ঢাকা ১০:২১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এটা আমাদের সরকারের ব্যর্থতা – শামীম ওসমান

ইসমাইল হোসেন মিলন (সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি)
ইসমাইল হোসেন মিলন (সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি)
  • আপলোড সময় : ০৭:৩৪:৪৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৩০২ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জ -৪ আসনের সংসদ সদস্য একে এম শামীম ওসমান বলেছেন, একটা সময় ভাবতাম বিএনপি একটা দল। আমি এখন ওটাকে দল ভাবি না। আমাদের লজ্জার ব্যাপার’ পৃথিবীতে একমাত্র দেশ বাংলাদেশ যেখানে তারা স্বাধীনতার বিপক্ষে সরাসরি ভূমিকা রেখেছে বিএনপি এবং জামায়াত। যারা আমাদের মা-বোনের সম্ভ্রম পাকিস্তানি বাহিনীদের হাতে তুলে দিয়েছে। কোথায় মুক্তিযুদ্ধা আছে কোথায় সুন্দরী মেয়ে আছে তাদের খোঁজ নিয়েছে তাঁরা। তাঁরা এখনো বাংলাদেশে রাজনীতি করে। আমার কাছে মনে হয় ত্রিশ লক্ষ শহীদের রক্ত এবং মা-বোনদের সম্ভ্রম আজ লজ্জিত তাই আমি নিজেও লজ্জিত। বিএনপিকে একটি সময় আমি রাজনৈতিক দল ভাবতাম কিন্তু ২১’শে আগস্ট গ্রেনেড হামলার পরে এবং বিশেষ করে গত তের ও চৌদ্দ সালে যে দৃশ্য দেখেছি তিন হাজার ৬২৬ জন লোককে আগুন দিয়েছে। পাঁচশত লোককে পুড়িয়ে মেরেছে। ২৯ জন পুলিশ সদস্যকে দিনে দুপুরে হত্যা করেছে। ৭০ টি ট্রেনে আগুন দিয়েছে ১৯ টি লঞ্চ পুড়িয়েছে। ৪ হাজার স্কুল পুড়িয়েছে। স্কুল কি অপরাধ করেছে আমি তা জানি না। আমি মনে করছি এটা আমাদের সরকারের ব্যর্থতা। আমার মনে হয় তাৎক্ষণিকভাবে সরকার যদি ব্যবস্থা নিতো তাহলে বাংলাদেশের ইতিহাসে এই নির্মম দৃশ্য গতকাল আমাকে দেখতে হতো না।
বুধবার (২০ ডিসেম্বর) বিকেলে নাসিক ৬ নং ওয়ার্ডে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।
শামীম ওসমান বলেন, ঐটা দেখার পর আমি মানসিকভাবে সুস্থ না। যারা ট্রেনে আগুন দিয়ে স্কুল ছাত্র ও তার মা’কে পুড়িয়ে হত্যা করে তাদের কি দল বলবো? তাদের মানুষ বলবো কিনা সেটাই তো বড় প্রশ্ন’। এরই মধ্যে প্রায় ৮’শ থেকে ৯’শ গাড়িতে আগুন দিয়েছে। গতকাল আমি দেখলাম আমার এলাকাতে ধ্বংসাত্মক কার্যক্রম চালানো হলো। ১৩ থেকে ১৪ টা পয়েন্টে মশাল মিছিল করা হলো। তারা সব সন্ত্রাসী এবং তারা সকলেই চিহ্নিত আসামী। জনগণ যদি অর্ডার দেয় ওদের প্রতিরোধ করতে আমাদের পাঁচ মিনিট সময় লাগবে না। রাজনীতিকে আমি ইবাদত হিসেবে নিয়েছি। রাজনীতিকে আমি ব্যবসা হিসেবে নেইনি। রাজনীতি করতে চাই আল্লাহ’কে সন্তুষ্ট করার জন্য। এটা আমার নেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে শিখিয়েছেন। কারণ আমি জানি কালকে চলে যাবো এ দুনিয়া থেকে। এ দৃশ্য দেখার পরে নির্বাচন আমার মাথায় খুব কম আছে। সুস্থ হতে পারিনি এখনো” তখন আমার নাতিটা চার বছর বয়স আমার কোলে ছিল। সেটা এখনো পুরো দেখিনি। মানুষকে বলবো দয়া করে জেগে ওঠেন। এই নরপশুদের বিরুদ্ধে জেগে ওঠেন। তাদেরকে স্টপ করেন। তবে নির্বাচনে খেলা হবে কিনা সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে শামীম ওসমান বলেন, খেলা হবে তবে পরিচ্ছন্ন খেলা। হায়নার দল তো আসেনি নির্বাচনে যারা এগুলি করেছে। নির্বাচন তো একটা খেলাই’ খেলা মানেই তো প্রতিযোগিতা। তবে খেলাটা সুষ্ঠু হবে এবং সুন্দর হবে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক হাজী ইয়াসিন মিয়া, নাসিক ৬ নং ওয়ার্ডের কমিউনিটি পুলিশিং এর উপদেষ্টা মো: রওশন আলী, সভাপতি শেখ দেলোয়ার হোসেন, থানা তাঁতী লীগের আহবায়ক মোঃ লিটন আহম্মেদ, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা ছাত্র লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য মানিক সরকার প্রমুখ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

এটা আমাদের সরকারের ব্যর্থতা – শামীম ওসমান

আপলোড সময় : ০৭:৩৪:৪৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২০ ডিসেম্বর ২০২৩

নারায়ণগঞ্জ -৪ আসনের সংসদ সদস্য একে এম শামীম ওসমান বলেছেন, একটা সময় ভাবতাম বিএনপি একটা দল। আমি এখন ওটাকে দল ভাবি না। আমাদের লজ্জার ব্যাপার’ পৃথিবীতে একমাত্র দেশ বাংলাদেশ যেখানে তারা স্বাধীনতার বিপক্ষে সরাসরি ভূমিকা রেখেছে বিএনপি এবং জামায়াত। যারা আমাদের মা-বোনের সম্ভ্রম পাকিস্তানি বাহিনীদের হাতে তুলে দিয়েছে। কোথায় মুক্তিযুদ্ধা আছে কোথায় সুন্দরী মেয়ে আছে তাদের খোঁজ নিয়েছে তাঁরা। তাঁরা এখনো বাংলাদেশে রাজনীতি করে। আমার কাছে মনে হয় ত্রিশ লক্ষ শহীদের রক্ত এবং মা-বোনদের সম্ভ্রম আজ লজ্জিত তাই আমি নিজেও লজ্জিত। বিএনপিকে একটি সময় আমি রাজনৈতিক দল ভাবতাম কিন্তু ২১’শে আগস্ট গ্রেনেড হামলার পরে এবং বিশেষ করে গত তের ও চৌদ্দ সালে যে দৃশ্য দেখেছি তিন হাজার ৬২৬ জন লোককে আগুন দিয়েছে। পাঁচশত লোককে পুড়িয়ে মেরেছে। ২৯ জন পুলিশ সদস্যকে দিনে দুপুরে হত্যা করেছে। ৭০ টি ট্রেনে আগুন দিয়েছে ১৯ টি লঞ্চ পুড়িয়েছে। ৪ হাজার স্কুল পুড়িয়েছে। স্কুল কি অপরাধ করেছে আমি তা জানি না। আমি মনে করছি এটা আমাদের সরকারের ব্যর্থতা। আমার মনে হয় তাৎক্ষণিকভাবে সরকার যদি ব্যবস্থা নিতো তাহলে বাংলাদেশের ইতিহাসে এই নির্মম দৃশ্য গতকাল আমাকে দেখতে হতো না।
বুধবার (২০ ডিসেম্বর) বিকেলে নাসিক ৬ নং ওয়ার্ডে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।
শামীম ওসমান বলেন, ঐটা দেখার পর আমি মানসিকভাবে সুস্থ না। যারা ট্রেনে আগুন দিয়ে স্কুল ছাত্র ও তার মা’কে পুড়িয়ে হত্যা করে তাদের কি দল বলবো? তাদের মানুষ বলবো কিনা সেটাই তো বড় প্রশ্ন’। এরই মধ্যে প্রায় ৮’শ থেকে ৯’শ গাড়িতে আগুন দিয়েছে। গতকাল আমি দেখলাম আমার এলাকাতে ধ্বংসাত্মক কার্যক্রম চালানো হলো। ১৩ থেকে ১৪ টা পয়েন্টে মশাল মিছিল করা হলো। তারা সব সন্ত্রাসী এবং তারা সকলেই চিহ্নিত আসামী। জনগণ যদি অর্ডার দেয় ওদের প্রতিরোধ করতে আমাদের পাঁচ মিনিট সময় লাগবে না। রাজনীতিকে আমি ইবাদত হিসেবে নিয়েছি। রাজনীতিকে আমি ব্যবসা হিসেবে নেইনি। রাজনীতি করতে চাই আল্লাহ’কে সন্তুষ্ট করার জন্য। এটা আমার নেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে শিখিয়েছেন। কারণ আমি জানি কালকে চলে যাবো এ দুনিয়া থেকে। এ দৃশ্য দেখার পরে নির্বাচন আমার মাথায় খুব কম আছে। সুস্থ হতে পারিনি এখনো” তখন আমার নাতিটা চার বছর বয়স আমার কোলে ছিল। সেটা এখনো পুরো দেখিনি। মানুষকে বলবো দয়া করে জেগে ওঠেন। এই নরপশুদের বিরুদ্ধে জেগে ওঠেন। তাদেরকে স্টপ করেন। তবে নির্বাচনে খেলা হবে কিনা সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে শামীম ওসমান বলেন, খেলা হবে তবে পরিচ্ছন্ন খেলা। হায়নার দল তো আসেনি নির্বাচনে যারা এগুলি করেছে। নির্বাচন তো একটা খেলাই’ খেলা মানেই তো প্রতিযোগিতা। তবে খেলাটা সুষ্ঠু হবে এবং সুন্দর হবে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক হাজী ইয়াসিন মিয়া, নাসিক ৬ নং ওয়ার্ডের কমিউনিটি পুলিশিং এর উপদেষ্টা মো: রওশন আলী, সভাপতি শেখ দেলোয়ার হোসেন, থানা তাঁতী লীগের আহবায়ক মোঃ লিটন আহম্মেদ, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা ছাত্র লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য মানিক সরকার প্রমুখ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন