিচ্ছে বাভাসি। এই প্রত্যয়ে আন্তর্জাতিক বাভাসি চলচ্চিত্র উৎস প্রতিবছর আয়োজন করে আসছে। ৬ বছর পেরিয়ে ৭ বছরে পর্দাপণ করলো বাভাসি, সত্যি একটি মাইলফলক ও অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো বাভাসি। এখান থেকে পূর্বে যারা বিজয়ী হয়ে বের হয়েছে তারা বর্তমানে মিডিয়াতে ভালো পারফর্ম করছে এবং তাদের নিজ মেধায় এগিয়ে যাচ্ছে।

রাজীব মণি দাস আরও বলেন, ‘বিচারক হিসেবে আমার ওপর কর্তৃপক্ষ আস্থা রাখার জন্য বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি এবং দায়িত্ব পেয়ে আমি খুবই রোমাঞ্চিত। পূর্বের বিচারকের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ভালো কিছু করতে পারবো বলে মনে করি।’

উল্লেখ্য যে, রাজীব মণি দাস এর আগেও ‘মিস্টার এন্ড মিস গ্ল্যামার লুকস’ রিয়েলিটি শো’র প্রধান বিচারকের দায়িত্ব পালন করেছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন