ঢাকা ০৭:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কেরানীগঞ্জে মানসিক রোগী স্বামীকে আটকে স্ত্রী অর্থ সম্পত্তি আত্মসাৎ চেষ্টা

মো: শাহিন (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মো: শাহিন (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ০৪:১৮:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ১৫২৫ বার পড়া হয়েছে

ঢাকার কেরাণীগঞ্জে মানসিক রোগী খাজা আরমান কাদিরের সম্পদ রক্ষায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন তার বড় ভাই বুলবুলকাদির। আজ শনিবার সকালে কালিন্দির তার নিজ বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে তার বড় ভাই বলেন, তার ছোট ভাই খাজা আরমান কাদির দীর্ঘ দিন যাবৎ মানসিক রোগী। তিনি জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল শেরে বাংলা নগর নিয়মিত চিকিৎসারত। গত ৫ অক্টোবর ২০১৮ সালে হঠাৎ রাগান্বিত হয়ে তারসহদর ভাই খাজা আশাক কাদিরকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। বিজ্ঞ আদালত অভিযুক্ত খাজা আরমান কাদিরের স্বাস্থ্য পরীক্ষায় মেডিকেল বোর্ড তাকে মানসিক রোগী বিবেচনায় তাকে জামিন দেয়। সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন বর্তমানে তার ছোট ভাই মানসিক রোগী খাজা আরমান কাদিরের নাবালক ২টি মেয়ে ও ১টি ছেলে সন্তান রয়েছে। এইমত অবস্থায় তার স্ত্রী আফসানা বেগম খাজা আরমান কাদিরের সকল সম্পত্তি বিক্রির পায়তারা করছে। এক জন মানসিক রোগীর সম্পত্তি বেচা-কেনা, হস্তান্তর কোনটাই আইনগতভাবে করতে পারে না। তার ছোট ভাই মানসিক রোগী খাজা আরমান কাদির এখন নিখোঁজ রয়েছে। তার সন্ধান ও ভ’মিদস্যু চক্রের হাত থেকে নাবালক সম্পত্তির রক্ষায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে পরিতান চান ভাই বুলবুল কাদির। এসময় তার পাশে ছিলেন তার বড় ভাগ্নি অনিলা ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

কেরানীগঞ্জে মানসিক রোগী স্বামীকে আটকে স্ত্রী অর্থ সম্পত্তি আত্মসাৎ চেষ্টা

আপলোড সময় : ০৪:১৮:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ঢাকার কেরাণীগঞ্জে মানসিক রোগী খাজা আরমান কাদিরের সম্পদ রক্ষায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন তার বড় ভাই বুলবুলকাদির। আজ শনিবার সকালে কালিন্দির তার নিজ বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে তার বড় ভাই বলেন, তার ছোট ভাই খাজা আরমান কাদির দীর্ঘ দিন যাবৎ মানসিক রোগী। তিনি জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল শেরে বাংলা নগর নিয়মিত চিকিৎসারত। গত ৫ অক্টোবর ২০১৮ সালে হঠাৎ রাগান্বিত হয়ে তারসহদর ভাই খাজা আশাক কাদিরকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। বিজ্ঞ আদালত অভিযুক্ত খাজা আরমান কাদিরের স্বাস্থ্য পরীক্ষায় মেডিকেল বোর্ড তাকে মানসিক রোগী বিবেচনায় তাকে জামিন দেয়। সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন বর্তমানে তার ছোট ভাই মানসিক রোগী খাজা আরমান কাদিরের নাবালক ২টি মেয়ে ও ১টি ছেলে সন্তান রয়েছে। এইমত অবস্থায় তার স্ত্রী আফসানা বেগম খাজা আরমান কাদিরের সকল সম্পত্তি বিক্রির পায়তারা করছে। এক জন মানসিক রোগীর সম্পত্তি বেচা-কেনা, হস্তান্তর কোনটাই আইনগতভাবে করতে পারে না। তার ছোট ভাই মানসিক রোগী খাজা আরমান কাদির এখন নিখোঁজ রয়েছে। তার সন্ধান ও ভ’মিদস্যু চক্রের হাত থেকে নাবালক সম্পত্তির রক্ষায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে পরিতান চান ভাই বুলবুল কাদির। এসময় তার পাশে ছিলেন তার বড় ভাগ্নি অনিলা ।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন