ঢাকা ০৮:৩৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আড়াইহাজারে হত্যা মাৃলার আসামীকে জামিনে এনে ফুলের মালা পরিয়ে শোডাউন, বাদীকে হত্যার হুমকী

রফিকুল ইসলাম রানা (নিজস্ব প্রতিবেদক)
রফিকুল ইসলাম রানা (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ১১:০৬:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪
  • / ২৩৫ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জর আড়াইহাজারে রব হত্যা মামলার আসামী প্রায় এক বছর হাজতবাস করে এসে বাদী আম্বর আলী (৬০) কে হত্যার হুমকী দিয়ে বেড়াচ্ছে আসামী শাহাজালাল। এ ঘটনা উপজলার মঘনা বেষ্টিত কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের কদমীরচর এলাকার। আসামীর হুমকীতে মামলার বাদী এখন প্রাণ ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। নিহত আঃ রবের পিতা আঃ জব্বর এ ব্যাপারে বহষ্পতিবার আড়াইহাজার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, ২০১৪ সালের ৮ ডিসেম্বর পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পূর্বকাদি গ্রামের আঃ জব্বরের ছেলে আঃ রব মিয়া (৩৫) কে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করে কদমীরচর গ্রামের শহিদ মিয়ার ছেলে শাহাজালাল এবং তার দল বল। ওই সময় তারা আক্রান্তদের ১০/১৫ টি বাড়ী ঘর ভাংচুর ও লুটপাট করে। এ ঘটনায় নিহত রব মিয়ার চাচা আম্বর আলী বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আড়াইহাজার থানার মামলা নং- ৫ (১২) ১৪। ঘটনার পর প্রায় ৯ বছর পলাতক থাকার পর গত ২০২৩ সালের ১৯জুন শাহাজালালকে গ্রেফতার করে নারায়ণগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ। প্রায় ১ বছর জেল হাজতে থাকার পর ১৬ মে জামিন পেয়ে ১৭ মে সকাল ১১টায় বাড়ীত আসার পর তাকে ফুল দিয়ে বরণ করে তার বড় ভাই সাত্তার সহ তার সন্ত্রাসী দলের লোকজন এবং তাকে সাথ নিয়ে পুরা এলাকায় শাডাউন করে। শোডাউন কালেই সে দল বল নিয় মামলার বাদী সহ স্বাক্ষীদেরকে নাম ধরে হত্যার হুমকী দেয়। অভিযাগের বাদী অভিযাগে উল্লেখ করেন, শাহাজালাল ও তার লোকজন এই বলে হুমকী দেয় যে, একটি খুনের জন্য ফাঁসি হলে একাধিক খূনের জন্য ও ফাঁসিই হবে। তাই তারা মামলার বাদীসহ স্বক্ষীদেরকে হত্যার হুমকী দিয়ে বেড়াচ্ছে। এই জন্য অন্যান্য স্বাক্ষীরা মালার স্বাক্ষী দিতে ভয় পাচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

আড়াইহাজারে হত্যা মাৃলার আসামীকে জামিনে এনে ফুলের মালা পরিয়ে শোডাউন, বাদীকে হত্যার হুমকী

আপলোড সময় : ১১:০৬:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মে ২০২৪

নারায়ণগঞ্জর আড়াইহাজারে রব হত্যা মামলার আসামী প্রায় এক বছর হাজতবাস করে এসে বাদী আম্বর আলী (৬০) কে হত্যার হুমকী দিয়ে বেড়াচ্ছে আসামী শাহাজালাল। এ ঘটনা উপজলার মঘনা বেষ্টিত কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের কদমীরচর এলাকার। আসামীর হুমকীতে মামলার বাদী এখন প্রাণ ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। নিহত আঃ রবের পিতা আঃ জব্বর এ ব্যাপারে বহষ্পতিবার আড়াইহাজার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, ২০১৪ সালের ৮ ডিসেম্বর পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পূর্বকাদি গ্রামের আঃ জব্বরের ছেলে আঃ রব মিয়া (৩৫) কে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করে কদমীরচর গ্রামের শহিদ মিয়ার ছেলে শাহাজালাল এবং তার দল বল। ওই সময় তারা আক্রান্তদের ১০/১৫ টি বাড়ী ঘর ভাংচুর ও লুটপাট করে। এ ঘটনায় নিহত রব মিয়ার চাচা আম্বর আলী বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আড়াইহাজার থানার মামলা নং- ৫ (১২) ১৪। ঘটনার পর প্রায় ৯ বছর পলাতক থাকার পর গত ২০২৩ সালের ১৯জুন শাহাজালালকে গ্রেফতার করে নারায়ণগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ। প্রায় ১ বছর জেল হাজতে থাকার পর ১৬ মে জামিন পেয়ে ১৭ মে সকাল ১১টায় বাড়ীত আসার পর তাকে ফুল দিয়ে বরণ করে তার বড় ভাই সাত্তার সহ তার সন্ত্রাসী দলের লোকজন এবং তাকে সাথ নিয়ে পুরা এলাকায় শাডাউন করে। শোডাউন কালেই সে দল বল নিয় মামলার বাদী সহ স্বাক্ষীদেরকে নাম ধরে হত্যার হুমকী দেয়। অভিযাগের বাদী অভিযাগে উল্লেখ করেন, শাহাজালাল ও তার লোকজন এই বলে হুমকী দেয় যে, একটি খুনের জন্য ফাঁসি হলে একাধিক খূনের জন্য ও ফাঁসিই হবে। তাই তারা মামলার বাদীসহ স্বক্ষীদেরকে হত্যার হুমকী দিয়ে বেড়াচ্ছে। এই জন্য অন্যান্য স্বাক্ষীরা মালার স্বাক্ষী দিতে ভয় পাচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন