ঢাকা ১২:১১ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডেমরায় ৪র্থ ছাত্রীকে মদ্য পান করিয়ে কানের দুল চুরির চেষ্টা:গ্রেফতার ১

মোঃ সালে আহমেদ (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মোঃ সালে আহমেদ (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ০৪:১৭:২৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ৫৬৩ বার পড়া হয়েছে

রাজধানীর ডেমরায় মারিয়া আক্তার মৌ (১১) নামে ৪র্থ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে কোমল পানীয়ের সঙ্গে মিশিয়ে মদ্য পান করিয়ে স্বর্ণের ১ জোড়া কানের দুল চুরির চেষ্টা করেছে দুই লম্পট। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর মা ফাতেমা (৩২) বুধবার (১০ জানুয়ারী) দিনগত রাত ১১ টার দিকে ডেমরা থানায় প্রতিবেশী ওই দুই জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। বুধবার দুপুরে কোনাপাড়া আল—আমিন রোডের মুন্সি ভবন সংলগ্ন জয়দের বাড়ীর নিচতলায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্তরা হলেন—কোনাপাড়া আল আমিন রোডের আলী হোসেনের বাড়ীর ভাড়াটিয়া মৃত দিদার হোসেনের ছেলে মোবাইল সার্ভিসিং মিস্ত্রী মো. রাসেল (৩৫) ও তার বন্ধু একই এলাকার মতিনের ছেলে রিপন (৩৯)। বুধবার রাতেই পুলিশ রাসেলকে গ্রেফতার করে বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতে পাঠায়। বুধবার দুপুরে মেয়েটি ফুসকা খাওয়ার জন্য বাড়ীর নিচে নামে। এ সময় পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ফুসকা কিনে দেওয়ার কথা বলে রাসেল ও রিপন মেয়েটিকে কৌশলে পাশে জয়দের বাড়ীতে একটি রুমে নিয়ে মদ্য পান করায়। এদিকে মেয়েটি নেশায় আসক্ত হয়ে পড়লে তারা কানের দুল চুরি করার চেষ্টা করে ব্যর্থ্য হয়। এ সময় মেয়েটি দৌড়ে তাদের বাড়ীতে গিয়ে খাটে শুয়ে পড়ে। পরে তার মাকে সব ঘটনা খুলে বলে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে ডেমরা থানার ওসি মো. জহিরুল ইসলাম বলেন, মেয়েটি স্কুলে যাওয়া আসার পথে প্রতিবেশী হিসেবে গ্রেফতার রাসেলের সঙ্গে প্রায়ই কথা বলে। এদিকে মেয়েটির কানে থাকা ২ আনা ওজনের ১ জোড়া স্বর্ণের কানের দুলের দিকে নজর পড়ে রাসেল ও তার বন্ধু রিপনের। রিপনকেও গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

ডেমরায় ৪র্থ ছাত্রীকে মদ্য পান করিয়ে কানের দুল চুরির চেষ্টা:গ্রেফতার ১

আপলোড সময় : ০৪:১৭:২৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জানুয়ারী ২০২৪

রাজধানীর ডেমরায় মারিয়া আক্তার মৌ (১১) নামে ৪র্থ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে কোমল পানীয়ের সঙ্গে মিশিয়ে মদ্য পান করিয়ে স্বর্ণের ১ জোড়া কানের দুল চুরির চেষ্টা করেছে দুই লম্পট। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর মা ফাতেমা (৩২) বুধবার (১০ জানুয়ারী) দিনগত রাত ১১ টার দিকে ডেমরা থানায় প্রতিবেশী ওই দুই জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। বুধবার দুপুরে কোনাপাড়া আল—আমিন রোডের মুন্সি ভবন সংলগ্ন জয়দের বাড়ীর নিচতলায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্তরা হলেন—কোনাপাড়া আল আমিন রোডের আলী হোসেনের বাড়ীর ভাড়াটিয়া মৃত দিদার হোসেনের ছেলে মোবাইল সার্ভিসিং মিস্ত্রী মো. রাসেল (৩৫) ও তার বন্ধু একই এলাকার মতিনের ছেলে রিপন (৩৯)। বুধবার রাতেই পুলিশ রাসেলকে গ্রেফতার করে বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতে পাঠায়। বুধবার দুপুরে মেয়েটি ফুসকা খাওয়ার জন্য বাড়ীর নিচে নামে। এ সময় পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ফুসকা কিনে দেওয়ার কথা বলে রাসেল ও রিপন মেয়েটিকে কৌশলে পাশে জয়দের বাড়ীতে একটি রুমে নিয়ে মদ্য পান করায়। এদিকে মেয়েটি নেশায় আসক্ত হয়ে পড়লে তারা কানের দুল চুরি করার চেষ্টা করে ব্যর্থ্য হয়। এ সময় মেয়েটি দৌড়ে তাদের বাড়ীতে গিয়ে খাটে শুয়ে পড়ে। পরে তার মাকে সব ঘটনা খুলে বলে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে ডেমরা থানার ওসি মো. জহিরুল ইসলাম বলেন, মেয়েটি স্কুলে যাওয়া আসার পথে প্রতিবেশী হিসেবে গ্রেফতার রাসেলের সঙ্গে প্রায়ই কথা বলে। এদিকে মেয়েটির কানে থাকা ২ আনা ওজনের ১ জোড়া স্বর্ণের কানের দুলের দিকে নজর পড়ে রাসেল ও তার বন্ধু রিপনের। রিপনকেও গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন