ঢাকা ১১:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাড়ে তিন মাস পর মির্জা ফখরুল ও আমীর খসরু কারামুক্ত

মো: শাহিন (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মো: শাহিন (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ০৮:২৯:০২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৩০১ বার পড়া হয়েছে

গ্রেফতার হওয়ার সাড়ে তিন মাস পর জামিনে মুক্তি পেলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। আজ বৃহস্পতিবার কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বেলা সাড়ে তিনটার দিকে মুক্তি পান এই দুই নেতা।

জেল থেকে বেরিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, দেশের জনগণ সবসময় গণতন্ত্রের পক্ষে। শান্তিপূর্ণভাবে তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন। অপরদিকে, আমীর খসরু বলেন, দেশের মানুষ গণতন্ত্রের পক্ষে রায় দিয়েছে। ক্ষমতা দখল করেও সরকার পরাজিত হয়েছে।

প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা ও নাশকতার অভিযোগে রাজধানীর রমনা থানায় দায়ের করা মামলায় গতকাল বুধবার জামিন পান বিএনপির এ দুই নেতা। ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ফয়সাল আতিক বিন কাদেরের আদালত তাদেরকে জামিন দেন। সব মামলায় জামিন পাওয়ায় এদিন তাদের আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ জানিয়েছিলেন, বিএনপির এ দুই নেতার কারামুক্তিতে বাধা নেই।

গত ২৮ অক্টোবর রাজধানীতে বিএনপির সমাবেশকে ঘিরে মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে ১১টি মামলা হয়। এর মধ্যে ১০টিতে আগেই জামিন পান তিনি। বাকি থাকা প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার মামলায় গতকাল জামিন মেলে। অন্যদিকে, আমীর খসরুর বিরুদ্ধে ১০টি মামলা হয়। তিনিও প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার মামলা ছাড়া অন্যগুলোতে আগেই জামিন পান। এ দুই নেতাই একই মামলায় আটকে থাকার কারণে এতদিন জেল থেকে বের হতে পারছিলেন না।

২৮ অক্টোবরে সংঘর্ষের পরদিন রাজধানীর গুলশানের বাসা থেকে গ্রেফতার হন মির্জা ফখরুল। আর ২ নভেম্বর রাতে গ্রেফতার হন আমীর খসরু। এরপর থেকেই তারা কারাগারে ছিলেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

সাড়ে তিন মাস পর মির্জা ফখরুল ও আমীর খসরু কারামুক্ত

আপলোড সময় : ০৮:২৯:০২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

গ্রেফতার হওয়ার সাড়ে তিন মাস পর জামিনে মুক্তি পেলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। আজ বৃহস্পতিবার কেরানীগঞ্জের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে বেলা সাড়ে তিনটার দিকে মুক্তি পান এই দুই নেতা।

জেল থেকে বেরিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, দেশের জনগণ সবসময় গণতন্ত্রের পক্ষে। শান্তিপূর্ণভাবে তারা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন। অপরদিকে, আমীর খসরু বলেন, দেশের মানুষ গণতন্ত্রের পক্ষে রায় দিয়েছে। ক্ষমতা দখল করেও সরকার পরাজিত হয়েছে।

প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা ও নাশকতার অভিযোগে রাজধানীর রমনা থানায় দায়ের করা মামলায় গতকাল বুধবার জামিন পান বিএনপির এ দুই নেতা। ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক ফয়সাল আতিক বিন কাদেরের আদালত তাদেরকে জামিন দেন। সব মামলায় জামিন পাওয়ায় এদিন তাদের আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ জানিয়েছিলেন, বিএনপির এ দুই নেতার কারামুক্তিতে বাধা নেই।

গত ২৮ অক্টোবর রাজধানীতে বিএনপির সমাবেশকে ঘিরে মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে ১১টি মামলা হয়। এর মধ্যে ১০টিতে আগেই জামিন পান তিনি। বাকি থাকা প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার মামলায় গতকাল জামিন মেলে। অন্যদিকে, আমীর খসরুর বিরুদ্ধে ১০টি মামলা হয়। তিনিও প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার মামলা ছাড়া অন্যগুলোতে আগেই জামিন পান। এ দুই নেতাই একই মামলায় আটকে থাকার কারণে এতদিন জেল থেকে বের হতে পারছিলেন না।

২৮ অক্টোবরে সংঘর্ষের পরদিন রাজধানীর গুলশানের বাসা থেকে গ্রেফতার হন মির্জা ফখরুল। আর ২ নভেম্বর রাতে গ্রেফতার হন আমীর খসরু। এরপর থেকেই তারা কারাগারে ছিলেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন