ঢাকা ০৩:১৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঢাকা-মাওয়া হাইওয়েতে দ্রুতগামী বাসের ধাক্কায় পথচারী নিহত

মো: শাহিন (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মো: শাহিন (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ১২:০৬:৩১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ নভেম্বর ২০২৩
  • / ৩৫০ বার পড়া হয়েছে

ঢাকা-মাওয়া হাইওয়ের তেঘরিয়া এলাকায় রাস্তা পার হওয়ার সময় দ্রুতগামী বাসের ধাক্কায় আবু সালেন (৭০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। নিহত আবু সালেন দক্ষিন কেরানীগঞ্জের ইকুরিয়া জমিদার বাড়ির মৃত আরশ আলীর ছেলে। সে বসুন্ধরা রিভারভিউ সাইড অফিসে সিকিউরিটির কাজ করতো।

মঙ্গলবার(১৪ নভেম্বর ) দুপুর বারোটায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ১০০ গজ পশ্চিমে তেঘরিয়া আর্মি ক্যাম্পের সামনে এ দূর্ঘনা ঘটে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী নিহতের ভাতিজা সাইদুর রহমান জানান, দুপুরে রাস্তা পার হওয়ার সময় সোহাগ পরিবহনের একটি দ্রুতগামী এসি বাস একজনকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ফেলে দ্রুত পালিয়ে যাচ্ছে, এ ঘটনা দেখে দ্রুত তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে দেখি সে আমার চাচা আবু সালেন। তাৎক্ষণিক স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকৃত ঘোষণা করে।

হাসাড়া হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ কাঞ্চন কুমার সিংহ জানান, দুর্ঘটনার পর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে সেখানে তার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে বিনা ময়নাতদন্তে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।সোহাগ পরিবহনের একটি গাড়ি তাকে ধাক্কা দিয়েছে,গাড়িটি আটক করতে পেরেছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন কোন গাড়ি ধাক্কা দিয়েছে সেটা আমরা এখনো জানিনা। তবে পরিবারের পক্ষ থেকে কোন গাড়ির বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে তদন্ত করে দেখা হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

ঢাকা-মাওয়া হাইওয়েতে দ্রুতগামী বাসের ধাক্কায় পথচারী নিহত

আপলোড সময় : ১২:০৬:৩১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ নভেম্বর ২০২৩

ঢাকা-মাওয়া হাইওয়ের তেঘরিয়া এলাকায় রাস্তা পার হওয়ার সময় দ্রুতগামী বাসের ধাক্কায় আবু সালেন (৭০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। নিহত আবু সালেন দক্ষিন কেরানীগঞ্জের ইকুরিয়া জমিদার বাড়ির মৃত আরশ আলীর ছেলে। সে বসুন্ধরা রিভারভিউ সাইড অফিসে সিকিউরিটির কাজ করতো।

মঙ্গলবার(১৪ নভেম্বর ) দুপুর বারোটায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ১০০ গজ পশ্চিমে তেঘরিয়া আর্মি ক্যাম্পের সামনে এ দূর্ঘনা ঘটে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী নিহতের ভাতিজা সাইদুর রহমান জানান, দুপুরে রাস্তা পার হওয়ার সময় সোহাগ পরিবহনের একটি দ্রুতগামী এসি বাস একজনকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তায় ফেলে দ্রুত পালিয়ে যাচ্ছে, এ ঘটনা দেখে দ্রুত তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে দেখি সে আমার চাচা আবু সালেন। তাৎক্ষণিক স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকৃত ঘোষণা করে।

হাসাড়া হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ কাঞ্চন কুমার সিংহ জানান, দুর্ঘটনার পর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে সেখানে তার মৃত্যু হয়েছে। নিহতের পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে বিনা ময়নাতদন্তে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।সোহাগ পরিবহনের একটি গাড়ি তাকে ধাক্কা দিয়েছে,গাড়িটি আটক করতে পেরেছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন কোন গাড়ি ধাক্কা দিয়েছে সেটা আমরা এখনো জানিনা। তবে পরিবারের পক্ষ থেকে কোন গাড়ির বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে তদন্ত করে দেখা হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন