ঢাকা ০৪:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

উপকূলীয় এলাকায় ০৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি

মোহাম্মদ আবু নাছের (জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী)
মোহাম্মদ আবু নাছের (জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী)
  • আপলোড সময় : ১১:০৮:০৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪
  • / ২৪৩ বার পড়া হয়েছে

নোয়াখালী উপকূলীয় এলাকায় ০৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

রোববার (২৬ মে ) বাংলাদেশ উপকূলের দিকে এগিয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় “রেমাল”। নোয়াখালী উপকূলীয় এলাকায় ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। তারই প্রস্তুতির অংশ হিসেবে ঘূর্ণিঝড় “রেমাল” মোকাবেলায় নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান, বিপিএম, পিপিএম এর নির্দেশনা মোতাবেক নোয়াখালী জেলা পুলিশের ১০টি থানা এলাকায় পুলিশ সদস্যগণ অত্যন্ত পেশাদারিত্বের সাথে সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি দুর্যোগকালীন সময় এবং দুর্যোগ পরবর্তী সময় উদ্ধার সহ অন্যান্য সকল নিরাপত্তামূলক কার্যক্রমের জন্য জেলা পুলিশ নোয়াখালীর পুলিশ সদস্যগণ সর্বাত্মক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। নোয়াখলী জেলায় ঘূর্ণিঝড় “রেমাল” মোকাবেলায় নোয়াখালীতে প্রস্তুত রাখা হয়েছে ৪৬৬টি আশ্রয়কেন্দ্র ও ৭৫টি মুজিব কেল্লা। বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ৮ হাজার ৯১০ জন স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তত রয়েছেন। জেলা পুলিশ নোয়াখালীর পুলিশ লাইন্স, ১০টি থানা, তদন্তকেন্দ্র, ক্যাম্প, ফাঁড়ীসহ ২৬টি স্থাপনায় প্রায় ১০০০ পুলিশ সদস্য ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় প্রস্তুত রয়েছেন। এ সংক্রান্তে পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় একটি কন্ট্রোল রুম( মোবাইল নম্বর-০১৩২০১১১৮৯৮) খোলা হয়েছে। উক্ত কন্ট্রোল রুম ঘূর্ণিঝড় সংক্রান্ত বিষয়ে জেলা প্রশাসন, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি,সাংবাদিকবৃন্দ,বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনসহ অন্যান্য সকল অংশীজনদের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

উপকূলীয় এলাকায় ০৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি

আপলোড সময় : ১১:০৮:০৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪

নোয়াখালী উপকূলীয় এলাকায় ০৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

রোববার (২৬ মে ) বাংলাদেশ উপকূলের দিকে এগিয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় “রেমাল”। নোয়াখালী উপকূলীয় এলাকায় ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। তারই প্রস্তুতির অংশ হিসেবে ঘূর্ণিঝড় “রেমাল” মোকাবেলায় নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান, বিপিএম, পিপিএম এর নির্দেশনা মোতাবেক নোয়াখালী জেলা পুলিশের ১০টি থানা এলাকায় পুলিশ সদস্যগণ অত্যন্ত পেশাদারিত্বের সাথে সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি দুর্যোগকালীন সময় এবং দুর্যোগ পরবর্তী সময় উদ্ধার সহ অন্যান্য সকল নিরাপত্তামূলক কার্যক্রমের জন্য জেলা পুলিশ নোয়াখালীর পুলিশ সদস্যগণ সর্বাত্মক প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। নোয়াখলী জেলায় ঘূর্ণিঝড় “রেমাল” মোকাবেলায় নোয়াখালীতে প্রস্তুত রাখা হয়েছে ৪৬৬টি আশ্রয়কেন্দ্র ও ৭৫টি মুজিব কেল্লা। বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ৮ হাজার ৯১০ জন স্বেচ্ছাসেবক প্রস্তত রয়েছেন। জেলা পুলিশ নোয়াখালীর পুলিশ লাইন্স, ১০টি থানা, তদন্তকেন্দ্র, ক্যাম্প, ফাঁড়ীসহ ২৬টি স্থাপনায় প্রায় ১০০০ পুলিশ সদস্য ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় প্রস্তুত রয়েছেন। এ সংক্রান্তে পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় একটি কন্ট্রোল রুম( মোবাইল নম্বর-০১৩২০১১১৮৯৮) খোলা হয়েছে। উক্ত কন্ট্রোল রুম ঘূর্ণিঝড় সংক্রান্ত বিষয়ে জেলা প্রশাসন, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি,সাংবাদিকবৃন্দ,বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনসহ অন্যান্য সকল অংশীজনদের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন