ঢাকা ০৩:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জবিস্থ চটগ্রাম জেলা ছাত্র কল্যাণের নেতৃত্বে রিয়াজ ও ইমন।

রাকিবুল হাসান রাকিব (ক্যাম্পাস প্রতিনিধি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়)
রাকিবুল হাসান রাকিব (ক্যাম্পাস প্রতিনিধি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়)
  • আপলোড সময় : ০৫:০৩:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪
  • / ৩৭০ বার পড়া হয়েছে

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়স্থ চটগ্রাম জেলা ছাত্র কল্যাণের নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে সভাপতি হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষার্থী রিয়াজ উদ্দিন এবং সাধারণ সম্পাদক একই শিক্ষাবর্ষের মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ ইমন আহমেদ।

বুধবার (৫ই জুন) এক বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনটির উপদেষ্টা ও সকল সাবেক নেতৃবৃন্দের সম্মতিতে এ কমিটি ঘোষণা করা হয়। আগামী এক বছরের জন্য উক্ত পূর্নাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়।

কমিটিতে অন্যান্যপদে আছেন সিনিয়র সহ-সভাপতি এম.এ মান্নান , ১ নাম্বার সহ সভাপতি মোহাম্মদ আরাফাত হোসেন, ১ নাম্বার সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল মাহমুদ, ১নাম্বার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মইন উদ্দিন হাসান, দপ্তর সম্পাদক আল মাহমুদ, অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ নোমান মির্জা

নবনির্বাচিত সভাপতি বলেন, চট্টগ্রাম জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় আমাদের প্রাণের সংগঠন, যেখানে জগন্নাথে অধ্যায়নরত চাটগাঁইয়া ভাই-বোন সকলে মিলেমিশে জগন্নাথের বুকে একতাবদ্ধ হয়ে সুখে দুঃখে সবসময় পাশে থেকে একে অপরের দিকে সহোযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়। এই সংগঠনের কাজই হলো ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য শিক্ষার্থীবান্ধব সেবা প্রদান করা। আমরা চাই, জেলা কল্যাণ পরিষদের গতানুগতিক কাজের বাইরেও সৃজনশীল কিছু কাজ করতে; এটা হতে পারে ক্যারিয়ার ওয়ার্কশপ, আইটি স্কিল ডেভেলপমেন্ট, রচনা প্রতিযোগিতা, পাঠচক্র ইত্যাদি। সর্বোপরি উপদেষ্টা পরিষদ, অ্যালামনাই এবং সকলের ঐকান্তিক সহযোগিতায় আমাদের এই সংগঠনের সকল সদস্যদের যেকোনো পরিস্থিতিতে পাশে থাকবো ইনশাআল্লাহ।

নবনির্বাচিত সম্পাদক বলেন,জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম একটা সংগঠন হচ্ছে, চট্টগ্রাম হলো ‘বার আউলিয়ার ‘পূন্যভূমি, সৌন্দর্যের জন্য ‘প্রাচ্যের রাণী’, দেশের অর্থনীতির জন্য ‘বন্দরনগরী চট্টগ্রাম’ নামে খ্যাত। ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিতে ভরা আমাদের জেলা চট্টগ্রাম। এছাড়া ঐতিহ্যবাহী মেজবানি মাংসের কদর যেমন রয়েছে, তেমনি অতিথিপরায়নতার জন্যও আমাদের চট্টগ্রাম সেরা। পাহাড়, সমুদ্র, প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্য ও প্রাচুর্যে ভরা এরকম একটা জেলার গুরুদায়িত্ব পেয়ে আমি খুবই আনন্দিত। সবার কাছে আমি দোয়া প্রার্থী। সবাই যেভাবে আমাদের সহযোগিতা করেছেন, আগামীতেও সেটি অব্যাহত থাকুক। সবার সহযোগিতা, মানবিক মূল্যবোধ ও সম্মিলিত প্রচেষ্ঠায় এগিয়ে যাবে আমাদের প্রিয় এই সংগঠন।
###

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

জবিস্থ চটগ্রাম জেলা ছাত্র কল্যাণের নেতৃত্বে রিয়াজ ও ইমন।

আপলোড সময় : ০৫:০৩:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৬ জুন ২০২৪

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়স্থ চটগ্রাম জেলা ছাত্র কল্যাণের নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে সভাপতি হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষার্থী রিয়াজ উদ্দিন এবং সাধারণ সম্পাদক একই শিক্ষাবর্ষের মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ ইমন আহমেদ।

বুধবার (৫ই জুন) এক বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনটির উপদেষ্টা ও সকল সাবেক নেতৃবৃন্দের সম্মতিতে এ কমিটি ঘোষণা করা হয়। আগামী এক বছরের জন্য উক্ত পূর্নাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দেয়া হয়।

কমিটিতে অন্যান্যপদে আছেন সিনিয়র সহ-সভাপতি এম.এ মান্নান , ১ নাম্বার সহ সভাপতি মোহাম্মদ আরাফাত হোসেন, ১ নাম্বার সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল মাহমুদ, ১নাম্বার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মইন উদ্দিন হাসান, দপ্তর সম্পাদক আল মাহমুদ, অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ নোমান মির্জা

নবনির্বাচিত সভাপতি বলেন, চট্টগ্রাম জেলা ছাত্র কল্যাণ পরিষদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় আমাদের প্রাণের সংগঠন, যেখানে জগন্নাথে অধ্যায়নরত চাটগাঁইয়া ভাই-বোন সকলে মিলেমিশে জগন্নাথের বুকে একতাবদ্ধ হয়ে সুখে দুঃখে সবসময় পাশে থেকে একে অপরের দিকে সহোযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়। এই সংগঠনের কাজই হলো ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য শিক্ষার্থীবান্ধব সেবা প্রদান করা। আমরা চাই, জেলা কল্যাণ পরিষদের গতানুগতিক কাজের বাইরেও সৃজনশীল কিছু কাজ করতে; এটা হতে পারে ক্যারিয়ার ওয়ার্কশপ, আইটি স্কিল ডেভেলপমেন্ট, রচনা প্রতিযোগিতা, পাঠচক্র ইত্যাদি। সর্বোপরি উপদেষ্টা পরিষদ, অ্যালামনাই এবং সকলের ঐকান্তিক সহযোগিতায় আমাদের এই সংগঠনের সকল সদস্যদের যেকোনো পরিস্থিতিতে পাশে থাকবো ইনশাআল্লাহ।

নবনির্বাচিত সম্পাদক বলেন,জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যতম একটা সংগঠন হচ্ছে, চট্টগ্রাম হলো ‘বার আউলিয়ার ‘পূন্যভূমি, সৌন্দর্যের জন্য ‘প্রাচ্যের রাণী’, দেশের অর্থনীতির জন্য ‘বন্দরনগরী চট্টগ্রাম’ নামে খ্যাত। ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিতে ভরা আমাদের জেলা চট্টগ্রাম। এছাড়া ঐতিহ্যবাহী মেজবানি মাংসের কদর যেমন রয়েছে, তেমনি অতিথিপরায়নতার জন্যও আমাদের চট্টগ্রাম সেরা। পাহাড়, সমুদ্র, প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্য ও প্রাচুর্যে ভরা এরকম একটা জেলার গুরুদায়িত্ব পেয়ে আমি খুবই আনন্দিত। সবার কাছে আমি দোয়া প্রার্থী। সবাই যেভাবে আমাদের সহযোগিতা করেছেন, আগামীতেও সেটি অব্যাহত থাকুক। সবার সহযোগিতা, মানবিক মূল্যবোধ ও সম্মিলিত প্রচেষ্ঠায় এগিয়ে যাবে আমাদের প্রিয় এই সংগঠন।
###

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন