ঢাকা ০৭:০৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উপজেলা নির্বাচনে হস্তক্ষেপ না করতে এমপিদের সতর্ক করলেন প্রধানমন্ত্রী

মোঃ ফাহাদুল ইসলাম শরীফ (সোনারগাঁ প্রতিনিধি)
মোঃ ফাহাদুল ইসলাম শরীফ (সোনারগাঁ প্রতিনিধি)
  • আপলোড সময় : ০৯:১৯:২৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মে ২০২৪
  • / ২৩৯ বার পড়া হয়েছে

উপজেলা নির্বাচনে হস্তক্ষেপ না করতে এমপিদের সতর্ক করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, পরিবার ভিত্তিক নয়, তৃণমূলের কর্মীদের সুযোগ দিয়ে দলকে শক্তিশালী করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (২ মে) আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সভায় তিনি এ নির্দেশ দিয়েছেন। সংসদ সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেছেন, নির্বাচন যেন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় সে দিকে সবাইকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

এমপিদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব ও কোন্দল বন্ধ করতে হবে। বিরোধে না জড়িয়ে স্থিতিশীল পরিবেশ বজায় রাখতে হবে। বৈঠকে দলীয় এমপিদের তিনি বলেন, কোনভাবেই দলীয় প্রভাব কারো উপর ওপর খাটানো যাবে না, এমনকি পুলিশ প্রশাসন ব্যক্তি স্বার্থে প্রয়োগ করা যাবে না। প্রার্থীদের স্বাধীনভাবে কাজ করতে সর্ব প্রকার সহযোগিতা করতে হবে। উপজেলায় এমপিদের স্বজনদের ভোটে থাকা খারাপ। এটা করা ঠিক না। যারা এটা করছে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়েও ইঙ্গিত দেন প্রধানমন্ত্রী।

নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি যাতে স্বাভাবিক থাকে সে বিষয়টি নিয়ে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য, অন্য দলের সংসদ সদস্য ও অন্যান্য দলের সঙ্গে কথা বলবেন বলেও জানান আওয়ামী লীগ সভাপতি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

উপজেলা নির্বাচনে হস্তক্ষেপ না করতে এমপিদের সতর্ক করলেন প্রধানমন্ত্রী

আপলোড সময় : ০৯:১৯:২৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মে ২০২৪

উপজেলা নির্বাচনে হস্তক্ষেপ না করতে এমপিদের সতর্ক করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, পরিবার ভিত্তিক নয়, তৃণমূলের কর্মীদের সুযোগ দিয়ে দলকে শক্তিশালী করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (২ মে) আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সভায় তিনি এ নির্দেশ দিয়েছেন। সংসদ সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেছেন, নির্বাচন যেন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় সে দিকে সবাইকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

এমপিদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব ও কোন্দল বন্ধ করতে হবে। বিরোধে না জড়িয়ে স্থিতিশীল পরিবেশ বজায় রাখতে হবে। বৈঠকে দলীয় এমপিদের তিনি বলেন, কোনভাবেই দলীয় প্রভাব কারো উপর ওপর খাটানো যাবে না, এমনকি পুলিশ প্রশাসন ব্যক্তি স্বার্থে প্রয়োগ করা যাবে না। প্রার্থীদের স্বাধীনভাবে কাজ করতে সর্ব প্রকার সহযোগিতা করতে হবে। উপজেলায় এমপিদের স্বজনদের ভোটে থাকা খারাপ। এটা করা ঠিক না। যারা এটা করছে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়েও ইঙ্গিত দেন প্রধানমন্ত্রী।

নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি যাতে স্বাভাবিক থাকে সে বিষয়টি নিয়ে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য, অন্য দলের সংসদ সদস্য ও অন্যান্য দলের সঙ্গে কথা বলবেন বলেও জানান আওয়ামী লীগ সভাপতি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন