ঢাকা ০৫:২১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নারায়নগঞ্জ আদালতে মারামারির মামলায় দুই আসামির চার বছরের সশ্রম কারাদন্ড

মো: সাদ্দাম হোসেন মুন্না খান (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মো: সাদ্দাম হোসেন মুন্না খান (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ১০:১৩:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২২ অক্টোবর ২০২৩
  • / ২৯১ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজারে হত্যার উদ্দেশ্যে মারামারির মামলায় দুই আসামিকে চার বছরের সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোঃ বদিউজ্জামান রোববার দুপুরে এই রায় ঘোষণা করেন।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট কামরুন নাহার ময়না ও অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বেঞ্চ সহকারী মোঃ সজিব সুবাদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানার বিশনন্দী গ্রামের মৃত হাজী আব্দুল হাইয়ের ছেলে আব্দুল লতিফ ও একই গ্রামের মনির হোসেনের ছেলে মামুন।
মামলার এজাহার ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ২০ এপ্রিল সকালে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আসামীগন দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়া বেআইনীভাবে বাদী মোঃ আনিসুল হকের বাড়ীতে প্রবেশ করে হত্যার উদ্দেশ্যে মামলার বাদী এবং তার স্ত্রীর উপর হামলা চালিয়ে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্বক কাটা রক্তাক্ত জখম করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় আনিসুল হক বাদী হয়ে ২০১৫ সালের ২১ জুলাই নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানায় একটি মামলা নং ১১(৮)১৫ দায়ের করেন। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বিজ্ঞ আদালতে ৬জন আসামীর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করলে সাক্ষ্য প্রমান গ্রহন শেষে বিচারক দুই জনের বিরুদ্ধে এই রায় এ ঘোষণা করেন। অপর ৪ জন আসামীর অভিযোগ রাষ্ট্রপক্ষ প্রমান করতে না পারায় তাদের বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়। দন্ডপ্রাপ্ত আসামীদের মধ্যে আব্দুল লতিফ বিজ্ঞ আদালতে হাজির থাকলেও অপর আসামী মামুন পলাতক রয়েছে।
আসামীপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট সিদ্দিকুর রহমান বলেন, আমার আসামী এই রায়ে ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছে। আমরা এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

নারায়নগঞ্জ আদালতে মারামারির মামলায় দুই আসামির চার বছরের সশ্রম কারাদন্ড

আপলোড সময় : ১০:১৩:৪৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২২ অক্টোবর ২০২৩

নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজারে হত্যার উদ্দেশ্যে মারামারির মামলায় দুই আসামিকে চার বছরের সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মোঃ বদিউজ্জামান রোববার দুপুরে এই রায় ঘোষণা করেন।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট কামরুন নাহার ময়না ও অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বেঞ্চ সহকারী মোঃ সজিব সুবাদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানার বিশনন্দী গ্রামের মৃত হাজী আব্দুল হাইয়ের ছেলে আব্দুল লতিফ ও একই গ্রামের মনির হোসেনের ছেলে মামুন।
মামলার এজাহার ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ২০ এপ্রিল সকালে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আসামীগন দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়া বেআইনীভাবে বাদী মোঃ আনিসুল হকের বাড়ীতে প্রবেশ করে হত্যার উদ্দেশ্যে মামলার বাদী এবং তার স্ত্রীর উপর হামলা চালিয়ে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্বক কাটা রক্তাক্ত জখম করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় আনিসুল হক বাদী হয়ে ২০১৫ সালের ২১ জুলাই নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানায় একটি মামলা নং ১১(৮)১৫ দায়ের করেন। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বিজ্ঞ আদালতে ৬জন আসামীর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করলে সাক্ষ্য প্রমান গ্রহন শেষে বিচারক দুই জনের বিরুদ্ধে এই রায় এ ঘোষণা করেন। অপর ৪ জন আসামীর অভিযোগ রাষ্ট্রপক্ষ প্রমান করতে না পারায় তাদের বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়। দন্ডপ্রাপ্ত আসামীদের মধ্যে আব্দুল লতিফ বিজ্ঞ আদালতে হাজির থাকলেও অপর আসামী মামুন পলাতক রয়েছে।
আসামীপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট সিদ্দিকুর রহমান বলেন, আমার আসামী এই রায়ে ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছে। আমরা এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন