ঢাকা ১০:৩৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যে কারনে নির্বাচনী প্রচারণায় ডিপজল

তন্ময় (নিজস্ব প্রতিবেদক)
তন্ময় (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ০২:৪২:২৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৩৫৬ বার পড়া হয়েছে

দেশের চলচ্চিত্রের মুভিলর্ড খ্যাত মনোয়ার হোসেন ডিপজল আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে বিভিন্ন প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছেন। সম্প্রতি তাকে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচার সংক্রান্ত উপকমিটির সদস্য করা হয়েছে। এর অংশ হিসেবে তিনি তার এলাকার প্রার্থীসহ অন্য প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করছেন। গত ২১ ডিসেম্বর তিনি গোপালগঞ্জ-৩ আসনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন। এরপর গত শনিবার তিনি যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং ঢাকা-১৪ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাইনুল হোসেন খান নিখিলের পক্ষে গণসংযোগ ও প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন। গত রবিবার তিনি মানিকগঞ্জ-২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সঙ্গীতশিল্পী মমতাজ বেগমের গণসংযোগ ও নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন। নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করে ডিপজল আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে বিজয়ী করে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানান। ডিপজল যে জায়গায়ই প্রচারণায় গিয়েছেন, হাজার হাজার মানুষ সেখানে ভিড় করেছেন। তার অসংখ্য ভক্ত তাকে এক নজর দেখার জন্য এবং তার কথা শোনার জন্য ছুটে এসেছে। অসংখ্য মানুষ তার সাথে সেল্ফি তোলার জন্য ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করেছে। ডিপজলও তাদের সাথে সানন্দে সেল্ফি তুলেছেন এবং তাদের সাথে কুশল বিনিময় করেন।
নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে ডিপজল বলেন, বর্তমান সরকার দেশের অনেক উন্নতি করেছে। দেশকে উন্নয়নের মহাসড়কে তুলেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে। বিশ্বে দেশের ভাবমর্যাদা বৃদ্ধি পেয়েছে। আমাদের দেশের প্রতি বিশ্বের প্রভাবশালী দেশগুলোর আগ্রহ বেড়েছে। তারা বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করছে। এটা সম্ভব হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টার কারণে।

ডিপজল বলেন, পনের বছর আগের বাংলাদেশ আর পনের বছর পরের বাংলাদেশের চিত্র এক নয়। এই পনের বছরে দেশের যে উন্নয়ন হয়েছে, তা অতীতে হয়নি। এটা সম্ভব হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের ধারাবাহিকতার কারণে। আমি মনে করি, এ ধারাবাহিকতা ধরে রাখা প্রয়োজন। এতে দেশের মানুষের আরও উন্নতি হবে। আমরা উন্নত দেশে পরিণত হব। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের রাজনীতির সাথে আছি। এজন্য আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের বিজয়ী করতে মাঠে নেমেছি। আমার এই প্রচেষ্টায় তারা যদি বিজয়ী হয়ে আসতে পারে, তাহলে তাদের বিজয়ে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের কাজে কিছুটা হলেও সহায়তা করতে পেরেছি বলে মনে করব। আমার বিশ্বাস, জনগণ তাদের ভোট দিয়ে বিপুলভাবে বিজয়ী করবে। বিজয়ী হয়ে প্রধানমন্ত্রীর ধারাবাহিক উন্নয়ন কর্মকাণ্ডকে তারা বেগবান করবেন। ডিপজল বলেন, শিল্পী হিসেবে আমার রাজনৈতিক এবং সামাজিক দায়িত্ব রয়েছে। একজন শিল্পী যেভাবে জনগণের ভালবাসা পায়, সে ভালবাসা দেশের জন্য কাজে লাগানো উচিৎ। আমি আমার দর্শক ও ভক্তদের ভালবাসার কারণেই ডিপজল হয়েছি। এখন আমার মনে হয়েছে, তাদের এ ভালবাসা দেশের উন্নয়নের কাজে লাগানো দরকার। আমি আমার জায়গা থেকে এ কাজ করে যাচ্ছি। অন্য শিল্পীদেরও এ কাজে এগিয়ে আসা উচিৎ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

যে কারনে নির্বাচনী প্রচারণায় ডিপজল

আপলোড সময় : ০২:৪২:২৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২৩

দেশের চলচ্চিত্রের মুভিলর্ড খ্যাত মনোয়ার হোসেন ডিপজল আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে বিভিন্ন প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় নেমেছেন। সম্প্রতি তাকে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচার সংক্রান্ত উপকমিটির সদস্য করা হয়েছে। এর অংশ হিসেবে তিনি তার এলাকার প্রার্থীসহ অন্য প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করছেন। গত ২১ ডিসেম্বর তিনি গোপালগঞ্জ-৩ আসনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন। এরপর গত শনিবার তিনি যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং ঢাকা-১৪ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাইনুল হোসেন খান নিখিলের পক্ষে গণসংযোগ ও প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন। গত রবিবার তিনি মানিকগঞ্জ-২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সঙ্গীতশিল্পী মমতাজ বেগমের গণসংযোগ ও নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেন। নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করে ডিপজল আসন্ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে বিজয়ী করে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানান। ডিপজল যে জায়গায়ই প্রচারণায় গিয়েছেন, হাজার হাজার মানুষ সেখানে ভিড় করেছেন। তার অসংখ্য ভক্ত তাকে এক নজর দেখার জন্য এবং তার কথা শোনার জন্য ছুটে এসেছে। অসংখ্য মানুষ তার সাথে সেল্ফি তোলার জন্য ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করেছে। ডিপজলও তাদের সাথে সানন্দে সেল্ফি তুলেছেন এবং তাদের সাথে কুশল বিনিময় করেন।
নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে ডিপজল বলেন, বর্তমান সরকার দেশের অনেক উন্নতি করেছে। দেশকে উন্নয়নের মহাসড়কে তুলেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে। বিশ্বে দেশের ভাবমর্যাদা বৃদ্ধি পেয়েছে। আমাদের দেশের প্রতি বিশ্বের প্রভাবশালী দেশগুলোর আগ্রহ বেড়েছে। তারা বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করছে। এটা সম্ভব হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টার কারণে।

ডিপজল বলেন, পনের বছর আগের বাংলাদেশ আর পনের বছর পরের বাংলাদেশের চিত্র এক নয়। এই পনের বছরে দেশের যে উন্নয়ন হয়েছে, তা অতীতে হয়নি। এটা সম্ভব হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের ধারাবাহিকতার কারণে। আমি মনে করি, এ ধারাবাহিকতা ধরে রাখা প্রয়োজন। এতে দেশের মানুষের আরও উন্নতি হবে। আমরা উন্নত দেশে পরিণত হব। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের রাজনীতির সাথে আছি। এজন্য আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের বিজয়ী করতে মাঠে নেমেছি। আমার এই প্রচেষ্টায় তারা যদি বিজয়ী হয়ে আসতে পারে, তাহলে তাদের বিজয়ে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের কাজে কিছুটা হলেও সহায়তা করতে পেরেছি বলে মনে করব। আমার বিশ্বাস, জনগণ তাদের ভোট দিয়ে বিপুলভাবে বিজয়ী করবে। বিজয়ী হয়ে প্রধানমন্ত্রীর ধারাবাহিক উন্নয়ন কর্মকাণ্ডকে তারা বেগবান করবেন। ডিপজল বলেন, শিল্পী হিসেবে আমার রাজনৈতিক এবং সামাজিক দায়িত্ব রয়েছে। একজন শিল্পী যেভাবে জনগণের ভালবাসা পায়, সে ভালবাসা দেশের জন্য কাজে লাগানো উচিৎ। আমি আমার দর্শক ও ভক্তদের ভালবাসার কারণেই ডিপজল হয়েছি। এখন আমার মনে হয়েছে, তাদের এ ভালবাসা দেশের উন্নয়নের কাজে লাগানো দরকার। আমি আমার জায়গা থেকে এ কাজ করে যাচ্ছি। অন্য শিল্পীদেরও এ কাজে এগিয়ে আসা উচিৎ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন