ঢাকা ০৮:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঈদুল ফিতরের ভাষণে যে প্রতিশোধ নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন খামেনি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপলোড সময় : ০৬:১৬:৩৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪
  • / ২৪৫ বার পড়া হয়েছে

এবারের ঈদুল ফিতরের ভাষণের রমজান মাসে ফিলিস্তিনের গাজায় ‘অপরাধের’ জন্য ইসরাইল ও পশ্চিমা দেশগুলোর নিন্দা জানিয়েছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি। এ সময় তিনি সিরিয়ায় ইরানি কনস্যুলেটে হামলার প্রতিশোধ নেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দেন।

বুধবার তেহরানে হাজার হাজার মানুষের উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে তিনি এসব প্রতিশ্রুতি দেন।

তিনি বলেন , ‘বিদ্বেষপূর্ণ শাসকগোষ্ঠী’ ভুল করেছে। তাদের অবশ্যই শাস্তি পেতে হবে, শাস্তি পেতেই হবে…।

গাজায় যুদ্ধে অব্যাহত সমর্থন দেওয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের তীব্র সমালোচনা করেন খামেনি। তিনি বলেন, বিপুল জনতা এখন ‘আমেরিকার মৃত্যু হোক’ বলে স্লোগান দিচ্ছে। তারা আমাদের কনস্যুলেটে হামলা চালিয়েছে, এর মানে- মনে হয় তারা আমাদের মাটিতে হামলা করেছে।

এদিকে, ইসরাইলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসরায়েল কাটজ হিব্রু ও ফার্সি ভাষায় এক্স পোস্টে খামেনির প্রতিক্রিয়ায় লিখেছেন, ইরান যদি তার নিজের ভূখণ্ড থেকে আক্রমণ করে, তবে ইসরাইল জবাব দেবে এবং ইরানে আক্রমণ করবে।

গত ১ এপ্রিল দামেস্কে ইসরাইলি বিমান হামলায় সিরিয়া ও লেবাননে ইসলামিক রেভল্যুশনারি গার্ড কর্পসের (আইআরজিসি) কমান্ডাররা নিহত হওয়ার পর থেকে খামেনি এবং ইরানের অন্যান্য শীর্ষ সামরিক ও সরকারি কর্মকর্তারা বারবার প্রতিশোধের হুঁশিয়ারি দিয়ে আসছেন।

সূত্র: প্রেসটিভি, আলজাজিরা

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

ঈদুল ফিতরের ভাষণে যে প্রতিশোধ নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন খামেনি

আপলোড সময় : ০৬:১৬:৩৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪

এবারের ঈদুল ফিতরের ভাষণের রমজান মাসে ফিলিস্তিনের গাজায় ‘অপরাধের’ জন্য ইসরাইল ও পশ্চিমা দেশগুলোর নিন্দা জানিয়েছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি। এ সময় তিনি সিরিয়ায় ইরানি কনস্যুলেটে হামলার প্রতিশোধ নেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দেন।

বুধবার তেহরানে হাজার হাজার মানুষের উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে তিনি এসব প্রতিশ্রুতি দেন।

তিনি বলেন , ‘বিদ্বেষপূর্ণ শাসকগোষ্ঠী’ ভুল করেছে। তাদের অবশ্যই শাস্তি পেতে হবে, শাস্তি পেতেই হবে…।

গাজায় যুদ্ধে অব্যাহত সমর্থন দেওয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের তীব্র সমালোচনা করেন খামেনি। তিনি বলেন, বিপুল জনতা এখন ‘আমেরিকার মৃত্যু হোক’ বলে স্লোগান দিচ্ছে। তারা আমাদের কনস্যুলেটে হামলা চালিয়েছে, এর মানে- মনে হয় তারা আমাদের মাটিতে হামলা করেছে।

এদিকে, ইসরাইলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসরায়েল কাটজ হিব্রু ও ফার্সি ভাষায় এক্স পোস্টে খামেনির প্রতিক্রিয়ায় লিখেছেন, ইরান যদি তার নিজের ভূখণ্ড থেকে আক্রমণ করে, তবে ইসরাইল জবাব দেবে এবং ইরানে আক্রমণ করবে।

গত ১ এপ্রিল দামেস্কে ইসরাইলি বিমান হামলায় সিরিয়া ও লেবাননে ইসলামিক রেভল্যুশনারি গার্ড কর্পসের (আইআরজিসি) কমান্ডাররা নিহত হওয়ার পর থেকে খামেনি এবং ইরানের অন্যান্য শীর্ষ সামরিক ও সরকারি কর্মকর্তারা বারবার প্রতিশোধের হুঁশিয়ারি দিয়ে আসছেন।

সূত্র: প্রেসটিভি, আলজাজিরা

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন