ঢাকা ০৮:৪৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জবির ইমামকে বহিষ্কার, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিলে প্রশাসনের বাঁধা

রাকিবুল হাসান রাকিব (ক্যাম্পাস প্রতিনিধি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়)
রাকিবুল হাসান রাকিব (ক্যাম্পাস প্রতিনিধি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়)
  • আপলোড সময় : ০৭:৩০:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪
  • / ৩৩৮ বার পড়া হয়েছে

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম ও খতিব মো. ছালেহ উদ্দিনকে নারীঘটিত কারণ দেখিয়ে অব্যাহতির ঘটনায় বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনে সরাসরি বাঁধা প্রধান ও ব্যানার কেড়ে নেয় প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) দুপুর ২টায় বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সামনে এ বাধা প্রদান ও ব্যানার কেড়ে নেওয়া হয়। বাঁধা প্রদানে নেতৃত্ব দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরা মিছিল কেন্দ্রীয় মসজিদের সামনে থেকে শুরু হয়ে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সামনে আসলে শিক্ষকদের সঙ্গে বাকবিতন্ডা শুরু হয় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের।

শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা শুধু আমাদের দাবি জানাচ্ছি। কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমামকে মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগের ভিত্তিতে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। আমাদের দাবি, ইমামকে পুনরায় স্থায়ী নিয়োগ দিতে হবে। আমরা কি আমাদের বাক-স্বাধীনতা পাবো না? আমরা কি আমাদের দাবি জানাতে পারি না? বাক-স্বাধীনতা আমাদের মৌলিক অধিকার। আপনারা আমাদের মৌলিক অধিকার প্রকাশে বাধা দিচ্ছেন।

এ বিষয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আপনারা প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া ক্যাম্পাসে কোনো প্রকার মিছিল মানববন্ধন করতে পারেন না। আপনাদের কোনো অভিযোগ থাকলে আপনারা আপনাদের প্রতিনিধি পাঠাবেন আমাদের কাছে।
তিনি আরও বলেন, ইমামকে অব্যাহতি দেওয়া হয়নি। দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগের তাকে ইমামতি থেকে সাময়িক বিরতি দেওয়া হয়েছে।

ঘটনাস্থলে শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড মো. মাশরিক হাসান উপস্থিত হন। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য বলেন, মসজিদে একটা ঘটনা ঘটেছে। মেয়েটার লিখিত একটি অভিযোগপত্র দিয়েছে। একটা কপি আমার কাছেও আছে। একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সে সময় পর্যন্ত তোমাদের অপেক্ষা করতে হবে।###

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

জবির ইমামকে বহিষ্কার, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিলে প্রশাসনের বাঁধা

আপলোড সময় : ০৭:৩০:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম ও খতিব মো. ছালেহ উদ্দিনকে নারীঘটিত কারণ দেখিয়ে অব্যাহতির ঘটনায় বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধনে সরাসরি বাঁধা প্রধান ও ব্যানার কেড়ে নেয় প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) দুপুর ২টায় বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সামনে এ বাধা প্রদান ও ব্যানার কেড়ে নেওয়া হয়। বাঁধা প্রদানে নেতৃত্ব দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরা মিছিল কেন্দ্রীয় মসজিদের সামনে থেকে শুরু হয়ে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের সামনে আসলে শিক্ষকদের সঙ্গে বাকবিতন্ডা শুরু হয় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের।

শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা শুধু আমাদের দাবি জানাচ্ছি। কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমামকে মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগের ভিত্তিতে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। আমাদের দাবি, ইমামকে পুনরায় স্থায়ী নিয়োগ দিতে হবে। আমরা কি আমাদের বাক-স্বাধীনতা পাবো না? আমরা কি আমাদের দাবি জানাতে পারি না? বাক-স্বাধীনতা আমাদের মৌলিক অধিকার। আপনারা আমাদের মৌলিক অধিকার প্রকাশে বাধা দিচ্ছেন।

এ বিষয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আপনারা প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া ক্যাম্পাসে কোনো প্রকার মিছিল মানববন্ধন করতে পারেন না। আপনাদের কোনো অভিযোগ থাকলে আপনারা আপনাদের প্রতিনিধি পাঠাবেন আমাদের কাছে।
তিনি আরও বলেন, ইমামকে অব্যাহতি দেওয়া হয়নি। দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগের তাকে ইমামতি থেকে সাময়িক বিরতি দেওয়া হয়েছে।

ঘটনাস্থলে শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড মো. মাশরিক হাসান উপস্থিত হন। শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য বলেন, মসজিদে একটা ঘটনা ঘটেছে। মেয়েটার লিখিত একটি অভিযোগপত্র দিয়েছে। একটা কপি আমার কাছেও আছে। একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সে সময় পর্যন্ত তোমাদের অপেক্ষা করতে হবে।###

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন