ঢাকা ০৪:৫৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কেরানীগঞ্জে কেন্দ্রীয় কারাগারে হাজতি মৃত্যু

মো: শাহিন (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মো: শাহিন (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ১০:০৮:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ৩৪০ বার পড়া হয়েছে

ঢাকার কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত মো: ইসমাইল হোসেন (৮১) নামে এক হাজতি মৃত্যু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। নিহত ইসমাইল বগুড়া জেলার গাবতলী থানার বাহাদুরপুর গ্রামের মৃত রমজান আলীর ছেলে।

কারাগারে সূত্রে জানা যায়, উক্ত বন্দী গত সোমবার রাতে হঠাৎ হার্টের রোগে অসুস্থ হয়ে পড়লে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। তার কয়েদি নম্বর-৬৮

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি কারা কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তিনি আরও জানান, একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হবে। ময়নাতদন্তের পর মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

কেরানীগঞ্জে কেন্দ্রীয় কারাগারে হাজতি মৃত্যু

আপলোড সময় : ১০:০৮:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ জানুয়ারী ২০২৪

ঢাকার কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত মো: ইসমাইল হোসেন (৮১) নামে এক হাজতি মৃত্যু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। নিহত ইসমাইল বগুড়া জেলার গাবতলী থানার বাহাদুরপুর গ্রামের মৃত রমজান আলীর ছেলে।

কারাগারে সূত্রে জানা যায়, উক্ত বন্দী গত সোমবার রাতে হঠাৎ হার্টের রোগে অসুস্থ হয়ে পড়লে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। তার কয়েদি নম্বর-৬৮

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি কারা কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তিনি আরও জানান, একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হবে। ময়নাতদন্তের পর মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন