ঢাকা ০৩:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জলাবদ্ধতা নিরসনে কাজ করছেন ৬৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিন সাউদ

মোঃ সালে আহমেদ (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মোঃ সালে আহমেদ (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ১২:৫৩:১৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪
  • / ২৫৭ বার পড়া হয়েছে

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৬৬ নং ওয়ার্ডের জলাবদ্ধতা ও নাগরিক ভোগান্তি নিরসনে কাজ করে যাচ্ছেন বর্তমান কাউন্সিলর আলহাজ্ব আব্দুল মতিন সাউদ । গত কয়েকদিনে প্রাকৃতিক দুর্যোগ ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে ভারী বৃষ্টিপাতে এলাকার রাস্তাঘাট পানিতে ডুবে যাওয়ার পর নিজ ওয়ার্ডে এই কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেন তিনি। প্রধান প্রধান সড়ক থেকে পানি নিষ্কাশন সম্ভব হয়েছে বলে দাবি করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৬৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর। কাউন্সিলর নিজে রাস্তায় দাঁড়িয়ে কাজের তদারকি করায় পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের প্রচেষ্টায় কোথাও জলাবদ্ধতা স্থায়ী হয়নি। সড়কের পানি নিষ্কাশনে কাউন্সিলর গঠন করেন কুইক রেসপন্সস টিম । এবং রাস্তাঘাট ও ড্রেনের জমে থাকা পানি নিষ্কাশনে দ্রুত উদ্যোগ গ্রহণ করেন। দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করাতে ভোগান্তি দীর্ঘদিন পোহাতে হয়নি বাসিন্দাদের। নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন সিটি কর্পোরেশনের উধ্ধতন কর্মকর্তাদের সাথে।

তার দ্রুত হস্তক্ষেপের কারণে ভোগান্তির হাত থেকে রেহাই পেয়েছেন সাধারণ মানুষ। এলাকায় অত্যন্ত জনপ্রিয় ব্যক্তি আলহাজ্ব আব্দুল মতিন সাউদ ।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৬৬ নম্বার ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব আব্দুল মতিন সাউদ বলেন,যেসব জায়গায় এখনো পানি আছে তা নিষ্কাশনে যথেষ্ট পরিমাণ চেষ্টা চালানো হচ্ছে এবং দ্রুতই সব জায়গার পানি নিষ্কাশন করা চেষ্টা করছি।
তিনি আরো বলেন, নাগরিকদের ভোগান্তি লাগবে সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে যত সব সেবা আছে সব কিছুই বাসিন্দাদের জন্য দেয়া হবে। মূলত আমার ওয়ার্ডে ডোবা ও খালের পরিমাণ বেশি এবং মাতুয়াইলের পানির একটি অংশ এই ওয়ার্ড দিয়ে প্রবাহিত হওয়ার ফলে সমস্যাটা হয়েছে। স্থানীয় জনগণের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, নিত্য দিনের ব্যবহার্য ময়লা আবর্জনা একটি নির্দিষ্ট স্থানে ফেললে জলাবদ্ধতা অনেকটাই কমে যাবে, জলাবদ্ধ সমস্যা শুধু নাগরিক ভোগান্তি সৃষ্টি করে না সামগ্রিকভাবে একটি বড় ধরনের সমস্যা। এসময় তিনি নতুন বসতবাড়ি নির্মানের ইট, বালু নিদিষ্ট স্থানে এবং ড্রেনেজ ব্যবস্থার দূরে রাখার পরামর্শ দেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

জলাবদ্ধতা নিরসনে কাজ করছেন ৬৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিন সাউদ

আপলোড সময় : ১২:৫৩:১৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৬৬ নং ওয়ার্ডের জলাবদ্ধতা ও নাগরিক ভোগান্তি নিরসনে কাজ করে যাচ্ছেন বর্তমান কাউন্সিলর আলহাজ্ব আব্দুল মতিন সাউদ । গত কয়েকদিনে প্রাকৃতিক দুর্যোগ ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে ভারী বৃষ্টিপাতে এলাকার রাস্তাঘাট পানিতে ডুবে যাওয়ার পর নিজ ওয়ার্ডে এই কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেন তিনি। প্রধান প্রধান সড়ক থেকে পানি নিষ্কাশন সম্ভব হয়েছে বলে দাবি করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৬৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর। কাউন্সিলর নিজে রাস্তায় দাঁড়িয়ে কাজের তদারকি করায় পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের প্রচেষ্টায় কোথাও জলাবদ্ধতা স্থায়ী হয়নি। সড়কের পানি নিষ্কাশনে কাউন্সিলর গঠন করেন কুইক রেসপন্সস টিম । এবং রাস্তাঘাট ও ড্রেনের জমে থাকা পানি নিষ্কাশনে দ্রুত উদ্যোগ গ্রহণ করেন। দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করাতে ভোগান্তি দীর্ঘদিন পোহাতে হয়নি বাসিন্দাদের। নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন সিটি কর্পোরেশনের উধ্ধতন কর্মকর্তাদের সাথে।

তার দ্রুত হস্তক্ষেপের কারণে ভোগান্তির হাত থেকে রেহাই পেয়েছেন সাধারণ মানুষ। এলাকায় অত্যন্ত জনপ্রিয় ব্যক্তি আলহাজ্ব আব্দুল মতিন সাউদ ।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৬৬ নম্বার ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব আব্দুল মতিন সাউদ বলেন,যেসব জায়গায় এখনো পানি আছে তা নিষ্কাশনে যথেষ্ট পরিমাণ চেষ্টা চালানো হচ্ছে এবং দ্রুতই সব জায়গার পানি নিষ্কাশন করা চেষ্টা করছি।
তিনি আরো বলেন, নাগরিকদের ভোগান্তি লাগবে সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে যত সব সেবা আছে সব কিছুই বাসিন্দাদের জন্য দেয়া হবে। মূলত আমার ওয়ার্ডে ডোবা ও খালের পরিমাণ বেশি এবং মাতুয়াইলের পানির একটি অংশ এই ওয়ার্ড দিয়ে প্রবাহিত হওয়ার ফলে সমস্যাটা হয়েছে। স্থানীয় জনগণের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, নিত্য দিনের ব্যবহার্য ময়লা আবর্জনা একটি নির্দিষ্ট স্থানে ফেললে জলাবদ্ধতা অনেকটাই কমে যাবে, জলাবদ্ধ সমস্যা শুধু নাগরিক ভোগান্তি সৃষ্টি করে না সামগ্রিকভাবে একটি বড় ধরনের সমস্যা। এসময় তিনি নতুন বসতবাড়ি নির্মানের ইট, বালু নিদিষ্ট স্থানে এবং ড্রেনেজ ব্যবস্থার দূরে রাখার পরামর্শ দেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন