ঢাকা ০৭:৪০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শপথ নিতে সংসদ ভবনে প্রবেশ করছেন এমপিরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপলোড সময় : ১০:২০:০৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ২৭৪ বার পড়া হয়েছে

নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যরা শপথ নেওয়ার জন্য জাতীয় সংসদ ভবনের ভেতরে প্রবেশ করছেন। সংসদ ভবনের ১২ নম্বর গেট দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করছেন তারা।

সকাল ১০টায় জাতীয় সংসদ ভবনের শপথকক্ষে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত নতুন সংসদ সদস্যদের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

গতকাল নির্বাচন কমিশন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ফল গেজেট আকারে প্রকাশ করে।

সংবিধানের বিধান অনুযায়ী, গেজেট প্রকাশের তিন দিনের মধ্যে সংসদ সদস্য হিসেবে শপথগ্রহণ করতে হবে। শপথগ্রহণের পরই তিনি কার্যভার গ্রহণ করেছেন বলে গণ্য হবেন।

উল্লেখ্য, গত ৭ জানুয়ারি রোববার সারা দেশে একযোগে ২৯৯ আসনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে ২৯৮ আসনের ফল বেসরকারিভাবে ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। কমিশনের দেওয়া তালিকা অনুযায়ী নির্বাচনে অংশ নেওয়া দলগুলোর মধ্যে ২৯৮ আসনের মধ্যে আওয়ামী লীগ ২২২ আসনে জয়লাভ করে একক সংখ্যাগরিষ্ঠা লাভ করেছে। নির্বাচনে জাতীয় পার্টি ১১ এবং বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, জাসদ ও কল্যাণ পার্টি একটি করে আসনে নির্বাচিত হয়েছেন। এ ছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৬২ আসনে জয়লাভ করেছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

শপথ নিতে সংসদ ভবনে প্রবেশ করছেন এমপিরা

আপলোড সময় : ১০:২০:০৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০২৪

নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যরা শপথ নেওয়ার জন্য জাতীয় সংসদ ভবনের ভেতরে প্রবেশ করছেন। সংসদ ভবনের ১২ নম্বর গেট দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করছেন তারা।

সকাল ১০টায় জাতীয় সংসদ ভবনের শপথকক্ষে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত নতুন সংসদ সদস্যদের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

গতকাল নির্বাচন কমিশন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ফল গেজেট আকারে প্রকাশ করে।

সংবিধানের বিধান অনুযায়ী, গেজেট প্রকাশের তিন দিনের মধ্যে সংসদ সদস্য হিসেবে শপথগ্রহণ করতে হবে। শপথগ্রহণের পরই তিনি কার্যভার গ্রহণ করেছেন বলে গণ্য হবেন।

উল্লেখ্য, গত ৭ জানুয়ারি রোববার সারা দেশে একযোগে ২৯৯ আসনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে ২৯৮ আসনের ফল বেসরকারিভাবে ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। কমিশনের দেওয়া তালিকা অনুযায়ী নির্বাচনে অংশ নেওয়া দলগুলোর মধ্যে ২৯৮ আসনের মধ্যে আওয়ামী লীগ ২২২ আসনে জয়লাভ করে একক সংখ্যাগরিষ্ঠা লাভ করেছে। নির্বাচনে জাতীয় পার্টি ১১ এবং বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, জাসদ ও কল্যাণ পার্টি একটি করে আসনে নির্বাচিত হয়েছেন। এ ছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৬২ আসনে জয়লাভ করেছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন