ঢাকা ০২:১৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সেলফি শিকারীদের চাপে সভামঞ্চ ছাড়লেন সাকিব

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপলোড সময় : ০৯:৩৫:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৩৪৮ বার পড়া হয়েছে

মাগুরার যেখানেই সাকিব আল হাসান গণসংযোগে যাচ্ছেন, সেখানে হুড়মুড়িয়ে পড়ছে মানুষ। শুধু তাকে একনজর দেখার জন্য। আলাদা ছিল না শনিবার (৩০ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় এক নির্বাচনী সভার চিত্রও। সেখানে সেলফি শিকারীদের চাপ এত বেশি ছিল যে, শেষ পর্যন্ত বক্তব্য সংক্ষেপ করে ওই স্থান ছেড়ে যান সাকিব।

লাগাতার প্রচারের অংশ হিসেবে সাকিব সন্ধ্যায় যান চাউলিয়া এলাকায়। তার আগমন উপলক্ষ্যে এক উঠান সভার আয়োজন করা হয়। স্থান ছোট হলেও সাকিবকে একনজর দেখার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়ে মানুষজন।

এক পর্যায়ে সাকিব বক্তৃতা শুরু করেন। তখন সেলফি শিকারীরাও তৎপর হয়ে ওঠেন। সাকিবের প্রতি কথাতেই চিৎকার করে ওঠে উপস্থিত জনতা।

সাকিব বেশ কয়েকবার অনুরোধ করেন। বলেন, সামনে দাঁড়িয়ে মোবাইল ফোনে ছবি তোলায় পেছনের মা-বোনরা দেখতে পারছেন না। কিন্তু উৎসাহী লোকজন সাকিবকে দেখতে এতই ব্যস্ত ছিলেন যে, তার কথা কানে ঢোকেনি কারও।

কেউ যখন কথা শুনছে না, তখন সাকিব দু’মিনিটের মধ্যে তার বক্তৃতা শেষ করেন। বলেন, উন্নয়নের জন্য নৌকায় ভোট দিতে হবে। আর তাহলে শেখ হাসিনার হাত শক্তিশালী হবে, দেশের উন্নয়ন হবে।

বক্তব্য শেষে দ্রুত সাকিব সভামঞ্চ ছেড়ে যান। কিন্তু তখনও সভা চলছিল। সাকিব নেমে যাবার পর আয়োজনের সভাপতি স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতা বক্তৃতা শুরু করেন। কিন্তু তার কথা শোনা বাদ দিয়েই উপস্থিত নেতাকর্মী দৌঁড়াতে শুরু করে সাকিবের পেছনে।

উল্লেখ্য, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ ক্রিকেটের পোস্টারবয় সাকিব নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন মাগুরা-১ আসন থেকে। সকাল থেকে রাত অবদি বিরামহীন গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। এরইমধ্যে কয়েকজন ক্রিকেটার যোগ দিয়েছেন তার নির্বাচনী গণসংযোগে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

সেলফি শিকারীদের চাপে সভামঞ্চ ছাড়লেন সাকিব

আপলোড সময় : ০৯:৩৫:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩

মাগুরার যেখানেই সাকিব আল হাসান গণসংযোগে যাচ্ছেন, সেখানে হুড়মুড়িয়ে পড়ছে মানুষ। শুধু তাকে একনজর দেখার জন্য। আলাদা ছিল না শনিবার (৩০ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় এক নির্বাচনী সভার চিত্রও। সেখানে সেলফি শিকারীদের চাপ এত বেশি ছিল যে, শেষ পর্যন্ত বক্তব্য সংক্ষেপ করে ওই স্থান ছেড়ে যান সাকিব।

লাগাতার প্রচারের অংশ হিসেবে সাকিব সন্ধ্যায় যান চাউলিয়া এলাকায়। তার আগমন উপলক্ষ্যে এক উঠান সভার আয়োজন করা হয়। স্থান ছোট হলেও সাকিবকে একনজর দেখার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়ে মানুষজন।

এক পর্যায়ে সাকিব বক্তৃতা শুরু করেন। তখন সেলফি শিকারীরাও তৎপর হয়ে ওঠেন। সাকিবের প্রতি কথাতেই চিৎকার করে ওঠে উপস্থিত জনতা।

সাকিব বেশ কয়েকবার অনুরোধ করেন। বলেন, সামনে দাঁড়িয়ে মোবাইল ফোনে ছবি তোলায় পেছনের মা-বোনরা দেখতে পারছেন না। কিন্তু উৎসাহী লোকজন সাকিবকে দেখতে এতই ব্যস্ত ছিলেন যে, তার কথা কানে ঢোকেনি কারও।

কেউ যখন কথা শুনছে না, তখন সাকিব দু’মিনিটের মধ্যে তার বক্তৃতা শেষ করেন। বলেন, উন্নয়নের জন্য নৌকায় ভোট দিতে হবে। আর তাহলে শেখ হাসিনার হাত শক্তিশালী হবে, দেশের উন্নয়ন হবে।

বক্তব্য শেষে দ্রুত সাকিব সভামঞ্চ ছেড়ে যান। কিন্তু তখনও সভা চলছিল। সাকিব নেমে যাবার পর আয়োজনের সভাপতি স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতা বক্তৃতা শুরু করেন। কিন্তু তার কথা শোনা বাদ দিয়েই উপস্থিত নেতাকর্মী দৌঁড়াতে শুরু করে সাকিবের পেছনে।

উল্লেখ্য, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ ক্রিকেটের পোস্টারবয় সাকিব নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন মাগুরা-১ আসন থেকে। সকাল থেকে রাত অবদি বিরামহীন গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। এরইমধ্যে কয়েকজন ক্রিকেটার যোগ দিয়েছেন তার নির্বাচনী গণসংযোগে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন