ঢাকা ০৪:৫১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সরকারি খাল দখল করে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ

সোনারগাঁ প্রতিনিধি
সোনারগাঁ প্রতিনিধি
  • আপলোড সময় : ১১:৪৪:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ৩৩৬ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁয়ে সরকারি খাল দখল করে ব্যবসার জন্য স্থাপনা নির্মাণের বিষয়ে অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা আক্তার ফেন্সির বিরুদ্ধে।

সম্প্রতি এ বিষয়ে সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) কাছে মুঠোফোনে বিষয়টি জানানো হয়। বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য অবৈধ স্থাপনা তৈরীর লোকেশন ও ফোটেজে পাঠাতে বলেন।

স্থানীদের ভাষ্য, উপজেলার সোনারগাঁ চৌরাস্তা থানাধীন মোগরাপাড়া ইউনিয়নের গোহাট্রা গ্রামের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন আল-মদিনা সুপার মার্কেট এর পাশে সড়কের ট্রাক স্টেশন সংলগ্ন খালটি দখল করে দোকানঘর নির্মাণ করার হুকুম দেন সোনারগাঁ উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদ আক্তার ফেন্সি সহ তার পরিবারের লোকজন।। তবে তার দাবি এটি সরকারি জায়গা নয়, তার নিজস্ব জমি।

তবে স্থানীয়দের অভিযোগ, এটি সরকারি খাল। একসময় প্রবহমানও ছিল। তবে অব্যাহত দখল ও দূষণে খালটি অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে। আর দখলদকারীরা প্রভাবশালী হওয়ায় সংশ্লিষ্টা কর্তৃপক্ষ এর কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

অভিযুক্ত মাহমুদা আক্তার ফেন্সি বলেন, এটি আমাদের জমির সামনের অংশ আমরা দখল করে খাচ্ছি, সরকার যখন চাইবে দখলমুক্ত করতে পারবে। কেউ এখানে বাধা দিতে পারবে না, ভূমি কর্মকর্তা যদি ভাঙ্গতে আসে তার সাথে আমি কথা বলব। এখানে কেউ বাধা দিতে পারবে না। কেউ ভাঙতে আসলে সেটা আমি বুঝবো। এমনই উত্তেজিত কন্ঠে দখলকারীদের নির্মাণ কাজ চালানোর হুকুম দিয়ে থাকেন। কখনো তিনি বলেন, এটি সরকারি জায়গা আমি আমার পরিবার লিজ নিয়েছে তার কাগজপত্র আমাদের কাছে আছে। আবার তিনি বলেন সরকার চাইলে আমার এটি ভেঙে দিতেও পারবে।

স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মী তাকে স্থাপনা বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, এটি আমাদের জমির সামনের অংশ, আমরা এটি ভোগ দখল করে খাব এখানে কেউ বাধা দিতে পারবে না, এই জমিতে মার্কেট হবে সেটা আমরাই দেখব কেউ ভাঙতে আসলে আমার সাথে আগে কথা বলতে হবে আমি প্রয়োজনে ব্যবস্থা নিব। তবে স্থানীয় খাল দখলের বিষয়ে তিনি কোন কিছু বলতে নারাজ।

এবিষয়ে সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও বলেন , বিষয়টি আমি অবগত না, আমি বিষয়টি জেনে
প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব। তবে আমার হোয়াটসঅ্যাপে লোকেশন ও স্থাপনার ছবি দেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

সরকারি খাল দখল করে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগ

আপলোড সময় : ১১:৪৪:০৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২৪

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁয়ে সরকারি খাল দখল করে ব্যবসার জন্য স্থাপনা নির্মাণের বিষয়ে অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা আক্তার ফেন্সির বিরুদ্ধে।

সম্প্রতি এ বিষয়ে সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) কাছে মুঠোফোনে বিষয়টি জানানো হয়। বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য অবৈধ স্থাপনা তৈরীর লোকেশন ও ফোটেজে পাঠাতে বলেন।

স্থানীদের ভাষ্য, উপজেলার সোনারগাঁ চৌরাস্তা থানাধীন মোগরাপাড়া ইউনিয়নের গোহাট্রা গ্রামের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন আল-মদিনা সুপার মার্কেট এর পাশে সড়কের ট্রাক স্টেশন সংলগ্ন খালটি দখল করে দোকানঘর নির্মাণ করার হুকুম দেন সোনারগাঁ উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদ আক্তার ফেন্সি সহ তার পরিবারের লোকজন।। তবে তার দাবি এটি সরকারি জায়গা নয়, তার নিজস্ব জমি।

তবে স্থানীয়দের অভিযোগ, এটি সরকারি খাল। একসময় প্রবহমানও ছিল। তবে অব্যাহত দখল ও দূষণে খালটি অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে। আর দখলদকারীরা প্রভাবশালী হওয়ায় সংশ্লিষ্টা কর্তৃপক্ষ এর কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

অভিযুক্ত মাহমুদা আক্তার ফেন্সি বলেন, এটি আমাদের জমির সামনের অংশ আমরা দখল করে খাচ্ছি, সরকার যখন চাইবে দখলমুক্ত করতে পারবে। কেউ এখানে বাধা দিতে পারবে না, ভূমি কর্মকর্তা যদি ভাঙ্গতে আসে তার সাথে আমি কথা বলব। এখানে কেউ বাধা দিতে পারবে না। কেউ ভাঙতে আসলে সেটা আমি বুঝবো। এমনই উত্তেজিত কন্ঠে দখলকারীদের নির্মাণ কাজ চালানোর হুকুম দিয়ে থাকেন। কখনো তিনি বলেন, এটি সরকারি জায়গা আমি আমার পরিবার লিজ নিয়েছে তার কাগজপত্র আমাদের কাছে আছে। আবার তিনি বলেন সরকার চাইলে আমার এটি ভেঙে দিতেও পারবে।

স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মী তাকে স্থাপনা বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, এটি আমাদের জমির সামনের অংশ, আমরা এটি ভোগ দখল করে খাব এখানে কেউ বাধা দিতে পারবে না, এই জমিতে মার্কেট হবে সেটা আমরাই দেখব কেউ ভাঙতে আসলে আমার সাথে আগে কথা বলতে হবে আমি প্রয়োজনে ব্যবস্থা নিব। তবে স্থানীয় খাল দখলের বিষয়ে তিনি কোন কিছু বলতে নারাজ।

এবিষয়ে সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও বলেন , বিষয়টি আমি অবগত না, আমি বিষয়টি জেনে
প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব। তবে আমার হোয়াটসঅ্যাপে লোকেশন ও স্থাপনার ছবি দেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন