ঢাকা ০৭:৫৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সোনারগাঁ পৌরসভার সড়কের বেহাল দশা, এলাকাবাসীর নতুন এমপির দৃষ্টি আকর্ষণ

মোঃ ফাহাদুল ইসলাম শরীফ (সোনারগাঁ প্রতিনিধি)
মোঃ ফাহাদুল ইসলাম শরীফ (সোনারগাঁ প্রতিনিধি)
  • আপলোড সময় : ০৫:৫৫:৫২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ২৬৯ বার পড়া হয়েছে

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) : সোনারগাঁও পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডে দক্ষিণ ষোলপাড়া এলাকায় জনগুরুত্বপূর্ণ একটি সড়কের দেড়শ ফুট অংশ চরমদশায় পরিনত হয়েছে। যে কোন মূহুর্তে সড়কের উপরিতল থেকে প্রায় তিন ফুট নীচে ধসে পরে বন্ধ হয়ে যেতে পারে মানুষের চলাচল।

ইতিমধ্যে রাস্তার দেড়শ ফুট অংশে ৬ ভাংঙ্গা দিয়ে দেরহাত পরিমান রাস্তা নিচে ধসে পরেছে। গাছের ডাল ও বালির বস্তা লাগিয়ে লোকজন চলাফেরা করলেও রিকশা বা অটো চালা বন্ধ হয়েগেছে। গত দুই বছর ধরে বেহাল অবস্থায় পড়ে আছে এই সড়কটি।

এ অবস্থায় ওই সড়কটি সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন ভট্টপুর, ষোলপাড়া, গোবিন্দপুর, সোনারগাঁসহ চার গ্রামের পাঁচটি সমাজের বাসিন্দারা। গতকাল ৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে মাদরাসাতুস্ সিরাতিল মুস্তাকিম ও এতিমখানা মাঠে এক মরহুমার জানাযার নামাজ শেষে লাশসহ খটিয়া নিয়ে যাওয়ার সময় ভোগান্তির দৃশ্যপট তুলে ধরে উপস্থিত এলাকাবাসী এই প্রতিবেদকের মধ্যমে এমপি আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাতের দৃষ্ট আকর্ষণ করেন।

ভট্টপুর গ্রামের শাহ মোয়াজ্জম হোসেন মিন্টু বলেন, আমাদের ভট্টপুর, ষোলপাড়া, গোবিন্দপুর, সোনারগাঁসহ চার গ্রামের পাঁচটি সমাজের যতলোক মারাযায়, সবার জানাযার নামাজ এই মাদরাসাতুস্ সিরাতিল মুস্তাকিম ও এতিমখানা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। আর এই মাদরাসায় প্রবেশের একমাত্র পথটির এই বেহাল দশা। ফলে চরম দুর্ভোগে আছি আমরা এলাকার সবাই। লাশ নিয়ে আসা যাওয়াটাও চরম রিক্স নিয়ে হচ্ছে। মাদরাসার ছাত্ররাও রিক্স নিয়ে চলাফেরা করে। সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর কয়েকবার লিখিত আবেদন করেও কোন সাড়া পাইনি। আপনার মাধ্যমে এমপি মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

সোনারগাঁ পৌরসভার সড়কের বেহাল দশা, এলাকাবাসীর নতুন এমপির দৃষ্টি আকর্ষণ

আপলোড সময় : ০৫:৫৫:৫২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) : সোনারগাঁও পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডে দক্ষিণ ষোলপাড়া এলাকায় জনগুরুত্বপূর্ণ একটি সড়কের দেড়শ ফুট অংশ চরমদশায় পরিনত হয়েছে। যে কোন মূহুর্তে সড়কের উপরিতল থেকে প্রায় তিন ফুট নীচে ধসে পরে বন্ধ হয়ে যেতে পারে মানুষের চলাচল।

ইতিমধ্যে রাস্তার দেড়শ ফুট অংশে ৬ ভাংঙ্গা দিয়ে দেরহাত পরিমান রাস্তা নিচে ধসে পরেছে। গাছের ডাল ও বালির বস্তা লাগিয়ে লোকজন চলাফেরা করলেও রিকশা বা অটো চালা বন্ধ হয়েগেছে। গত দুই বছর ধরে বেহাল অবস্থায় পড়ে আছে এই সড়কটি।

এ অবস্থায় ওই সড়কটি সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন ভট্টপুর, ষোলপাড়া, গোবিন্দপুর, সোনারগাঁসহ চার গ্রামের পাঁচটি সমাজের বাসিন্দারা। গতকাল ৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে মাদরাসাতুস্ সিরাতিল মুস্তাকিম ও এতিমখানা মাঠে এক মরহুমার জানাযার নামাজ শেষে লাশসহ খটিয়া নিয়ে যাওয়ার সময় ভোগান্তির দৃশ্যপট তুলে ধরে উপস্থিত এলাকাবাসী এই প্রতিবেদকের মধ্যমে এমপি আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাতের দৃষ্ট আকর্ষণ করেন।

ভট্টপুর গ্রামের শাহ মোয়াজ্জম হোসেন মিন্টু বলেন, আমাদের ভট্টপুর, ষোলপাড়া, গোবিন্দপুর, সোনারগাঁসহ চার গ্রামের পাঁচটি সমাজের যতলোক মারাযায়, সবার জানাযার নামাজ এই মাদরাসাতুস্ সিরাতিল মুস্তাকিম ও এতিমখানা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। আর এই মাদরাসায় প্রবেশের একমাত্র পথটির এই বেহাল দশা। ফলে চরম দুর্ভোগে আছি আমরা এলাকার সবাই। লাশ নিয়ে আসা যাওয়াটাও চরম রিক্স নিয়ে হচ্ছে। মাদরাসার ছাত্ররাও রিক্স নিয়ে চলাফেরা করে। সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর কয়েকবার লিখিত আবেদন করেও কোন সাড়া পাইনি। আপনার মাধ্যমে এমপি মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন