ঢাকা ০৬:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দক্ষিণখানে পথশিশু-ছিন্নমূলদের জন্য ইফতার উপহার দিলেন ওসি সিদ্দিকুর রহমান সাজ্জাদ

মোঃ সালে আহমেদ (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মোঃ সালে আহমেদ (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ১২:৫৭:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০২৪
  • / ৬৮২ বার পড়া হয়েছে

দক্ষিণখান থানা এলাকার বিভিন্ন স্থানে প্রতিদিন ২০০ পথশিশু, ছিন্নমূল, রিকশাচালক বা দিনমজুরকে ইফতারি বিতরণ করছেন দক্ষিণখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান সাজ্জাদ। রমজানের প্রথম দিন থেকে এ ইফতারি বিতরণ শুরু হয় এবং রমজানের শেষ দিন পর্যন্ত এটি চলবে বলে জানান তিনি।

দক্ষিণখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান সাজ্জাদ বলেন, ‘যাদের জীবন পথেই, পথ চলতে চলতে ইফতারের সময় ঘনিয়ে এলেও, যারা নানা কারণে বাড়ি পৌঁছাতে পারেন না, কিংবা যাদের যাওয়ার কোনো জায়গাই নেই এমন মানুষদের জন্য এই আয়োজন। তিনি আরও বলেন, আমি আমার বেতন থেকে প্রথম রোজা থেকে ২০০ পথশিশু, রিকশাচালক বা মেহনতি মানুষকে ইফতার দেওয়া শুরু করেছি।

রফিক রিকশা চালান রাজধানীর দক্ষিণখান এলাকায়। বুধবার রোজা রেখে রিকশা নিয়ে বের হলেও সারাদিনে খুব একটা আয় হয়নি। সন্ধ্যায় ভাবছিলেন ইফতার করবেন কীভাবে। পথেই পেয়ে গেলেন ইফতার উপহার। রফিক বলেন, ‘সারাদিন রোজা রেখে রিকশা চালিয়ে যে আয় হয়, তাতে সংসার চলে না। ইফতারির দোকানে গিয়ে টাকা খরচ করতে চাই না। দোকান থেকে ইফতারি আমাদের মতো গরিব মানুষের পক্ষে কেনাও সম্ভব নয়। এখান বিনামূল্যে ইফতারির প্যাকেট পেয়ে ভালো লাগছে।

আরেক পথশিশু আনিসের সঙ্গে দেখা হলো। গতকাল সে ইফতার করতে পারেনি। আজও ইফতারের আগে ভাবছিল কিছুই পাবে না। শিশুটি জানায়, মনে কষ্ট নিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলাম। হঠাৎ দেখি একজন পুলিশ ডাকছেন প্যাকেট হাতে নিয়ে। কাছে যেতেই বললেন, এটি আমার জন্য ইফতার প্যাকেট। হাতে পেয়েই মন ভালো হয়ে গেল।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

দক্ষিণখানে পথশিশু-ছিন্নমূলদের জন্য ইফতার উপহার দিলেন ওসি সিদ্দিকুর রহমান সাজ্জাদ

আপলোড সময় : ১২:৫৭:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০২৪

দক্ষিণখান থানা এলাকার বিভিন্ন স্থানে প্রতিদিন ২০০ পথশিশু, ছিন্নমূল, রিকশাচালক বা দিনমজুরকে ইফতারি বিতরণ করছেন দক্ষিণখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান সাজ্জাদ। রমজানের প্রথম দিন থেকে এ ইফতারি বিতরণ শুরু হয় এবং রমজানের শেষ দিন পর্যন্ত এটি চলবে বলে জানান তিনি।

দক্ষিণখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান সাজ্জাদ বলেন, ‘যাদের জীবন পথেই, পথ চলতে চলতে ইফতারের সময় ঘনিয়ে এলেও, যারা নানা কারণে বাড়ি পৌঁছাতে পারেন না, কিংবা যাদের যাওয়ার কোনো জায়গাই নেই এমন মানুষদের জন্য এই আয়োজন। তিনি আরও বলেন, আমি আমার বেতন থেকে প্রথম রোজা থেকে ২০০ পথশিশু, রিকশাচালক বা মেহনতি মানুষকে ইফতার দেওয়া শুরু করেছি।

রফিক রিকশা চালান রাজধানীর দক্ষিণখান এলাকায়। বুধবার রোজা রেখে রিকশা নিয়ে বের হলেও সারাদিনে খুব একটা আয় হয়নি। সন্ধ্যায় ভাবছিলেন ইফতার করবেন কীভাবে। পথেই পেয়ে গেলেন ইফতার উপহার। রফিক বলেন, ‘সারাদিন রোজা রেখে রিকশা চালিয়ে যে আয় হয়, তাতে সংসার চলে না। ইফতারির দোকানে গিয়ে টাকা খরচ করতে চাই না। দোকান থেকে ইফতারি আমাদের মতো গরিব মানুষের পক্ষে কেনাও সম্ভব নয়। এখান বিনামূল্যে ইফতারির প্যাকেট পেয়ে ভালো লাগছে।

আরেক পথশিশু আনিসের সঙ্গে দেখা হলো। গতকাল সে ইফতার করতে পারেনি। আজও ইফতারের আগে ভাবছিল কিছুই পাবে না। শিশুটি জানায়, মনে কষ্ট নিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলাম। হঠাৎ দেখি একজন পুলিশ ডাকছেন প্যাকেট হাতে নিয়ে। কাছে যেতেই বললেন, এটি আমার জন্য ইফতার প্যাকেট। হাতে পেয়েই মন ভালো হয়ে গেল।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন