ঢাকা ০৩:০৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নতুন মন্ত্রীদের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে ৪০ গাড়ি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপলোড সময় : ১০:১০:০২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ২৮৯ বার পড়া হয়েছে

বঙ্গভবনের দরবার হলে আগামীকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় নতুন মন্ত্রিসভার শপথ অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। শপথের পর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে দপ্তর বণ্টন করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। আর এ কারণে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে ৪০টি নতুন গাড়ি প্রস্তুত রাখতে বলা হয়েছে।

সেই অনুযায়ী মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সরকারি যানবাহন অধিদপ্তরের কাছে ৪০টি গাড়ি ও ড্রাইভার চাওয়া হয়েছে। ৪০টি পতাকাও সরবরাহের জন্য কার্যাদেশ দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এ ছাড়া গাড়িচালকদের নাম ও নম্বর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠাতে বলা হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা ধারণা করছেন, নতুন মন্ত্রিসভায় ৪০ জনের বেশি সদস্য থাকতে পারেন।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের শপথ অনুষ্ঠানের আয়োজন নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে। ইতোমধ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সরকারি যানবাহন অধিদপ্তরের কাছে ৪০টি গাড়ি ও ড্রাইভার চাওয়া হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সংশ্লিষ্ট সূত্র যুগান্তরকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, ঐতিহ্যগতভাবে শপথ অনুষ্ঠানটা বঙ্গভবনে হয়ে থাকে। এ বছরও বঙ্গভবনেই হবে। প্রস্তুতির মধ্যে কী কী বিষয় আছে সাংবাদিকদের— এমন প্রশ্নের জবাবে সচিব জানান, যেখানে শপথ হয়, সেখানকার একটা প্রস্তুতি রয়েছে। ইনভাইটেশনের একটি তালিকা করতে হয়, সেই তালিকা করছি। ইনভাইটেশন কার্ড করতে হয়, সেটি আমরা করছি। বঙ্গভবনের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি। এটার জন্য কিছু কাগজপত্র তৈরি করতে হয়, সেটা করছি। নতুন মন্ত্রিসভার শপথ অনুষ্ঠানের জন্য ১৩০০ থেকে ১৪০০ জনকে দাওয়াত দেওয়া হচ্ছে। প্রধান বিচারপতি, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও কমিশনারবৃন্দ, সরকারের সচিব, তিন বাহিনী প্রধান, রাষ্ট্রদূত, হাইকমিশনার, বিদেশি মিশন প্রধান, বিশিষ্ট নাগরিক, সিনিয়র সাংবাদিকসহ উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। ইতোমধ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ অতিথির জন্য আমন্ত্রণপত্র তৈরি ও বিতরণ শুরু করেছে।

মন্ত্রিসভার সদস্য হিসাবে যারা শপথ নেবেন তাদের তালিকা আপনাদের কাছে এসেছে কিনা? যারা শপথ নেবেন তাদের আপনারা ফোন দিচ্ছেন কিনা? নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের বায়োডাটা আপনাদের কাছে এসেছে কিনা? নতুন মন্ত্রিসভা কত সদস্যবিশিষ্ট হচ্ছে? এসব প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, প্রস্তুতির ওই অংশে আমরা এখনো কাজে যাইনি। যখন আমরা নির্দেশনা পাব, তখনই কাজ শুরু করব। আমি সেই নির্দেশনার অপেক্ষায় আছি। নতুন মন্ত্রিসভা শপথ নিলে তারাই হবে দেশের নতুন সরকার। শপথ নেওয়া পর্যন্ত আগের মন্ত্রিসভা বহাল থাকবে। নতুন মন্ত্রিসভা শপথ নিলে আগের মন্ত্রিসভা স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাতিল হয়ে যাবে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, রাষ্ট্রপতি সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের প্রধান হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনাকে সরকার গঠনের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী প্রয়োজনীয়সংখ্যক মন্ত্রীদের নিয়ে সরকার গঠন করবেন।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, ৪০টি গাড়ি চাওয়ার মানে হচ্ছে নতুন ৪০ জন মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রী হচ্ছেন। সে ক্ষেত্রে বর্তমান মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রী ৪৫ জন। এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রীসহ ২৪ জন পূর্ণ মন্ত্রী, ১৮ জন প্রতিমন্ত্রী ও তিনজন উপমন্ত্রী। নতুন মন্ত্রিসভায় সদস্য আগের চেয়ে বাড়তেও পারে। আমরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি, এ সংখ্যা ৪০ হতে পারে। মন্ত্রিসভার সদস্য সংখ্যা যাই হোক, সব ধরনের সাপোর্ট দিতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রস্তুত। অপর একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা বলেন, আমাদের প্রয়োজনীয়সংখ্যক যানবাহন প্রস্তুত করতে বলা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, জাতীয় সংসদ-সদস্যদের মধ্য থেকে যারা মন্ত্রিসভায় স্থান পাবেন, তাদের বুধবার সন্ধ্যা থেকেই জানিয়ে দেওয়া হবে। তারা ব্যক্তিগত গাড়িতে শপথ নিতে বঙ্গভবনে যাবেন এবং শপথ শেষে তারা পতাকাবাহী সরকারি গাড়িতে বাসায় ফিরবেন। তবে যাদের মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী কিংবা উপমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেওয়ার জন্য ফোন করা হবে, তাদের কারও ব্যক্তিগত গাড়ি না থাকলে এবং তিনি গাড়ি পাঠাতে অনুরোধ করলে তার জন্য গাড়ি পাঠানো হবে। সে ক্ষেত্রে তখন ওই গাড়িতে পতাকা থাকবে না।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

নতুন মন্ত্রীদের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে ৪০ গাড়ি

আপলোড সময় : ১০:১০:০২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০২৪

বঙ্গভবনের দরবার হলে আগামীকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় নতুন মন্ত্রিসভার শপথ অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। শপথের পর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে দপ্তর বণ্টন করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। আর এ কারণে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে ৪০টি নতুন গাড়ি প্রস্তুত রাখতে বলা হয়েছে।

সেই অনুযায়ী মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সরকারি যানবাহন অধিদপ্তরের কাছে ৪০টি গাড়ি ও ড্রাইভার চাওয়া হয়েছে। ৪০টি পতাকাও সরবরাহের জন্য কার্যাদেশ দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এ ছাড়া গাড়িচালকদের নাম ও নম্বর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠাতে বলা হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা ধারণা করছেন, নতুন মন্ত্রিসভায় ৪০ জনের বেশি সদস্য থাকতে পারেন।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের শপথ অনুষ্ঠানের আয়োজন নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে। ইতোমধ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সরকারি যানবাহন অধিদপ্তরের কাছে ৪০টি গাড়ি ও ড্রাইভার চাওয়া হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সংশ্লিষ্ট সূত্র যুগান্তরকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, ঐতিহ্যগতভাবে শপথ অনুষ্ঠানটা বঙ্গভবনে হয়ে থাকে। এ বছরও বঙ্গভবনেই হবে। প্রস্তুতির মধ্যে কী কী বিষয় আছে সাংবাদিকদের— এমন প্রশ্নের জবাবে সচিব জানান, যেখানে শপথ হয়, সেখানকার একটা প্রস্তুতি রয়েছে। ইনভাইটেশনের একটি তালিকা করতে হয়, সেই তালিকা করছি। ইনভাইটেশন কার্ড করতে হয়, সেটি আমরা করছি। বঙ্গভবনের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি। এটার জন্য কিছু কাগজপত্র তৈরি করতে হয়, সেটা করছি। নতুন মন্ত্রিসভার শপথ অনুষ্ঠানের জন্য ১৩০০ থেকে ১৪০০ জনকে দাওয়াত দেওয়া হচ্ছে। প্রধান বিচারপতি, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও কমিশনারবৃন্দ, সরকারের সচিব, তিন বাহিনী প্রধান, রাষ্ট্রদূত, হাইকমিশনার, বিদেশি মিশন প্রধান, বিশিষ্ট নাগরিক, সিনিয়র সাংবাদিকসহ উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। ইতোমধ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ অতিথির জন্য আমন্ত্রণপত্র তৈরি ও বিতরণ শুরু করেছে।

মন্ত্রিসভার সদস্য হিসাবে যারা শপথ নেবেন তাদের তালিকা আপনাদের কাছে এসেছে কিনা? যারা শপথ নেবেন তাদের আপনারা ফোন দিচ্ছেন কিনা? নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের বায়োডাটা আপনাদের কাছে এসেছে কিনা? নতুন মন্ত্রিসভা কত সদস্যবিশিষ্ট হচ্ছে? এসব প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, প্রস্তুতির ওই অংশে আমরা এখনো কাজে যাইনি। যখন আমরা নির্দেশনা পাব, তখনই কাজ শুরু করব। আমি সেই নির্দেশনার অপেক্ষায় আছি। নতুন মন্ত্রিসভা শপথ নিলে তারাই হবে দেশের নতুন সরকার। শপথ নেওয়া পর্যন্ত আগের মন্ত্রিসভা বহাল থাকবে। নতুন মন্ত্রিসভা শপথ নিলে আগের মন্ত্রিসভা স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাতিল হয়ে যাবে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, রাষ্ট্রপতি সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের প্রধান হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনাকে সরকার গঠনের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী প্রয়োজনীয়সংখ্যক মন্ত্রীদের নিয়ে সরকার গঠন করবেন।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, ৪০টি গাড়ি চাওয়ার মানে হচ্ছে নতুন ৪০ জন মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রী হচ্ছেন। সে ক্ষেত্রে বর্তমান মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রী ৪৫ জন। এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রীসহ ২৪ জন পূর্ণ মন্ত্রী, ১৮ জন প্রতিমন্ত্রী ও তিনজন উপমন্ত্রী। নতুন মন্ত্রিসভায় সদস্য আগের চেয়ে বাড়তেও পারে। আমরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি, এ সংখ্যা ৪০ হতে পারে। মন্ত্রিসভার সদস্য সংখ্যা যাই হোক, সব ধরনের সাপোর্ট দিতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রস্তুত। অপর একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা বলেন, আমাদের প্রয়োজনীয়সংখ্যক যানবাহন প্রস্তুত করতে বলা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, জাতীয় সংসদ-সদস্যদের মধ্য থেকে যারা মন্ত্রিসভায় স্থান পাবেন, তাদের বুধবার সন্ধ্যা থেকেই জানিয়ে দেওয়া হবে। তারা ব্যক্তিগত গাড়িতে শপথ নিতে বঙ্গভবনে যাবেন এবং শপথ শেষে তারা পতাকাবাহী সরকারি গাড়িতে বাসায় ফিরবেন। তবে যাদের মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী কিংবা উপমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেওয়ার জন্য ফোন করা হবে, তাদের কারও ব্যক্তিগত গাড়ি না থাকলে এবং তিনি গাড়ি পাঠাতে অনুরোধ করলে তার জন্য গাড়ি পাঠানো হবে। সে ক্ষেত্রে তখন ওই গাড়িতে পতাকা থাকবে না।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন