ঢাকা ০৭:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডেমরায় গ্রেফতার কাপড় চোর চক্রের ৫ সদস্য কারাগারে

মোঃ সালে আহমেদ (নিজস্ব প্রতিবেদক)
মোঃ সালে আহমেদ (নিজস্ব প্রতিবেদক)
  • আপলোড সময় : ১১:৫৬:৪৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪
  • / ৩১৫ বার পড়া হয়েছে

রাজধানীর ডেমরায় গ্রেফতার কাপড় চোর চক্রের ৫ সদস্যকে মঙ্গলবার বিকালে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। মাত্র ১৬ দিনের ব্যবধানে ডেমরা থানা এলাকার ২ দোকান থেকে প্রায় সাড়ে ১৯ লক্ষ টাকার কাপড় চুরির অপরাধে সোমবার রাতে কেরানীগঞ্জ থানা এলাকা তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ সময় ৬ লক্ষ টাকার পাঞ্জাবির থান কাপড় উদ্ধার করে অভিযান পরিচালনাকারী ডেমরা ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. বিলাল আল আজাদ। গত ৫ এপ্রিল ভোর ৬ টার দিকে সাটারের তালা ভেঙ্গে পূর্ব—বক্সনগর কবরস্থান সংলগ্ন এলাকার আল ইনসাফ টেইলার্স থেকে সাড়ে লক্ষ টাকার কাপড় চুরি করেন তারা। এর আগে ১৯ মার্চ রোতে কোনাপড়া শান্তিবাগ এলাকার রূপা টেইলার্স নামে দোকান থেকে ১২ লক্ষ ৫০ হাজার কাপড় চুরি করেন এরাই। এ ২ চুরির ঘটনায় গত ৭ এপ্রিল ও ২২ মার্চ ডেমরা থানায় পৃথক দু’টি মামলা রুজু করা হয় অজ্ঞাতনামা চোরদের বিরুদ্ধে। এদিকে মঙ্গলবার আদালতে চোরেরা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলে আদালত তাদের জেলে পাঠায়। গ্রেফতারকৃতরা হলো—শরীয়তপুরের পালং থানার বুড়িরহাট গ্রামের আব্দুল গনি মিয়ার ছেলে মো. বিপ্লব মিয়া (৫০), ভোলার লালমোহন থানার নাজিরপুর গ্রামের মৃত নাছিরের ছেলে মো. মামুন মিয়া (৩০), গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ থানার ধোপাভাঙ্গা গ্রামের মৃত করম আলীর ছেলে মো. হোসাইন মিয়া (৩০), ঢাকার কেরানীগঞ্জের পাইনা পাষন্ডি গ্রামের শ্রী পরিতোষ বাবুর ছেলে রাজন চন্দ্র দাস (২৫) ও নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ থানার চনপাড়া এলাকার মো. ছাদেক মিয়ার ছেলে মো. সানি মিয়া (২৮)। এ ঘটনায় ফয়সাল (২৮) নামে গাইবান্ধার আরেক চোর পলাতক রয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ডেমরা ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বিলাল আল আজাদ বলেন, গ্রেফতাররা সংঘবদ্ধভাবে টেইলার্সকে টার্গেট করে দীর্ঘদিন ধরে কাপড় চুরি করে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধ চুরিসহ অণ্যান্য মামলাও রয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

ডেমরায় গ্রেফতার কাপড় চোর চক্রের ৫ সদস্য কারাগারে

আপলোড সময় : ১১:৫৬:৪৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪

রাজধানীর ডেমরায় গ্রেফতার কাপড় চোর চক্রের ৫ সদস্যকে মঙ্গলবার বিকালে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। মাত্র ১৬ দিনের ব্যবধানে ডেমরা থানা এলাকার ২ দোকান থেকে প্রায় সাড়ে ১৯ লক্ষ টাকার কাপড় চুরির অপরাধে সোমবার রাতে কেরানীগঞ্জ থানা এলাকা তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ সময় ৬ লক্ষ টাকার পাঞ্জাবির থান কাপড় উদ্ধার করে অভিযান পরিচালনাকারী ডেমরা ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. বিলাল আল আজাদ। গত ৫ এপ্রিল ভোর ৬ টার দিকে সাটারের তালা ভেঙ্গে পূর্ব—বক্সনগর কবরস্থান সংলগ্ন এলাকার আল ইনসাফ টেইলার্স থেকে সাড়ে লক্ষ টাকার কাপড় চুরি করেন তারা। এর আগে ১৯ মার্চ রোতে কোনাপড়া শান্তিবাগ এলাকার রূপা টেইলার্স নামে দোকান থেকে ১২ লক্ষ ৫০ হাজার কাপড় চুরি করেন এরাই। এ ২ চুরির ঘটনায় গত ৭ এপ্রিল ও ২২ মার্চ ডেমরা থানায় পৃথক দু’টি মামলা রুজু করা হয় অজ্ঞাতনামা চোরদের বিরুদ্ধে। এদিকে মঙ্গলবার আদালতে চোরেরা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিলে আদালত তাদের জেলে পাঠায়। গ্রেফতারকৃতরা হলো—শরীয়তপুরের পালং থানার বুড়িরহাট গ্রামের আব্দুল গনি মিয়ার ছেলে মো. বিপ্লব মিয়া (৫০), ভোলার লালমোহন থানার নাজিরপুর গ্রামের মৃত নাছিরের ছেলে মো. মামুন মিয়া (৩০), গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ থানার ধোপাভাঙ্গা গ্রামের মৃত করম আলীর ছেলে মো. হোসাইন মিয়া (৩০), ঢাকার কেরানীগঞ্জের পাইনা পাষন্ডি গ্রামের শ্রী পরিতোষ বাবুর ছেলে রাজন চন্দ্র দাস (২৫) ও নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ থানার চনপাড়া এলাকার মো. ছাদেক মিয়ার ছেলে মো. সানি মিয়া (২৮)। এ ঘটনায় ফয়সাল (২৮) নামে গাইবান্ধার আরেক চোর পলাতক রয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ডেমরা ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বিলাল আল আজাদ বলেন, গ্রেফতাররা সংঘবদ্ধভাবে টেইলার্সকে টার্গেট করে দীর্ঘদিন ধরে কাপড় চুরি করে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধ চুরিসহ অণ্যান্য মামলাও রয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন