ঢাকা ১১:২৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সমকাল সাংবাদিকের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

মো: সাদ্দাম হোসেন মুন্না খান (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মো: সাদ্দাম হোসেন মুন্না খান (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ০৫:৩৫:১৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪
  • / ২৫৮ বার পড়া হয়েছে

জামালপুরের বকশীগঞ্জে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ও তার স্বামী আতিক সিদ্দিকী কর্তৃক দৈনিক সমকাল সাংবাদিক মাসুদ উল হাসান মাসুদের উপর হামলার প্রতিবাদে বকশীগেঞ্জ কর্মরত সাংবাদিকরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। ৮ জুন রোববার দুপুরে বকশীগঞ্জ বাসটার মিনালে সাংবাদিকরা প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানবন্ধন করে। আন্দোলনকারী সাংবাদিকরা হামলাকারী মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ও তার স্বামী আতিক সিদ্দিকীকে গ্রেফতারের দাবি জানান। সমাবেশ শেষে সাংবাদিকরা এএসপি সার্কেল ও বকশীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জের সাথে সাক্ষাৎ করেন।
জানা যায়,বকশীগঞ্জ উপজেলার সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতির বিরুদ্ধে জামালপুরের আদালতে একটি চেক ডিজওনার মামলা হয়। ওই মামলার তথ্য সংগ্রহ করেন জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সদস্য দৈনিক সমকাল সাংবাদিক মাসুদ উল হাসান মাসুদ। বিষয়টি জানার পর মামলার বিষয়ে কোন সংবাদ পরিবেশন না করার জন্য বলেন সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতির স্বামী আতিক সিদ্দিকী। বিষযটি স্থানীয় সকল সাংবাদিক জানার পর একটি নিউজ তৈরি করেন। নিউজ তৈরি শেষ করে বাসায় ফেরার পথে ৭ জুন দিবাগত রাত ১২ ঘটিকার সময় বকশীগঞ্জ দক্ষিন বাজার এলাকায় বকশীগঞ্জ উপজেলার সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ও তার স্বামী আতিক সিদ্দিকী নেতৃত্বে সাংবাদিক মাসুদ হামলার শিকার হন। হামলা কারীরা সাংবাদিক মাসুদকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে তার মোটর সাইকেল গতিরোধ করে ধারালো অস্ত্র দ্বারা আঘাত করে, মোটর সাইকেল ভাংচুর,ক্যামেরা ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে সহকর্মী সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিক মাসুদকে উদ্ধার করে। এর প্রতিবাদে বকশীগেঞ্জ কর্মরত সাংবাদিকরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বকশীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি এম শাহীন আল আমীন, সিনিয়র সাংবাদিক সরকার আব্দুর রাজ্জাক, বকশীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল লতিফ লায়ন ও সিনিয়র সাংবাদিক সরওয়ার জামান রতন। মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বকশীগঞ্জ উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য বকশীগঞ্জ উপজেলার সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ও তার স্বামী আতিক সিদ্দিকী মরহুম সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিমের উপরও হামলা করে ছিলেন। মরহুম সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিমকে বকশীগঞ্জ শহর থেকে ধরে নিজ বাসায় নিয়ে পিটিয়ে আহত করে ছিলেন। উল্লেখিত দুই ব্যাক্তি প্রকাশ্যে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাংচুর করে ছিলেন। এ কারণে তাদের বিরুদ্ধে মামলাও হয়েছে। বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জহুরা বেগম জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ছবিও ভাংচুর মামলার বাদী। বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাংচুর মামলার আসামী হিসেবে গ্রেফতার হয়ে ছিলেন সাবেক ভাইস মহিলা চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতির স্বামী আতিক সিদ্দিকী।
এম শাহীন আল আমীন

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

সমকাল সাংবাদিকের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

আপলোড সময় : ০৫:৩৫:১৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৮ জুন ২০২৪

জামালপুরের বকশীগঞ্জে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ও তার স্বামী আতিক সিদ্দিকী কর্তৃক দৈনিক সমকাল সাংবাদিক মাসুদ উল হাসান মাসুদের উপর হামলার প্রতিবাদে বকশীগেঞ্জ কর্মরত সাংবাদিকরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। ৮ জুন রোববার দুপুরে বকশীগঞ্জ বাসটার মিনালে সাংবাদিকরা প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানবন্ধন করে। আন্দোলনকারী সাংবাদিকরা হামলাকারী মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ও তার স্বামী আতিক সিদ্দিকীকে গ্রেফতারের দাবি জানান। সমাবেশ শেষে সাংবাদিকরা এএসপি সার্কেল ও বকশীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জের সাথে সাক্ষাৎ করেন।
জানা যায়,বকশীগঞ্জ উপজেলার সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতির বিরুদ্ধে জামালপুরের আদালতে একটি চেক ডিজওনার মামলা হয়। ওই মামলার তথ্য সংগ্রহ করেন জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সদস্য দৈনিক সমকাল সাংবাদিক মাসুদ উল হাসান মাসুদ। বিষয়টি জানার পর মামলার বিষয়ে কোন সংবাদ পরিবেশন না করার জন্য বলেন সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতির স্বামী আতিক সিদ্দিকী। বিষযটি স্থানীয় সকল সাংবাদিক জানার পর একটি নিউজ তৈরি করেন। নিউজ তৈরি শেষ করে বাসায় ফেরার পথে ৭ জুন দিবাগত রাত ১২ ঘটিকার সময় বকশীগঞ্জ দক্ষিন বাজার এলাকায় বকশীগঞ্জ উপজেলার সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ও তার স্বামী আতিক সিদ্দিকী নেতৃত্বে সাংবাদিক মাসুদ হামলার শিকার হন। হামলা কারীরা সাংবাদিক মাসুদকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে তার মোটর সাইকেল গতিরোধ করে ধারালো অস্ত্র দ্বারা আঘাত করে, মোটর সাইকেল ভাংচুর,ক্যামেরা ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে সহকর্মী সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিক মাসুদকে উদ্ধার করে। এর প্রতিবাদে বকশীগেঞ্জ কর্মরত সাংবাদিকরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বকশীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি এম শাহীন আল আমীন, সিনিয়র সাংবাদিক সরকার আব্দুর রাজ্জাক, বকশীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল লতিফ লায়ন ও সিনিয়র সাংবাদিক সরওয়ার জামান রতন। মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বকশীগঞ্জ উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য বকশীগঞ্জ উপজেলার সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতি ও তার স্বামী আতিক সিদ্দিকী মরহুম সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিমের উপরও হামলা করে ছিলেন। মরহুম সাংবাদিক গোলাম রাব্বানী নাদিমকে বকশীগঞ্জ শহর থেকে ধরে নিজ বাসায় নিয়ে পিটিয়ে আহত করে ছিলেন। উল্লেখিত দুই ব্যাক্তি প্রকাশ্যে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাংচুর করে ছিলেন। এ কারণে তাদের বিরুদ্ধে মামলাও হয়েছে। বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জহুরা বেগম জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ছবিও ভাংচুর মামলার বাদী। বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাংচুর মামলার আসামী হিসেবে গ্রেফতার হয়ে ছিলেন সাবেক ভাইস মহিলা চেয়ারম্যান মাসুমা ইয়াসমিন স্মৃতির স্বামী আতিক সিদ্দিকী।
এম শাহীন আল আমীন

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন