ঢাকা ১১:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সোনারগাঁয়ে বিএনপির নেতারা গরুর দামে বিক্রি হচ্ছে চেয়ারম্যান প্রার্থীদের কাছে

সোনারগাঁ প্রতিনিধি
সোনারগাঁ প্রতিনিধি
  • আপলোড সময় : ০২:৩২:০৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
  • / ২৫৯ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁও উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচনের জয়ের হাতিয়ার বিএনপি জামাত এমনই মন্তব্য শুরু হয়েছে চায়ের দোকানসহ রাজনৈতিক অঙ্গনে ।

জানা যায়, আসন্ন উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সোনারগাঁয়ে বিএনপি জামাতকে আঁকড়ে ধরে নির্বাচন জয়ের খুঁটি মনে করছেন প্রার্থীগন। এমনি মন্তব্য করেছেন সোনারগাঁয়ের বিএনপি থানা কমিটির অনেক নেতা কর্মীগন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেক কর্মীগণ বলেছেন নেতারা নীতি-আদর্শের পরিবর্তন ঘটালেও কর্মীরা বহাল তবিয়তে আছে। সোনারগাঁয়ে এ যেন এক নজিরবিহীন নির্বাচন হতে চলছে। যে যাকে পারছে টাকার বিনিময়ে কিনে নিচ্ছে নির্বাচনের জয়ের লক্ষ্যে। জয়ের হাতিয়ার মনে করছেন বিএনপি জামাতের নেতাকর্মীদের।

এদিকে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল ওমর বাবু বিএনপি’র নেতাকর্মীদের ইফতার পার্টির অর্থ যোগানের অভিযোগে ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়াতে সারা ফেলেছে। শুধু তাই নয় নির্বাচনের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের জয়ের নিশানা সুনিশ্চিত করতে কাচপুর ইউনিয়ন বিএনপি নেতাকর্মীদের হাত করে অনেকটা সমালোচনার গণজোয়ার চলছে। সমালোচনাকে তোয়াক্কা না করে নির্বাচনী প্রচারণায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন এ প্রার্থী ‌। উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীদের মধ্যে শামসুল ইসলাম ভূঁইয়া, রফিকুল ইসলাম নান্নু, মাহফুজুর রহমান কালাম, আলী হায়দার ও বাবুল ওমর বাবু এদের মধ্যে আলোচনার শীর্ষে আছে মাহফুজুর রহমান কালাম ও বাবলু মোর বাবু, জনগণের উপরে আস্থা অর্জনের নির্বাচনের পচার প্রচারণা শুরু হলে ও ভিতরে ভিতরে চলছে বিএনপি জামাত কে হাত করার বাজিমাত। কে কাকে কিভাবে টাকার বিনিময়ে নিজের কাছে করে নিবে তার প্রতিযোগিতা চলছে এ প্রার্থীদের মধ্যে।

গোপন সূত্রে জানা গেছে, সোনারগাঁও উপজেলা বিএনপির মধ্যে তুমুল দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয়েছে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে। এদের মধ্যে দু গ্রুপের প্রার্থী নিয়ে শুরু হয়েছে দ্বিমত। একদলের প্রার্থী কাঁচপুর অন্য দলের প্রার্থী মোগরাপাড়া। কে কিভাবে কার মাধ্যমে সুবিধা নিবে এ নিয়ে শুরু হয়েছে তাদের মধ্যে বিশাল দ্বন্দ্ব। নেতাদের এহেন লজ্জাজনক ও নীতি-নৈতিকতার পরিবর্তনের দৃশ্য যেন ফুটে উঠেছে কর্মীদের মাঝে। ফলে ফুঁসে উঠেছে বিএনপি জামাতের কর্মীগন। তাদের ফুঁসে ওঠার দৃশ্য ফেসবুক সোশ্যাল মিডিয়াতে দৃশ্যমান। কেউ আবার মনের দুঃখ লুকাতে না পেরে ফেসবুক সোশ্যাল মিডিয়াতে স্ট্যাটাস দিয়েছেন রাজনৈতিক অঙ্গনে নেতাদের নীতি-আদর্শ বিক্রি হলেও কর্মীরা বিক্রি হয় না। এর দ্বারা প্রমাণিত হয় বিএনপির নেতারা উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীদের কাছে টাকার কাছে গরুর দামে বিক্রি হচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

সোনারগাঁয়ে বিএনপির নেতারা গরুর দামে বিক্রি হচ্ছে চেয়ারম্যান প্রার্থীদের কাছে

আপলোড সময় : ০২:৩২:০৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁও উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচনের জয়ের হাতিয়ার বিএনপি জামাত এমনই মন্তব্য শুরু হয়েছে চায়ের দোকানসহ রাজনৈতিক অঙ্গনে ।

জানা যায়, আসন্ন উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সোনারগাঁয়ে বিএনপি জামাতকে আঁকড়ে ধরে নির্বাচন জয়ের খুঁটি মনে করছেন প্রার্থীগন। এমনি মন্তব্য করেছেন সোনারগাঁয়ের বিএনপি থানা কমিটির অনেক নেতা কর্মীগন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেক কর্মীগণ বলেছেন নেতারা নীতি-আদর্শের পরিবর্তন ঘটালেও কর্মীরা বহাল তবিয়তে আছে। সোনারগাঁয়ে এ যেন এক নজিরবিহীন নির্বাচন হতে চলছে। যে যাকে পারছে টাকার বিনিময়ে কিনে নিচ্ছে নির্বাচনের জয়ের লক্ষ্যে। জয়ের হাতিয়ার মনে করছেন বিএনপি জামাতের নেতাকর্মীদের।

এদিকে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল ওমর বাবু বিএনপি’র নেতাকর্মীদের ইফতার পার্টির অর্থ যোগানের অভিযোগে ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়াতে সারা ফেলেছে। শুধু তাই নয় নির্বাচনের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের জয়ের নিশানা সুনিশ্চিত করতে কাচপুর ইউনিয়ন বিএনপি নেতাকর্মীদের হাত করে অনেকটা সমালোচনার গণজোয়ার চলছে। সমালোচনাকে তোয়াক্কা না করে নির্বাচনী প্রচারণায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন এ প্রার্থী ‌। উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীদের মধ্যে শামসুল ইসলাম ভূঁইয়া, রফিকুল ইসলাম নান্নু, মাহফুজুর রহমান কালাম, আলী হায়দার ও বাবুল ওমর বাবু এদের মধ্যে আলোচনার শীর্ষে আছে মাহফুজুর রহমান কালাম ও বাবলু মোর বাবু, জনগণের উপরে আস্থা অর্জনের নির্বাচনের পচার প্রচারণা শুরু হলে ও ভিতরে ভিতরে চলছে বিএনপি জামাত কে হাত করার বাজিমাত। কে কাকে কিভাবে টাকার বিনিময়ে নিজের কাছে করে নিবে তার প্রতিযোগিতা চলছে এ প্রার্থীদের মধ্যে।

গোপন সূত্রে জানা গেছে, সোনারগাঁও উপজেলা বিএনপির মধ্যে তুমুল দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয়েছে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে। এদের মধ্যে দু গ্রুপের প্রার্থী নিয়ে শুরু হয়েছে দ্বিমত। একদলের প্রার্থী কাঁচপুর অন্য দলের প্রার্থী মোগরাপাড়া। কে কিভাবে কার মাধ্যমে সুবিধা নিবে এ নিয়ে শুরু হয়েছে তাদের মধ্যে বিশাল দ্বন্দ্ব। নেতাদের এহেন লজ্জাজনক ও নীতি-নৈতিকতার পরিবর্তনের দৃশ্য যেন ফুটে উঠেছে কর্মীদের মাঝে। ফলে ফুঁসে উঠেছে বিএনপি জামাতের কর্মীগন। তাদের ফুঁসে ওঠার দৃশ্য ফেসবুক সোশ্যাল মিডিয়াতে দৃশ্যমান। কেউ আবার মনের দুঃখ লুকাতে না পেরে ফেসবুক সোশ্যাল মিডিয়াতে স্ট্যাটাস দিয়েছেন রাজনৈতিক অঙ্গনে নেতাদের নীতি-আদর্শ বিক্রি হলেও কর্মীরা বিক্রি হয় না। এর দ্বারা প্রমাণিত হয় বিএনপির নেতারা উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীদের কাছে টাকার কাছে গরুর দামে বিক্রি হচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন