ঢাকা ০৬:১১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে হামলা, ভাঙ্গচুর ও অগ্নি সন্ত্রাসের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

মোহাম্মদ আবু নাছের (জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী)
মোহাম্মদ আবু নাছের (জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী)
  • আপলোড সময় : ০৩:৪৪:৫৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ২৯৬ বার পড়া হয়েছে

বৃহস্পতিবার(২৮ ডিসেম্বর ) দুপুরে মোরশেদ আলম কমপ্লেক্সের অডিটোরিয়ামে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব অভিযোগ তুলে ধরেন তিনি।
 
সংবাদ সম্মেলনে মোরশেদ আলম জানান, আমার নির্বাচনী এলাকা কাদরা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড চাঁদপুর খলিফা তোলা এলাকায় একটি নৌকার নির্বাচনী অফিস করা হয়। এ অফিস থেকে নৌকার পক্ষে প্রচার-প্রচারণা করা হয়। বৃহস্পতিবার ভোরে স্থানীয় লোকজন অফিসটিতে আগুন জ্বলতে দেখে নৌকার প্রার্থীর লোকজনকে খবর দেয়। আগুনে অফিসের কিছু প্রয়োজনীয় মালামাল পুড়ে গেছে। তবে কে-বা কারা এ আগুন দিয়েছে তা কেউ বলতে পারেনি।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী আতাউর রহমান ভুইয়া মানিক বিএনপি, জামাতের লোকজনদেরকে নিয়ে নানাভাবে নির্বাচন বানছাল করার চেষ্টা করছে।  এরআগে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে আমাকে হত্যার হুমকি দেয়। একই সাথে গত ২৫ ডিসেম্বর সেনবাগের কেশারপাড় এলাকায় এক নির্বাচনী সভায় আমার উপরে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করা হয়। ওই সময় উপস্থিত নেতাকর্মী থাকার কারণে ওই মুহূর্তে আমি বেঁচে যাই।

তিনি বলেন, তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করেছে মানিকের কর্মীরা। অথচ এখন পর্যন্ত কোন আসামী গ্রেপ্তার হয়নি। এসব কিছুর পেছনে তাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে ভোটাররা যেন কেন্দ্রে না যায়। নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ বানচাল করতে আতাউর রহমান মানিক পরিকল্পিতভাবে নানা অপতৎপরতা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন মোরশেদ আলম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,বেঙ্গল গ্রুপের পরিচালক সাইফুল আলম দিপু, ফিরোজ আলম টিপুসহ নোয়াখালী জেলায় কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে হামলা, ভাঙ্গচুর ও অগ্নি সন্ত্রাসের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

আপলোড সময় : ০৩:৪৪:৫৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২৩

বৃহস্পতিবার(২৮ ডিসেম্বর ) দুপুরে মোরশেদ আলম কমপ্লেক্সের অডিটোরিয়ামে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব অভিযোগ তুলে ধরেন তিনি।
 
সংবাদ সম্মেলনে মোরশেদ আলম জানান, আমার নির্বাচনী এলাকা কাদরা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড চাঁদপুর খলিফা তোলা এলাকায় একটি নৌকার নির্বাচনী অফিস করা হয়। এ অফিস থেকে নৌকার পক্ষে প্রচার-প্রচারণা করা হয়। বৃহস্পতিবার ভোরে স্থানীয় লোকজন অফিসটিতে আগুন জ্বলতে দেখে নৌকার প্রার্থীর লোকজনকে খবর দেয়। আগুনে অফিসের কিছু প্রয়োজনীয় মালামাল পুড়ে গেছে। তবে কে-বা কারা এ আগুন দিয়েছে তা কেউ বলতে পারেনি।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী আতাউর রহমান ভুইয়া মানিক বিএনপি, জামাতের লোকজনদেরকে নিয়ে নানাভাবে নির্বাচন বানছাল করার চেষ্টা করছে।  এরআগে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে আমাকে হত্যার হুমকি দেয়। একই সাথে গত ২৫ ডিসেম্বর সেনবাগের কেশারপাড় এলাকায় এক নির্বাচনী সভায় আমার উপরে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করা হয়। ওই সময় উপস্থিত নেতাকর্মী থাকার কারণে ওই মুহূর্তে আমি বেঁচে যাই।

তিনি বলেন, তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করেছে মানিকের কর্মীরা। অথচ এখন পর্যন্ত কোন আসামী গ্রেপ্তার হয়নি। এসব কিছুর পেছনে তাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে ভোটাররা যেন কেন্দ্রে না যায়। নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ বানচাল করতে আতাউর রহমান মানিক পরিকল্পিতভাবে নানা অপতৎপরতা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন মোরশেদ আলম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,বেঙ্গল গ্রুপের পরিচালক সাইফুল আলম দিপু, ফিরোজ আলম টিপুসহ নোয়াখালী জেলায় কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন